Posted in অধিকার মুক্তচিন্তা

যৌনতা! নারীর জন্য নয় ………

যৌনতা! যৌনতা পুরুষের জন্য দাম্ভিকতার বিষয়, নারীর জন্য লজ্জার।নারীর জন্য তার যৌনতা, কামনা প্রকাশ স্বাভাবিক বিষয় নয়। আমাদের সমাজে এখনও যৌনতায় নারীর অবস্থান নিষ্ক্রিয়। যৌনতার সকল রসটুকু পুরুষের দখলে।পুরুষ যতটুকু যৌনান্দ নারীকে দেয় শুধু সেটুকুই নারীর। নারী নিজের জন্য চিমটিখানিকও আদায় করেনা। আমাদের পুরুষেরা নিজেদের যৌন চাহিদায় বেশ সচেতন। তারা…

বিস্তারিত পড়ুন... যৌনতা! নারীর জন্য নয় ………
Posted in Uncategorized

ভেতরে এক বেশ্যার বাস……………

নারীর মধ্যে একটি বেশ্যা বাস করে, অর্থাৎ পতিতাজাতীয় স্বভাব।কিন্তু এই স্বভাবটি সত্যিই পতিতাজাতীয় কি? অর্থাৎ একটি নারী কোন ধরনের কর্মকান্ডে “বেশ্যা” উপাধি পাবার যোগ্য? একাধিক পুরুষ সংসর্বে? ভাবুন যদি একজন পুরুষ একাধিক নারীর সঙ্গে সম্পর্কে যায়? তবে লোকচক্ষে সে কতটা নিন্দনীয়?তার জন্য কোনো কোনো শব্দের জন্ম হয়েছে কি? হয়তো সেই…

বিস্তারিত পড়ুন... ভেতরে এক বেশ্যার বাস……………
Posted in Uncategorized

ধর্ষকের প্রেয়সী বলছি……….

আমি এক ধর্ষককে ভালোবেসেছি! আমি ধর্ষককের হাতে হৃদপিন্ড ধরিয়ে দিয়েছি। সে হৃদপিন্ডের রক্ত চুষে স্ফিত করেছে নিঃশ্বাস। আমি তবুও খোলা রেখেছি দেহ মন সব,সব! আমি এক লম্পটকে কাছে টেনেছি, যে রাতভর দ্বাদশী কিশোরীর দেহ খুবলে খেয়ছে। অনায়েসে আমার শাড়ীর আঁচলে মুখ মুছেছে। আমি বাহুযুগল উন্মুক্ত করে রেখেছি সব সময়। ধর্ষিতার…

বিস্তারিত পড়ুন... ধর্ষকের প্রেয়সী বলছি……….
Posted in Uncategorized

ধর্ষন! একটি প্রাচীন অপরাধ………(পঞ্চম পর্ব)

..পুরুষ ধর্ষন “ধর্ষন” নয় ধারনাটি আমাদের সমাজে বেশ ভালো জমে বসেছে।কারো ইচ্ছার বিরুদ্ধে স্থাপিত শারিরিক সম্পর্কই ধর্ষন।সুতরাং সুস্পষ্ট ভাবে একে ধর্ষন বলতে হবে।আসলে আমাদের মধ্যে একধরনের ধারনা সৃষ্টি হয়ে আছে যে, পুরুষ যে কোন ধরনের যৌনতা উপভোগ করতে পারে।কিন্তু সেটা পুরোপুরিই পুরুষের ওপর নির্ভর করে না কি?আমাদের সমাজের দৃষ্টিতে পুরুষ…

বিস্তারিত পড়ুন... ধর্ষন! একটি প্রাচীন অপরাধ………(পঞ্চম পর্ব)
Posted in Uncategorized

ধর্ষন! একটি প্রাচীন অপরাধ……(চতুর্থ পর্ব)

ধর্ষন এবং ধর্ষিতার সম্পর্ক সুপ্রাচীন।যে ব্যাক্তির সাথে “ধর্ষন” নামক অপরাধটি ঘটে সে ব্যাক্তিই ধর্ষিতা।সত্যিই? মোটেই না।ধর্ষন শুধু নারীর জন্যই প্রযোজ্য নয়,বরং পুরুষের জন্যেও।ব্যাকরনের ভাষায়, ” ধর্ষিতা” স্ত্রীলিঙ্গসূচক শব্দ।এই শব্দটির বিপরীত অর্থাৎ পুংলিঙ্গসূচক শব্দ কি? ধর্ষক? মোটেই না।তবে? এই তবের উত্তর আমার জানা নেই।তবে, এই শব্দের অপেক্ষায় “পুরুষ ধর্ষন” থেমে নেই।জ্বি!…

বিস্তারিত পড়ুন... ধর্ষন! একটি প্রাচীন অপরাধ……(চতুর্থ পর্ব)
Posted in Uncategorized

