Posted in Uncategorized

এক ঢিলে তিন পাখিঃ প্রসঙ্গ যুদ্ধাপরাধের বিচার :: সাব্বির খান

শিরোনাম দেখে ভাবার কোন কারন নেই যে, আমি বিরোচিত কোন কাজের বর্ননা দিচ্ছি। একই লেখায়, সম্পূর্ন ভিন্ন অবস্থানের তিনজন বিশিষ্ট ব্যক্তির ব্যাপারে কিছু কথা লিখবো বলে এই শিরোনামের আশ্রয় নিয়েছি। যুদ্ধাপরাধের বিচারের মত মারাত্নক স্পর্শকাতর বিষয়ে গত এক সপ্তাহে বিভিন্ন ভাবে এই তিন ব্যক্তির নাম আলোচনায় উঠে এসেছে। একই লেখায়,…

বিস্তারিত পড়ুন... এক ঢিলে তিন পাখিঃ প্রসঙ্গ যুদ্ধাপরাধের বিচার :: সাব্বির খান
Posted in Uncategorized

মাহফুজ আনামরা ক্লান্ত হন না…

ইংরেজী পত্রিকা ডেইলী স্টারের প্রকাশক ও সম্পাদক মাহফুজ আনাম সাহেব তাঁর নিজের পত্রিকায় সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে বিশাল এক ‘সুশীলাকৃতি”র কলাম লিখেছেন। প্রতিটা লাইন খুব মনযোগ দিয়ে পড়েছি। কিন্তু ওনার লেখা একটা লাইনও আমাকে বিশেষভাবে আন্দোলিত করেনি বা করতে পারেনি। বরং সুবিচার ও মানবতার কথা বলে মার্কিনী প্ররোচনায়…

বিস্তারিত পড়ুন... মাহফুজ আনামরা ক্লান্ত হন না…
Posted in Uncategorized

প্যাকেজ নাটকঃ ‘যাত্রা দেখে ফাতরা লোকে!’

অভিনয়েঃ শেখ হাসিনাঃ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশে সরকার খালেদাঃ সাবেক বিরোধী দলীয় নেত্রী এবং বর্তমান বিএনপি চেয়ারম্যান ———————————————- প্রথম দৃশ্যঃ হাসিনাঃ জামায়াতকে ছেড়ে সমঝোতায় আসুন > খালেদার প্রতি হাসিনার আহবান খালেদাঃ জামায়াতকে ছাড়া যাবে না > হাসিনাকে খালেদার সোজাসাপ্টা উত্তর (( গ্যালারী থেকে বিদগ্ধ দর্শকের শীটি বাজিয়ে মন্তব্যঃ )) দর্শক…

বিস্তারিত পড়ুন... প্যাকেজ নাটকঃ ‘যাত্রা দেখে ফাতরা লোকে!’
Posted in Uncategorized

পোড়া মৃতদেহের রাজনীতি ও সময়ের গল্প

২৯ নভেম্বর শুক্রবার প্রভাতে শেষ হল বিএনপি-জামায়াত নেতৃত্বাধীন ১৮ দলের টানা ৭১ ঘণ্টার অবরোধ। এই অবরোধে লাভ-ক্ষতির হিসাব কে কীভাবে করবেন জানি না। তবে বিএনপি-জামায়াতের চাহিদা অনুযায়ী মৃতের মাথা গুনে যদি এর হিসেব করা হয়, তাহলে নির্দ্বিধায় বলা যায় যে, “স্বল্প সময়ে চাহিদা অনুযায়ী জামায়াত-বিএনপির ‘প্রাপ্তি’ বিশাল!’’

বিস্তারিত পড়ুন... পোড়া মৃতদেহের রাজনীতি ও সময়ের গল্প
Posted in Uncategorized

যুদ্ধাপরাধী দল জামায়াতকে রেখে গণতন্ত্রের চর্চা হয়না

দেশে একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের বিচার হচ্ছে বিশেষ আদালতে। অথচ যুদ্ধাপরাধী দল জামায়াত ইসলামের বিচার হবে না, বিষয় দুটো সম্পূর্ন স্ববিরোধী এবং হঠকারী। অনেকে প্রশ্ন করতে পারেন যে, একজন ব্যক্তির বিচার হতে পারে, তার ফাঁসি বা কারাদন্ডও হতে পারে; কিন্তু একটা দলের ক্ষেত্রে তা কিভাবে সম্ভব? এ প্রশ্নের জবাব দেয়া ছিল…

