মধ্যরাতে মার্কিন দূতাবাসে গোপন বৈঠক

সময় তখন রাত ১১টা ২০ মিনিট, পশ্চিমা একটি প্রভাবশালী দেশের দূতাবাসে একে একে ঢুকছে বাঙলাদেশের স্বাধীনতাবিরোধী দল জামায়াতে ইসলামী ও নব্য পেটিয়া দল হেফাজতে ইসলামীসহ দেশের অন্যতম বিরোধী দল বিএনপির শীর্ষ নেতারা। উক্ত দেশটির রাষ্ট্রদূত সেই সাথে আহ্ববান করেছেন মধ্যপ্রাচ্যের কয়েকটি দেশের রাষ্ট্রদূত এবং পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতকে। আহ্বানকারী রাষ্ট্রদূতের আমন্ত্রণে এই মধ্যরাতের ককটেল পার্টিতে উপস্থিত হন আমন্ত্রিত ব্যক্তিবর্গ। সবার একই উদ্দেশ্য জামায়াতে ইসলামী বিলুপ্ত হলে মওদুদীবাদের ধারক-বাহক এই দলের নেতাদের কি হবে! যেই ভাবা সেই কাজ। উক্ত দূতাবাসের নির্ভরযোগ্য ওই সূত্রটির দাবি মতে সেখানে প্রায় ১ ঘন্টাব্যাপী রুদ্ধদ্বার বৈঠক হয়।

উক্ত বৈঠকে উপস্থিত ছিলো হেফাজতে ইসলামীর নেতারা, ছিলো জামায়াতে ইসলামী ও বিএনপির একাধিক কেন্দ্রীয় নেতা। ওই সূত্রটি দাবি করে, উক্ত বৈঠকে আরো যে কয়েকটি দেশের কূটনৈতিকেরা উপস্থিত ছিলো তারা হলো, সৌদি রাষ্ট্রদূত, কাতারের রাষ্ট্রদূত, কুয়েতি রাষ্ট্রদূত ও পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত।

বৈঠকে যে যে বিষয়ে আলাপ হয় তার মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ ছিলো জামায়াতের বিলুপ্তির পর হেফাজতে ইসলামী কিভাবে রাজনীতির মাঠে অবস্থান করবে; কিভাবেই বা আন্তর্জাতিক লবি ঠিক করবে তারা। ঠিক এরই মাঝে হঠাৎ জামাতী এক নেতা বলে ওঠেন, ‘যে কেনো মূল্যেই হোক নাস্তিক ঠেকাতে হবে’। হঠাৎ তাদের কথার পর রেগে উঠেন কুয়েতি রাষ্ট্রদূত, তিনি উচ্চস্বরে চেচিয়ে বলেন, ‘এইসব কথা বাদ দিয়ে আগে আসেন কিভাবে জামাতকে বাঁচানো যায় তা নিয়ে আলোচনা করি।’ কুয়েতি রাষ্ট্রদূতের কথায় সায় দেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত।

নির্ভরযোগ্য ওই সূত্রটি আরো নিশ্চিত করেন, হেফাজতে ইসলামীকে ফান্ডিং করার যখন কথা উঠে তখন জামায়াতে ইসলামী নেতা ব্যারিস্ট্রার রাজ্জাক বলেন, ‘জামায়াতে ইসলামীর ফান্ডে যে পরিমান টাকা আছে তাতে আরো ২০ বছর পর্যন্ত হেফাজতে ইসলামীর কোনো সমস্যা হবে না; তবে এই মুহূর্তে দরকার বিদেশী সমর্থন। ব্যারিস্ট্রার রাজ্জাক আরো যোগ করেন, শাহবাগী নাস্তিকসহ সকল শাহবাগী ব্লগারদের গ্রেপ্তার করে শাস্তি না দিলে ভবিষ্যতে এই দেশে তাদের রাজনৈতিক অস্তিত্ব বিপন্ন হবার সম্ভাবনা আছে, তাই নাস্তিক শাহবাগী ব্লগারদের গ্রেপ্তার ও শাস্তি নিশ্চিত করার জন্য বিদেশী হস্তক্ষেপ দরকার। একাত্তরে সমূলে যদি নাস্তিকদের শেষ করে দেওয়া হতো তাহলে এমন পরিস্থির সৃষ্টি হতো না।’

ব্যারিস্ট্রার রাজ্জাকের কথা শেষ হতে না হতেই, পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘আমার দেশের পূর্ণ সমর্থন পেতে আরো দুদিন সময় লাগবে। কেনো না পাকিস্তানে জামায়াতে ইসলামীর অবস্থান নড়বড়ে, এবং সরকার বিরোধী মুভমেন্টে আছে পাকিস্তানী জামাতী নেতারা, তাই পাকিস্তানের সমর্থন নিয়ে একটু ভাবতে হবে। তবে এতটুকু বলতে পারি পাকিস্তানের সহযোগীতার পাওয়া সম্ভবনা বেশি।’