ধর্ষন! একটি প্রাচীন অপরাধ………(তৃতীয় পর্ব)

প্রায় বিশ বছর আগে, জাঙ্কো ফুরুটা নামক এক স্কুল বালিকা জাপানদেশে নৃশংসভাবে ধর্ষিত হয়েছিল।সে চুয়াল্লিশ দিন পর্যন্ত একদল বালক দ্বারা ধর্ষিত এবং ভয়নকভাবে ধর্ষিত হয়।একদল বালক তাকে একটি বাড়িতে আবদ্ধ করে চারশ এর অধিকবার ধর্ষিত হয়।তাকে নিজের বর্জ্য এবং তেলাপোকা থেকে জোর করা হয়।এমনকি, তার গোপনাঙ্গে লোহার রড, বাল্ব এবং…

বিস্তারিত পড়ুন... ধর্ষন! একটি প্রাচীন অপরাধ………(তৃতীয় পর্ব)
Posted in Uncategorized

ধর্ষন! একটি প্রাচীন অপরাধ…..(দ্বিতীয় পর্ব)

…..আমাদের এই সমাজে “ধর্ষন” একটি অশ্লীল শব্দ।ব্যাপারটি এমন যে, এ শব্দটি লোকসম্মুখে বলতে নেই।এটি ভদ্রতা নয়।কেউ যদি ধর্ষিত হয় তবে সে লোক সমাজে সে কথা বলতে দ্বিধা পায়।কি লজ্জা! কি লজ্জা! আমি ধর্ষিত হয়েছি!!।এই দ্বিধা এমন যেন, সেচ্ছায় হয়েছি।এই দ্বিধা, এই লজ্জাও সুপ্রাচীন।যুগের পর যুগ ধর্ষনের সহোদর হিসেবে বেড়ে উঠছে,অথচ…

বিস্তারিত পড়ুন... ধর্ষন! একটি প্রাচীন অপরাধ…..(দ্বিতীয় পর্ব)
Posted in Uncategorized

ধর্ষন! একটি প্রাচীন অপরাধ…..

ভদ্রভাষায় সঞ্জায়িত করলে বলতে হয়, কোনো নারীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে তার সাথে স্থাপিত শারিরিক সম্পর্কই ধর্ষন।তবে এটি পুরোপুরিভাবেই শারিরিক ধর্ষনের সজ্ঞা,মানসিক নয়।ধর্ষন পুরুষতান্ত্রিক সমাজব্যাবস্থার একটি কুফল।আপনি যদি একচেটিয়াভাবে একটি জাতিকে শাসনব্যাবস্থা ধরিয়ে দেন।তবে তাদের দ্বারা অনাচার সাধন হওয়া একটি সাধারন বিষয়।আমি কোনো রাষ্ট্র শাসনের কথা বলছি না, বারাক ওবামার পরোক্ষ শাসনের…

বিস্তারিত পড়ুন... ধর্ষন! একটি প্রাচীন অপরাধ…..
Posted in Uncategorized

যত ধর্ম নারীর জন্য (দ্বিতীয় পর্ব)

……..অথচ নারীর পোশাক নিয়ে সবাই পোশাক শিল্পী হতে উঠে পড়ে লাগে।নারীর পোশাক যদি তার যৌনপ্রবৃত্তির প্রতিফলন হয়ে থাকে।তবে,আমার প্রশ্ন পুরুষের পোশাক কি তার বিকৃত যৌনমানসিকতা দেখায় না? নাকি পুরুষদেহ সেই ঈশ্বর সৃষ্টি করেনি, যে নারী দেহ সৃষ্টি করেছে? পুরুষ কি তবে তার পোশাকের সাথে আপোশ করছে? নাকি বেশ্যাবৃত্তি করছে?না! পুরুষ…

বিস্তারিত পড়ুন... যত ধর্ম নারীর জন্য (দ্বিতীয় পর্ব)
Posted in Uncategorized

যত ধর্ম নারীর জন্য….

আমাদের সমাজে ধর্ম জিনিসটি স্পর্শকাতর হলেও, এই ধর্মই দুষিত হবার সবচাইতে বেশি প্রবনতা থাকে।ধর্ম হচ্ছে জীবনব্যাবস্থা যা জীবনকে সুশৃঙ্খল করে,অপরাধ হতে মানুষকে দুরে রাখে।কিন্তু,এই ধর্মেরই অপব্যাবহার তথাকথিত ধার্মিকরা নিজেদের অপকার্য সিদ্ধি করছে।আর এই ধর্মদুষনকারী অপধার্মিকদের ষড়যন্ত্রের শিকার হয় নারী।আমি সমাজনিয়ন্ত্রকদের কথা বলছি যারা মুখে প্রভুর জপ আর মনে কালো সাপ…

বিস্তারিত পড়ুন... যত ধর্ম নারীর জন্য….