পসেটিভ-নেগেটিভ

আজকাল পসেটিভ জিনিস গুলো হয়ে গেছে নেগেটিভ। আর নেগেটিভ গুলো পসেটিভ। বুঝতে পারছেন নাতো!!! একটা উদাহরণ দিলেই বুঝে যাবেন কি বলতে চাচ্ছি। তার আগে দরকার বিষয় দুটির সম্পর্কে জানা। একটা কথা বললে সবার মনে প্রথমেই যে ভাবনা আসে সেটাই পসেটিভ। আর যা বেশির ভাগ মানুষ কল্পনা করতে পারে না একটা কথা শুনে প্রথমে সেটা নেগেটিভ।

আজকাল পসেটিভ জিনিস গুলো হয়ে গেছে নেগেটিভ। আর নেগেটিভ গুলো পসেটিভ। বুঝতে পারছেন নাতো!!! একটা উদাহরণ দিলেই বুঝে যাবেন কি বলতে চাচ্ছি। তার আগে দরকার বিষয় দুটির সম্পর্কে জানা। একটা কথা বললে সবার মনে প্রথমেই যে ভাবনা আসে সেটাই পসেটিভ। আর যা বেশির ভাগ মানুষ কল্পনা করতে পারে না একটা কথা শুনে প্রথমে সেটা নেগেটিভ।
উদাহরণ- ধরেন আমি ২ মাস পর ফেসবুকে একটা স্ট্যাটাস দিলাম অনেক দিন পর আবার আমার সব থেকে প্রিয় মানুষটির সাথে দেখা হবে। খুব আনন্দ লাগতেছে। এখন সবাই যা মনে করবেন তা হল আমি আমার প্রেমিকার বিষয়ে বলছি। যেটা বর্তমানে পসেটিভ। কিন্তু আমি আমার মা’র কথাও তো বলতে পারি সেটা কেও কল্পনাও করবেন না। মা’র কথা এক্ষেত্রে ভাবাটা নেগেটিভ হল তাহলে।
কিন্তু এক সময় ছিল যখন এই উদাহরণ এর কথা বললে সবাই চোখ বন্ধ করে বলে দিত মা’র কথা। সেটাই সত্যিকারের পসেটিভ। আর প্রেমিকার কথা বলা নেগেটিভ। এ থেকেই বোঝা যাচ্ছে আমার মিনিং টা কি! আবার, আমি যদি সত্যি বলি এ কথা তবে আজকাল সবাই ভেবে তো নিবেই প্রেমিকার কথা। তারপর যদি আবার বলি আমি আমার মা’র বিষয়ে বলেছি…। য়ামার মা’ আমার সবথেকে প্রিয় মানুষ। আর আমার কোন প্রেমিকা নাই। এমনও ঘটনা অবাস্তব বা নেগেটিভ নয় যে ২-৪ জন বলে বসবে না সত্যি আপনি আপনার গার্ল ফ্রেন্ডের কথা বলছেন না। অনেকে বলবে মিথ্যা কথা, ভাই জারি মারেন কেন? কেওবা জানি জানি সব জানি কার সাথে দেখা হইব, হুম??? সবার যখন এক ধারনা এটাই এখন পসেটিভ। আমার কথা সবার কাছে অকল্পনীয়। যার ফলে এটা নেগেটিভ।আর আমার মতো করে ভাবাটা নেগেটিভ।
এমন উদাহরণ এখন সব ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য।
পরিশেষে বলা যায় যে, আজকাল পসেটিভ জিনিস গুলো হয়ে গেছে নেগেটিভ। আর নেগেটিভ গুলো পসেটিভ।

৮ thoughts on “পসেটিভ-নেগেটিভ

Leave a Reply to আকাশ Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *