Posted in রিভিউ সমসাময়িক সমালোচনা

গুলতেকিন খান এবং হুমায়ুন আহমেদ আর আপনার আমার বুদ্ধিজ্ঞানের কমতি!

আমি টাইটেলে লেখা দুইজনকেই ব্যক্তিগত ভাবে চিনিনা।গুলতেকিন খানকে চিনি হুমায়ুন আহমেদের স্ত্রী হিসেবে। যতটুকু জানি তার সম্বন্ধে সেটাও হু আ এর লেখার মাধ্যমেই। তাছাড়া বিগত বইমেলায় তার কবিতার বই প্রকাশ পায়।বইটা কিনিনি।কিনবো এবার।অনলাইনে তার কবিতা পড়েছি।ভালোও লেগেছে।নিজে লেখালেখি করি। কারা নতুন প্রতিদ্বন্দী হচ্ছেন খবর রাখার চেষ্টা করি। কার বই কয়…

বিস্তারিত পড়ুন... গুলতেকিন খান এবং হুমায়ুন আহমেদ আর আপনার আমার বুদ্ধিজ্ঞানের কমতি!
Posted in স্যাটায়ার

ঈশ্বরের ইন্টারভ্যু (পর্ব-২)

ঈশ্বরের ইন্টারভ্যু (পর্ব-১) চেয়ারে শুয়ে এক পা আর এক চেয়ায়ের উপরে তুলে সুচিত্রা ভট্টাচার্যের ‘এখন হৃদয়’ প্রচ্চন্ড মনোযোগ সহকারে পড়ছি আর সিগারেট টানছি এবং প্রেমিকার কথা ভাবছি হঠাত সামান্য মনোযোগে ছেদ পড়লো।পাশের চেয়ারে দেখি স্বয়ং ঈশ্বর বসে বসে মিটিমিটি হাসছেন আর আমার দিকে চেয়ে আছেন। আমি সপ্রশ্ন দৃষ্টিতে তেনার দিকে…

বিস্তারিত পড়ুন... ঈশ্বরের ইন্টারভ্যু (পর্ব-২)
Posted in স্যাটায়ার

ঈশ্বরের ইন্টারভ্যু (পর্ব-১)

ঈশ্বর আমাকে বলিলেন, হে বকুলবাবু এ কি কাল আসিলো গো আমার বেল দিনদিন যে ফুরাইয়া যাইতেছে।ফলোয়ার কমিয়া যাইতেছে।কোনো বুদ্ধি বাতলায়া কি আমাকে এই সঙ্কট থেকে উদ্ধার করা যায় না? আমি ঈশ্বরের দিকে একবার হাস্যমুখে চাহিলাম তারপর সিগারেটে একটা লম্বা টান দিয়া বলিলাম ওহে বাপু ওত থিঙ্কিত হওনের কি আছে হে?তুমি…

বিস্তারিত পড়ুন... ঈশ্বরের ইন্টারভ্যু (পর্ব-১)
Posted in ব্যক্তিগত কথাকাব্য রাজনীতি সমসাময়িক

কিছু তেতো কথার প্রলাপ-বিপর্যস্ত মগজের শেষ সম্বল

তেতো কথা।শুনতেই কেমন কিম্ভুত কিমাকার লাগে।জানিনা কি বলতে কি বলে বসবে!উগ্র নাস্তিকতার ছাপও তো ফেলে দিতে পারে এই পুঁচকে বেয়াদব।তো তাতে আপনার আমার কি এসে যায়! ব্লগিংটা শুরু করেছিলা খেয়াল বশে।অত কিছু মাথা নিয়ে মাথা ঘামানোর ফুরসত কই!সব বাঘা বাঘা ব্লগার কমেন্ট করে পুরা নায়কত্বটাকেই ভেস্তে দিতেন।এতে কাজ হোতো।পরের লেখাগুলো…

বিস্তারিত পড়ুন... কিছু তেতো কথার প্রলাপ-বিপর্যস্ত মগজের শেষ সম্বল
Posted in উপন্যাস গল্প সাহিত্য

বকুল এর ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা উপন্যাস’ -চতুর্থ পর্ব

তৃতীয় পর্ব পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা উপন্যাস বকুল ৭ অনামিকা চুপচাপ বসে আছে।কোনো রা নেই।এভাবে সে ঘন্টার পর বসে থাকতে পারে।অনামিকার কাছে মনে হয় এই ঘাপটি মেরে বসে থাকাটা একটা বিরাট ব্যাপার!সবাই পারেনা।এক্সপ্রেশন যেকোনো ভাবে দিয়ে দ্যায়।কিন্তু অনামিকার ব্যাপারটা সম্পূর্ণ আলাদা।সে এটা পারে।এটা তার সময় কাটানোর জন্য বিরাট প্ল্যানের ছোট্ট অংশ।ধীরে ধীরে…

