Posted in Uncategorized

অতৃপ্ত জিজ্ঞাসা!

শফিকুল হায়দার সাহেব একজন ভাবুক মানুষ। কম কথার মানুষ হিসেবে নিজেকে জাহির করতে চান। পারেন না অনেক সময়। কারণ উনি যে জ্ঞান দেওয়ার ক্ষেত্রে বিশাল ওস্তাদ। তাঁর আবার খিটখিটে মেজাজ। মিতব্যয়ী মানুষ। অপচয় করতে একদম পছন্দ করেন না। কিন্তু এই গুণটার আড়ালে উনি যে একজন কৃপণ, তা ওনার আশে পাশের…

বিস্তারিত পড়ুন... অতৃপ্ত জিজ্ঞাসা!
Posted in Uncategorized

বৃষ্টিবেসে চলে যাওয়া

সেইদিন বৃষ্টি হচ্ছিল। আমি জানালা দিয়ে বাইরে তাকিয়ে ছিলাম। তুমি মনের আনন্দে ভিজছিলে। নূপুর পায়ে তুমি মাটিতে বৃত্ত আঁকছিলে। জিহ্বা বের করে বৃষ্টি সুধা পান করছিলে চোখ বন্ধ করে। আমি শুধু চেয়ে চেয়েছিলাম। সেইদিন বৃষ্টি হচ্ছিল। আমি জানালা দিয়ে বাইরে তাকিয়ে ছিলাম। তুমি মনের আনন্দে ভিজছিলে। নূপুর পায়ে তুমি মাটিতে…

বিস্তারিত পড়ুন... বৃষ্টিবেসে চলে যাওয়া
Posted in কবিতা

© সাইক্লোন কাব্য!!!

শোন ললনা, আমাকে তো পাত্তা দিলেই না। তাই তোমার সাথে আমার হয়ে উঠেনি। সেন বংসের সম্রাটদের কথা শুনেছ নিশ্চয়ই। এদের উত্তরসুরিদের একজন হল এই ” মহাসেন”। এমন উচ্ছসিত হচ্ছ কেন মহাসেনকে নিয়ে? খুব পছন্দ হয়েছে, তাই না? তবে মনে রেখ, সেন বংশ কিন্তু ইতিহাসের পাতায় ঠাঁই করে নিয়েছে। তোমার মহাসেনের…

বিস্তারিত পড়ুন... © সাইক্লোন কাব্য!!!
Posted in ব্লগ

মধ্যবিত্তের সেলাই মেশিন এবং অনেক চাহিদার বুনন!!!

আম্মা অনেক আগে থেকেই সেলাই কাজ করে আসছেন। উনি একটা এনজিওর আন্ডারে সেলাই কাজ শিখেছিলেন। সেলাই শিখতে যাওয়ার সময় আমাকে হাতে করে নিয়ে যেতেন। পেপার কেটে সেলাই কাজ শেখানো হত। ক্লাস শেষে সেই প্যাটার্ন গুলো আমি নিয়ে আসতাম। ফেরার পথে দোকান থেকে এটা ওটা খেতে চাইতাম বলে মাইরও খাইতাম আম্মার…

বিস্তারিত পড়ুন... মধ্যবিত্তের সেলাই মেশিন এবং অনেক চাহিদার বুনন!!!
Posted in কবিতা

মিথ্যে বানাই, মিথ্যে কিনি, মিথ্যে উড়াই!!!

আগে আমি একটা মিথ্যের কারিগর ছিলাম, নিজের হাতে বুনে বুনে মিথ্যে বানাতাম। কত রকম মিথ্যের নকশা ছিল আমার কাছে! প্রতিদিন নিত্য নূতন মিথ্যের নকশা বানাতাম, এই সব মিথ্যাকে আমি আবার রং দিতাম, কখনও আকাশী রং কখনও বা গোলাপী। কখনও লাল নীল রংয়ের মিশেল দিতাম, কখনও বা গায়ে হলুদ বরণ রং…

বিস্তারিত পড়ুন... মিথ্যে বানাই, মিথ্যে কিনি, মিথ্যে উড়াই!!!