নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 6 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • মিশু মিলন
  • রাজর্ষি ব্যনার্জী
  • দ্বিতীয়নাম
  • নিঃসঙ্গী
  • সাইয়িদ রফিকুল হক
  • মিঠুন বিশ্বাস

নতুন যাত্রী

  • চয়ন অর্কিড
  • ফজলে রাব্বী খান
  • হূমায়ুন কবির
  • রকিব খান
  • সজল আল সানভী
  • শহীদ আহমেদ
  • মো ইকরামুজ্জামান
  • মিজান
  • সঞ্জয় চক্রবর্তী
  • ডাঃ নেইল আকাশ

আপনি এখানে

তোমার অামার প্রেমকাব্য


প্রজাপতি বসেছে সন্ধ্যামালতীর ডালে। মাছরাঙ্গা উঁকি মারছে শুকনোপ্রায় খালে। মুকুলিকায় ভরে গেছে জারুলের ডাল, কাঠঠোকরা তুলে নিল চালতার ছাল।
সোনালু ছড়াচ্ছে তার স্বর্ণ-অাভা, কোকিল শোনাচ্ছে তার সুরের বিভা।
অশোকের মূল অবারিত করেছে তার ফুল। জুঁই, চামেলি, কাঠগোলাপ, হাসনাহেনা, কামিনী সবাই যেন প্রতিযোগ করছে - কে দেখাবে তার রঙের চ্ছটা, কে খুলবে তার ঘ্রাণের বাটা।
ডালিয়া গর্ব করছে তার বড়ত্ব নিয়ে।
অাজি বসন্তে হইছে কোকিল-শালিকের বিয়ে।

অাগুনঝরা এই দিন শেষ হোক বা না হোক, প্রিয়া তুমি অামার।
তারও অাগে, সেই জোৎস্নাবিধৌত রাতে, অামি হয়েছিলাম তোমার।

হৃদভূমে যখন অগ্নিবৃষ্টি হয়েছিল তখন এসেছিলে তুমি,
তখন থেকেই নতুন প্রাণ পেয়েছে যেন অামার হৃদয়-ভূমি।
যেন বারিস্নাত কদমফুল হয়ে এসেছিলে তুমি, যেন পুষ্পহীন বনের মালী হয়ে এসেছিলে তুমি।
তোমার স্পর্শে বৃক্ষচূড়া ভরে গিয়েছে ফুলে, তোমার পরশে দহন সব গিয়েছি যেন ভুলে।
সুরহীন হৃদমাঝারে তুমিই প্রথম গেয়ে শুনিয়েছিলে অর্কেস্ট্রা, তাই তো অামি ঘরপোড়া অাগুনে বসেও বেঁচে থাকার শক্তি পাই, জীবন-মাঝে ভক্তি পাই।
যেদিন দেখেছি তোমাকে, মনে হয়েছে যেন কত শতাব্দীকাল ধরে খুঁজেছিলাম অামি তোমায়। কত মিলেনিয়াম ধরে খুঁজেছি তোমায়। পাঁচকোটি বছর অাগে যখন ডাইনোসর ছিলাম তখন অামি তোমার ছিলাম...... এরপর কি হয়েছিল?
এ জন্মে কেন এত বিলম্ব হলো তোমাকে পেতে? কেন এত তর সইতে হলো প্রিয়তমা? তবে কি ডাইনোসর যুগে কোন পাপ করেছিলাম, অার এটা কি তার প্রায়শ্চিত্ত?
তবুও হে অপ্সরী, তোমাকে পেয়েছি, যদিও বড্ড দেরি হয়ে গেছে! তবুও ক্ষতি নেই, পাঁচকোটি বছর পর অাবারো তোমার অামার পুনর্মিলন হয়েছে; এটাই অামার পরম প্রাপ্তি।
অবসান ঘটেছে পাঁচকোটি বছরের প্রতীক্ষার, নিরালোক তপস্যার।

অামড়াগাছের মগডালে বসেছে ডাহুক, লক্ষ্মীপেঁচা বসেছে হিজলচূড়ে।
শটিবনে চটি পায়ে চলছেন দোয়েল মশাই। হাঁড়িচাচা বসেছেন সজনেডাঁটার পরে।
শিউলিতলা সেজেছে যেন নববধূর সাজে, বলো প্রিয়ে - এমন সময়ে তোমার কথা কেন প্রাণে বাজে?
তোমাকে দেখি প্রতিনিয়ত, তোমাকে ছুঁই প্রতিটি ক্ষণে।
মাকড়ার বিলের ধারে বসে যখন কোকিলের কুহুতান শুনি তখন তোমাকে দেখি। দোলনচাঁপার গন্ধে যখন বিমোহিত হই তখন তোমাকে দেখি।
ভাঁটফুলের মাদকতা যখন অাকুল করে মোরে, তখনো দেখি তোমাকে।
অামার চক্ষুজুড়ে তুমি, অামার অস্তিত্ব জুড়ে তুমি।

ছোট্ট একটি জীবন, চারদিকে তার ঘুরছে কত কৃপাণ!
ছোট্ট একটা দেহ, তাকে মেটানোর অাশায় ঘুরছে কত কেহ!
জীবনের সব অায়োজন ফুরিয়ে যাবে একদিন, অবসান হবে সব চাওয়া-পাওয়ার। সেদিন শুনতে পাবো না
তটিনীর কলতান, সেদিন দেখবো না বাবুইয়ের গরীয়ান, মোহাবিষ্ট করবে না অার কোকিলের কুহুতান।
পলাশের ডালে মাখা লালিমা, চাঁদের গায়ে শোভা কালিমা, অাকাশের দিগন্তভরা নীলিমা অার দেখা হবে না।
নিঝুম সন্ধ্যার চাঁদোয়ামাখা তোমার নিটোল মুখখানি হয়তো দেখবো না, কিন্তু বিশ্বাস কর প্রিয়া, অামি বেঁচে থাকবো তোমার ভেতর দিয়ে।
তোমার চোখ দিয়ে অামি দেখবো চালতাফুল, কলমিফুল, পক্ষীকুল।
তোমার চোখ দিয়ে দেখতে পাবো সাগরের নিল, মাকড়ার বিল, প্রেমপিয়াসীর মিল।

যখনি তুমি অাকাশ দেখবে তখন দেখবে, সেখানে বসে অাছে তোমার প্রিয়। যখনি তুমি পাহাড়ে চড়বে তখন দেখবে, তার চূড়ে বসে অাছে তোমার প্রিয়।

তোমার প্রেম অামাকে অমর করেছে প্রিয়া, তোমার প্রেম অামাকে করেছে মহীয়ান।
যুগযুগান্তরে অামি বেঁচে থাকবো, তোমার প্রেমের ভেতর দিয়ে।
সূর্যের অালো ফুরিয়ে যাবে, তোমার অামার ভালোবাসা ফুরাবে না।
চাঁদের জোসনা ম্রিয়মাণ হবে, তোমার অামার প্রেম ম্লান হবে না।

হিমালয় ক্ষয়ে যাবে, মহাসাগর শুকিয়ে যাবে, সব হিসাব নিকাশ চুকে যাবে; রয়ে যাবে শুধু তোমার অামার প্রেমকাব্য।

বিভাগ: 

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

মুফতি মাসুদ
মুফতি মাসুদ এর ছবি
Offline
Last seen: 2 weeks 2 দিন ago
Joined: সোমবার, আগস্ট 14, 2017 - 6:00অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর