Posted in Uncategorized

খোলাচিঠি -৫

সম্রাজ্ঞী, কখনো মনে হয়,পৃথিবী ছোট ও খুব ছোট ! এর মাঝে মানবের চাহিদার ভান্ডার সুবিশাল। যার ভেতর পাওয়া হয়ে থাকে সীমিত। আজ তাই পাওয়ার আকাংখা রাখতে পারি না আমি ! শুধু দুটো দীর্ঘশ্বাস ছাড়ি…. তবুও আজ,দেখছি আর বাকশক্তি হারাচ্ছি ….. অদ্ভুত মুগ্ধতায় মুগ্ধ হচ্ছি …. গায়ে লাল ও সাদায় আবৃত।…

বিস্তারিত পড়ুন... খোলাচিঠি -৫
Posted in Uncategorized

ক্ষুদ্র কথামালা (২১-৩০)

২১. জাতীয় পরিচয়পত্র আছে , কিন্তু কথা বলার অধিকার নেই। ২২. সর্বাঙ্গে আবৃত করে,ঐ ক্যামেরায় বাক্সবন্দী করে সুখ লুটে নাও তুমি।আমি অন্ধের মত অন্ধকারে পড়ে থাকি। বোবার মত কিছু বলতে পারি না।প্রতিবন্ধীর মত শুধু কষ্ট অনুভূত হয় ! ২৩. সৌন্দর্যকে পন্য করে তুলি আমরা।আকুতি-মিনতি কখনোই পেরে ওঠে না বলিষ্ঠ পশুর…

বিস্তারিত পড়ুন... ক্ষুদ্র কথামালা (২১-৩০)
Posted in Uncategorized

নরাধম

প্রতিদিন, প্রতিরাতে, প্রতিমুহূর্তে, জগত জন্ম দিচ্ছে, নতুন নতুন প্রান, বাড়িয়ে নিচ্ছে তার বৈচিত্র্য ! ভাবতে অবাক লাগে, প্রান সংখ্যার পরিবর্তন, চোখ বুজলেই, ধাঁধাঁলো হয়ে আসে। বৈচিত্র্যতায় হূদয় হয়ে ওঠে সৌন্দর্যময় ! নিজেদের সভ্য ভেবে, অসভ্য ও হিংস্রতার স্টেম্প মেরে দিই, প্রত্যেকের শরীরে। কাঁকাতুয়া তার মত সবাইকে, কাঁকাতুয়া মানে । সিংহ…

বিস্তারিত পড়ুন... নরাধম
Posted in Uncategorized

লুট হয়ে যাওয়া স্বদেশ

যখন খুব ছোট, তখনও কত শুনেছি, বহি:দেশের গুনর্কীতনের কথা, কখনো লাগেনি খানিকটা চোট, আর বিন্দুমাত্র ব্যাথা। স্বদেশ গৌরবের, স্বদেশ অহংকারের মাঝরাতে স্বপ্নের ঘোরেও, অভিযোগ ছিল না অপ্রাপ্তির, নিভৃতে আনন্দে কাটাতে চেয়েছি, আমার সবদিনগুলো এই ভূমিতে। কত প্রতিমা ভাঙ্গার শব্দ শুনেছি, পুড়ে যেতে দেখেছি অসংখ্য ঘর-বাড়ি, আহত রূপ ব্যাহত করেছে আমায়,…

বিস্তারিত পড়ুন... লুট হয়ে যাওয়া স্বদেশ
Posted in Uncategorized

মৃত্যুর পরে মৃত্যু হয়ে যাক

আজ থেকে আর স্বপ্নের , কথা লিখব না। মনের দাবি রক্ষা না করলে, নাকি আত্মা বাঁচে না। আমারটাও বেঁচে নেই আর ! কতবার চেষ্টা করেছি । কি আর করি বল ! একবার তুমি ভেঙ্গেছ, আবার সে ভেঙ্গেছে, আবার তাহারা ভেঙ্গেছে। আজ, ক্ষতে ক্ষতে চূর্ণ-বিচূর্ণ, হয়ে গেছে সব। রাত-প্রভাতে আর কখনো,…