কাতারের রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘আমার দেশের তরফ থেকে রাবেতা আল ইসলামী’র সহযোগীতার পরিমাণ একটু বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য আমি কথা বলবো আমাতের পররাষ্ট্র দফতরে। তবে আমার দেশ আপনাদের সকল কাজের সাথে একমত।’

কুয়েতি রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘রাবেতা আল ইসলামী’র ভিতরে স্বচ্ছতা আনতে হবে। প্রতিষ্ঠানের টাকা এভাবে নেতাদের পকেটে গেলে শেষে আপনাদের অস্তিত্ব নিয়ে টান দেবে। কুয়েত যেভাবে অতীতে আপনাদের সাথে ছিলো সেভাবেই থাকবে।’

আমেরিকান রাষ্ট্রদূত তার বক্তব্যে উল্লেখ করেন, এই ক্ষেত্রে আমেরিকা বরাবরের মতোই সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিবে বন্ধুর মতো।

বৈঠকে উপস্থিত বিএনপি’র কয়েকজন নেতা কোনো মন্তব্য করেননি বলে জানান সূত্রটি।
বৈঠকে সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত হয় জামায়াতে ইসলামী বিলুপ্ত হলে তার স্থান ধরে রাখার জন্য উক্ত দেশগুলোর পূর্ণ সমর্থন থাকবে। এবং সেই সাথে দেশের অন্যান্য রাজনৈতিক দলগুলোর মতো হেফাজতে ইসলামীকেও নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত হওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। বৈঠকে আরো সিদ্ধান্ত হয় দেশের মিডিয়াগুলোর পিছনে ব্যয়ের পরিমাণ একটু বাড়িয়ে দিতে হবে। সে ক্ষেত্রে এই দ্বায়িত্বভার নেওয়ার জন্য বলা হয় বৈঠকে উপস্থিত দৈনিক আমার দেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমানকে।

উক্ত দ্বায়িত্বশীল সূত্রটি নিশ্চিত করেন, বৈঠকে উপস্থিত বিএনপি নেতাদের দেখা গেছে মনমরা অবস্থায়। তাদের আহ্ববান করা হলেও কোনো বক্তব্য তারা রাখেননি। তবে তারাও অন্যান্যদের সাথে সমর্থন প্রকাশ করেছেন।

১৬ thoughts on “মধ্যরাতে মার্কিন দূতাবাসে গোপন বৈঠক

  1. এই ছোট দেশটা কে নিয়ে আর কত
    এই ছোট দেশটা কে নিয়ে আর কত রাজনীতি চলবে .আমরা খালি রাজাকারদের হাতে মাইর খেয়ে গেলাম .মাচুদুর **** পোলারে কুত্তা দিয়ে **** মন চায় (সম্পাদিত).

    ————————————————-
    অশ্লীল শব্দের ব্যবহার অনুৎসাহিত করা হচ্ছে।
    -ইস্টিশন কর্তৃপক্ষ

  2. (No subject)
    :টাইমশ্যাষ: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মাথাঠুকি: :মানেকি:

  3. এইডা আর নতুন কি। মার্কিনিরা
    এইডা আর নতুন কি। মার্কিনিরা সবসময় এ দেসজের পুটু মারতে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয়।
    তবে বিষয়ডা খুবই চিন্তার :ভাবতেছি: :ভাবতেছি: :ভাবতেছি:

  4. আমাদের চিন্তার কিছু দেখছি না!
    আমাদের চিন্তার কিছু দেখছি না! কারণ আমরা ভয় পাইনা এসব ষড়যন্ত্রের। কিন্তু আমার বড়ই খারাপ লাগছে স্বঘোষিত মুক্তিযোদ্ধার দল বিএনপি’র জন্য। কারণ ঘটনা যদি সত্য হয় তা হলে, বিএনপি এখন জামাতের অংগ সংগঠন হয়ে গেছে। আর কিছুদিন পর জামাতীদের কাজ হয়ে গেলে বিএনপি’র মুক্তিযোদ্ধাদের বিরুদ্ধে বিচার শুরু করবে জামাত। তখন বিএনপি ফাটা বাঁশের মধ্যে পড়ে যাবে।

  5. ভাই যেভাবে বললেন তাতে তো পুরা
    ভাই যেভাবে বললেন তাতে তো পুরা এক্সক্লেমেতরি হই গেলাম।তবে বিশ্বাস করতে পারতেসি না। এত সাপর্ট ওদের থাকলে তো পুরা পুটু মারা :খাইছে: :খাইছে: :খাইছে:

  6. এভাবে আমাদের সামনে সত্য
    এভাবে আমাদের সামনে সত্য উন্মোচন করার জন্য প্রথমেই ধন্যবাদ জানাই সাইফুল ভাইয়াকে।

    এভাবে পরবর্তী সময়ে অনেক গোপন তথ্য আমাদের সামনে তুলে ধরার জন্য অনুরোধ করছি।যাই হোক চমৎকার লিখেন এটি না বললেও চলে !!

Leave a Reply to ডাঃ আতিক Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *