Posted in Uncategorized

দুষ্ট বালকদিগ আর তাহাদিগের অফিস

কতিপয় দুষ্ট বালক মাধ্যমিক উত্তীর্ণ হইবার পর একত্রিত হয়েছিলো। প্রতিদিন কলেজে ফাকি দিয়ে এক পরিত্যক্ত বিল্ডিংয়ের তৃতীয় তলার সিড়িতে তাদেন আড্ডা বসতো। সেই জায়গা পরিচিত হয়েছিলো বালকদিগের অফিস নামে। বিল্ডিংয়ের নিচে ছিলো শহরের অন্যতম প্রাচীন টঙ। টঙের কর্মচারী ছিলো হেলাল, মাঝেমধ্যে বালক পরিবর্তিত হয়ে আসতো শামীম। পরবর্তিতে তারা হয়ে যায়…

বিস্তারিত পড়ুন... দুষ্ট বালকদিগ আর তাহাদিগের অফিস
Posted in Uncategorized

একটি মৃত্যু, অতপর

১ . তাহিন ফুটপাতে বসে সিগারেট জ্বালালো। সাধারণত এই শীতের সকালে এই রাস্তায় তেমন লোকজন চলাফেরা করে না। এখন সে খুবই খুশি তাই মনের আনন্দে ধোঁয়া ছাড়ছে। প্রায় আধঘণ্টার সে একই জায়গায় বসে আছে। বামে ঘাড় ঘুরাতেই সে একটু দূরের পার্কে লোকজনের জটলা দেখতে পেল। একটু পর এ্যাম্বুলেন্সের সাইরেন। তাহিন…

বিস্তারিত পড়ুন... একটি মৃত্যু, অতপর
Posted in Uncategorized

বাহ্ ফটোশপ!!

সবাই সংবর্ধনার আয়োজন করো, কালকেই চন্দ্র জয় করে আসবো। মূসা ইব্রাহীম যদি ফটোশপ দিয়া এভারেস্টের চূড়ায় যেতে পারে, তাইলে আমি হুগুর চাইদীর মতো চাঁদে যেতে পারবো না? হুহ্। জিয়া আর প্রেসিডেন্ট টপিকের পর নতুন টপিক খুজে পাওয়া গেছে। অন্তত নতুন বিষয়ে লেখা পড়তে পারবো। // শনিবার রাতে একাত্তরে প্রতিবেদনটি প্রকাশের…

বিস্তারিত পড়ুন... বাহ্ ফটোশপ!!
Posted in Uncategorized

অসমাপ্ত

: ভালোবাসিস? : হু। : তাহলে চিৎকার করে বল ভালোবাসি। : কেন? : আমি বলেছি তাই। : গলা ব্যথা।

বিস্তারিত পড়ুন... অসমাপ্ত