বিস্তারিত পড়ুন... যুদ্ধাপরাধী দল জামায়াতকে রেখে গণতন্ত্রের চর্চা হয়না
Posted in Uncategorized

আইনের প্যাঁচাল

৪৭(ক)(২) এ বলা হয়েছে, “এই সংবিধানে (১০৫ অনুচ্ছেদ) যাহা বলা হইয়াছে, তাহা সত্ত্বেও যে ব্যক্তির ক্ষেত্রে এই সংবিধানের ৪৭ অনুচ্ছেদের (৩) দফায় বর্ণিত কোনো আইন প্রযোজ্য হয়, এই সংবিধানের অধীন কোনো প্রতিকারের জন্য সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করিবার কোনো অধিকার সেই ব্যক্তির থাকবে না।”

বিস্তারিত পড়ুন... আইনের প্যাঁচাল
Posted in Uncategorized

“এক ঢাকা হেফা” না-কি “এক দেশ বাঙ্গালী”?

বালকটি যখন হাটহাজারী মাদ্রাসায় পড়াশুনা করতে আসে,তখন তার বয়স মাত্র ১০ বছর। সে সময় ছাত্ররা বৃত্তবানদের বাড়িতে লজিং থেকে পড়াশুনা করতো। বালক যে বাড়িতে লজিং থাকতো, সে বাড়ির মহিলারা প্রায়ই বিভিন্ন কাজে তার সামনে চলে আসতো, যা সে খুবই অপছন্দ করতো। একদিন সে বাড়ির মহিলাদের বলেই বসল যে, তার সামনে…

বিস্তারিত পড়ুন... “এক ঢাকা হেফা” না-কি “এক দেশ বাঙ্গালী”?
Posted in Uncategorized

‘আইনের আদালত’ আর ‘মানবতার অবতার- স্বাস্থ্যবিশেষজ্ঞ’ এক কথা নয়

রায়টি এসেছে মূলত একটি সাংবিধানিক আদালতের মাধ্যমে। আদালত এবং এর রায়কে স্বতস্ফূর্ত ভাবে স্বাগত জানানোর কোন কারন একাত্তরের ৩০ লক্ষ শহীদ পরিবারের নাই। আমারও নাই। আদালতের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েও বলা যায়, একাত্তরের ৩০ লক্ষ শহীদ পরিবার এই রায়ে “সংক্ষুব্ধ-আশাহত-হতভম্ব।” আমার ন্যায় বিচার পাইনি। আইনের প্রতি শ্রদ্ধা রেখেও প্রশ্ন করা যায়ঃ…

বিস্তারিত পড়ুন... ‘আইনের আদালত’ আর ‘মানবতার অবতার- স্বাস্থ্যবিশেষজ্ঞ’ এক কথা নয়
Posted in Uncategorized

পাপিয়া-প্রানীর ব্যাপারে কিছু কথা

একজন সারমেয় জাতের তৃতীয় শ্রেনীর অমানুষের মুখ থেকে সভ্য জাতীয় কিছু শোনার আশা যিনি করেন, শহীদ জননী জাহানারা ইমামের ভাষায় তাকে নির্দ্বিধায় “……মূর্খ অর্বাচীন বলা যাবে না- সে আসলে ধূর্ত শয়তান। শান্তিপ্রিয় মানুষের সে বিনাশ চায় আসলে।’’

বিস্তারিত পড়ুন... পাপিয়া-প্রানীর ব্যাপারে কিছু কথা
Posted in Uncategorized

‘গণআদালতের গণজাগরন আজ বিজয়ের দ্বারপ্রান্তে’

শহীদ জননী জাহানারা ইমাম মৃত্যুবরন করেছিলেন ১৯ বছর আগে, ২৬ জুন ১৯৯৪ সালে। দীর্ঘ ১৩টি বছর দূরারোগ্য কর্কট ব্যাধির বিরুদ্ধে যুদ্ধে হেরে গিয়েছিলেন তিনি ঠিকই, কিন্তু তাঁর সূচীত স্বাধীনতাবিরোধী মৌলবাদীদের বিরুদ্ধে আন্দোলনে তিনি হেরে যাননি। বরং স্বাধীনতা পরবর্তি বিশাল আন্দোলনগুলোর মধ্যে জননী জাহানারা ইমামের নেতৃত্বে সূচীত যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের দাবির আন্দোলনের…

বিস্তারিত পড়ুন... ‘গণআদালতের গণজাগরন আজ বিজয়ের দ্বারপ্রান্তে’