বিস্তারিত পড়ুন... বকুল এর ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা উপন্যাস’ -চতুর্থ পর্ব
Posted in উপন্যাস গল্প সাহিত্য

বকুল এর ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা উপন্যাস’ -তৃতীয় পর্ব

দিত্বীয় পর্ব পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা উপন্যাস বকুল ৫ আনিস ফোনটা পকেটে পুরে পকেট থেকে সিগারেটের পাকেটটা বের করে তার ওপর যে কদাকার ছবি আছে তার দিকে তাকিয়ে থাকলো।তারপর তার থেকে একটা সিগারেট বের করলো।এবার প্যাকেটটা পকেটে পুরে লাইটারটা বের করলো।লাইটারটা শিউলির।এই লাইটার টা নিয়ে শিউলি যে কি লঙ্কাকান্ড বাঁধালো সেদিন! উফ……

বিস্তারিত পড়ুন... বকুল এর ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা উপন্যাস’ -তৃতীয় পর্ব
Posted in উপন্যাস গল্প সাহিত্য

বকুল এর ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা উপন্যাস’ -দ্বিতীয় পর্ব

প্রথম পর্ব পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা উপন্যাস-দ্বিতীয় পর্ব বকুল ৩ সারাবেলাই শিউলি ঘুমিয়ে কাটালো।প্রচন্ড খিদা লাগছিলো তাও ওঠেনি।রান্না করতেও ইচ্ছে করছেনা।আনিসের সাথে যখন প্রেম ছিলো তখন ও একটা কল সেন্টারে কাজ করতো।মাইনে বেশি ছিলোনা।তবে নিজের অর্জনের টাকা! বেতন পেলেই ও আর আনিস চলে যেত চাংখার পুলে।জম্পেশ খাই দাই।আড্ডায় ভরপুর।তখন আনিস চাকরি পায়নি।ছবি…

বিস্তারিত পড়ুন... বকুল এর ‘পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা উপন্যাস’ -দ্বিতীয় পর্ব
Posted in উপন্যাস গল্প সাহিত্য

বকুল এর পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা উপন্যাস

পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা উপন্যাস বকুল ১ বউকে আনিস বারবার বলেছে তরকারীতে লবণ কম দিতে।এত লবণ মানুষে খায়?আনিস নিজেকেই নিজে প্রশ্ন করে।এই তরকারী তো শুধু সে খায়না শিউলিও খায়।ওর ভাল্লাগে? এত পরিমান লবণ খেতে!আচ্ছা ও আধপেটা থেয়ে থাকে নাতো? আনিস আর শিউলি ছ’মাস যাবত বিয়ে করেছে।বাবা মার সম্পূর্ণ অমতে বিয়ে।তাদের সাথে এখোনো…

বিস্তারিত পড়ুন... বকুল এর পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা উপন্যাস
Posted in Uncategorized

বাকিটা ব্যক্তিগত

বাকিটা ব্যক্তিগত সেদিন তোর বগলের ঘামে পেয়েছি আমার প্রেমের দাম সেদিন তোর নরম নাভিতে শ্বাস ফেলেছিলাম অবিরাম সেদিন তোর যোনিগন্ধে আগুল ভুলেছিলো ডান বাম তবু আজ অভ্যাসে বশে একবারও জাগালি না শরীরে কাম? বাকিটা ব্যক্তিগত কথা তো তোকে বলতেই হবে আজই বলনা, আমি তো তোর শরীরই খুঁজি লোকলজ্জা বলে কিছু…

বিস্তারিত পড়ুন... বাকিটা ব্যক্তিগত
Posted in Uncategorized

বাকিটা ব্যক্তিগত (১ এবং ২ ফ্রিতে)

বাকিটা ব্যক্তিগত-১ তোর শরীরে আমার শরীর মিশবে যখন ভাবতে পারিস?কি আলোড়ণে থাকবে যবন! তোর স্তনের খাঁজে নাক ঠেকিয়ে থাকবো যখন সমুদ্রের তীর শুষে নেবে সমস্ত লবন মিলবেনা আর আজকের সব সমীকরণ তোর আগুনে চলবে তখন কামজ্বলন। বাকিটা ব্যক্তিগত-২ তুমি বুঝি ওদের কথার মানুষ আমার থেকে অনেক অনেক দূরের তুমি বুঝি…

বিস্তারিত পড়ুন... বাকিটা ব্যক্তিগত (১ এবং ২ ফ্রিতে)