বিস্তারিত পড়ুন... মৃত্যুর পরে মৃত্যু হয়ে যাক
Posted in Uncategorized

একুশের আর্তনাদ

আজও ঐ দিনের জন্য, আবেগের বশে, মন খুলে উল্লাসে, মায়ের মুখের আদলে, প্রথম বুলি শেখা। দুষ্ট ছেলেটা অতীব খেয়ালে, বুক ফুলিয়ে মাথা উচু করে, বলে ওঠে আমি বাঙালী, বাংলা সেতো আমার মা। অপার বিস্ময়ে তাকিয়ে মনুষ্য, অনুররন অনুভূত হয় বিশ্বব্রক্ষান্ডে, সবই হয় আজও পরাজিত, হে একুশ তোমার আর্তনাদে। হয়তো মৃত্যু…

বিস্তারিত পড়ুন... একুশের আর্তনাদ
Posted in Uncategorized

কাল কিন্তু বসন্ত

আজ ভোর বেলায় নিদ্রা, ভেস্তে যায়। চোখের বিষম তন্দ্রা, নিমিষে হারায়। আমি বেরিয়ে পড়ি….. হেটে হেটে ঐ পাতা ঝরা বৃক্ষের তলে দাঁড়াই, মৃত হওয়া পাতা কুড়োই, ফের বৃক্ষের দিকে তাকাই। পুত্রশোকে কাতর বির্বনতা কাটিয়ে সে আবার রঙিন হতে শুরু করেছে । সে নীলাভ সবুজ পুত্র প্রসব করছে। আমি ম্রিয়মাণ হয়ে,…

বিস্তারিত পড়ুন... কাল কিন্তু বসন্ত
Posted in Uncategorized

ক্ষুদ্র কথামালা (১১-২০)

১১. ভাষা থাকে।কখনো কখনো তা প্রকাশ করা যায় না।কেউ তা ভুলে যায় না,সুপ্ত থাকে ভিতরে।একদিন আবার বেরিয়ে আসবে।অপেক্ষা শুধু সময়ের। ১২. বাঁচো নিজস্ব অভিপ্রায়ে। প্রত্যেকটা সর্ম্পকের তার নিজস্ব গল্প আছে।এটা হতে পারে, ভালো অথবা খারাপ।এটা হতে পারে,সুখের অথবা দু:খের।কিন্তু, তুমিই তার লেখক। তুমি পারো ইহার শেষ করতে, কান্নায় অথবা হাসিতে।…

বিস্তারিত পড়ুন... ক্ষুদ্র কথামালা (১১-২০)
Posted in Uncategorized

ক্ষুদ্র কথামালা (১-১০)

১.চোরে ন বুঝে ধর্মর কথা, বউয়ে ন বুঝে জামাই’র ব্যাথা। ২.উদ্ভট ছারপোকার অন্নদাতাকে পরিপূর্ণভাবে শোষনের পরও,নিজের মৃত্যু জেনেও বুক পেতে দিয়েছেন ছারপোকাকে রক্ত শোষনের জন্য।অন্নদাতা আর কারো সাথে পৃথিবীতে তোমার তুলনা চলে না। ৩.মুখের বুলিই কেবল কথা নয়, কিছুটা হাতের উদ্ধৃতি, লেখনী, তাও কথা।

বিস্তারিত পড়ুন... ক্ষুদ্র কথামালা (১-১০)
Posted in Uncategorized

আর নয় হুজুগে, এবার উঠুন জেগে

ফিলিপ হিউজ নামের একজন ক্রিকেটারের মৃত্যু হল।অল্প বয়সে মৃত্যু, খানিকটা অস্বাভাবিকভাবে বাউন্স বলের আঘাতে।নির্ঘাতই ব্যাপারটা বিষাদময়। তার জন্য আমাদের হাহাকার ছিল প্রবল। গুগল বেচারার কাছ থেকে ব্যাপকভাবে আমরা ফিলিপ হিউজের লিংক খুজে নিয়েছি। তার ছবি ডাউনলোড করেছি, আবার আপলোডও করেছি। ইউটিউবে ভিডিও দেখেছি পুরনো ম্যাচের। তার মৃত্যুর দিন এক ছোট…

বিস্তারিত পড়ুন... আর নয় হুজুগে, এবার উঠুন জেগে