==============৷৷”গোত্রহীন কথামালা”৷৷==============

মুখবন্ধঃনারিন্দা মহল্লার এক প্রৌড় যে কিনা এক সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের মেধাবী ছাত্র ছিলেন; তার অস্বাভাবিক আর সমাজবিরোধী আচরণ বেশ কয়েক বছর ধরে সহ্য করার পর এলাকাবাসীর সহ্যের বাঁধ ভেঙে যায়।তারা ঠিক করে চাদা তুলে এই গৃহহীন আর পরিবারহীন মানুষটিকে পাবনায় পাঠাবে।এমন সময় মহল্লার পাগলের ডাক্তার বলে পরিচিত কিন্তু যে নিজেকে সাইকিয়াট্রিস্ট বলে দাবি করেন এমন এক জনৈক আজিজ সরকার একদিন ঘটনা তদন্তে যান এই কথিত পাগলের ডেরায়ঃখ্রিস্টান কবরস্থানে।সেই সময় আজিজ সরকার এই লোক আসলেই পাগল কিনা তা বুঝতে বেশ কিছু প্রশ্ন করেন। কিন্তু কোন প্রশ্নের জবাবই এই লোকের মুখ থেকে না পেয়ে যখন হতাশ আজিজ সরকার ফিরে যাবার উপক্রম করছিলেন ঠিক তখনি তার হাতে অই অদ্ভুত লোক এই কবিতা বা প্রলাপ বা অসুস্থ মস্তিষ্কের ফসল বা কিছু বাক্যের রাশি ধরিয়ে দেন।অতঃপর আজিজ সরকার তা আগ্রহ নিয়ে পড়েনঃ
—————————————————————————————————————
হইতাছে খুন?ছিনতাই-লাগালাগি হইতাছে?
হউক খুন;হউক সবাই ফকির;শহর ভরুক
নাটকির পো’তে। এহনি অবশ্য ভইরাই আছে।
খালি খেরেস্তান কবরস্থানের পাশে সুখটান
আর হইলদা লাইটের নিচে একা থাকতে দে।
এইহানে মরাগর লগে একা শুইয়া থাকলে
খুইজা বাইর করে কোন হালার পুত হ্যাডামে!

তোরা সব নাম লিখাইছোছ খিলজীগোর দলে;
খিলজী হালায় ঘোড়া নিয়া সারা শহর কাপায়
পিছনে থাকোস তোরা মাদারচোদ গোলামডি;
পারলে আয় না!এই কবরস্থানেতে আয় শালা!
হান্দামু ব্যাকেরে সাড়ে তিন হাত মাডির ভিতরে!

ক্যামন লাগে রে! দেয়ালে দেয়ালে আমার পোস্টার
ধরাইয়া দিতে কয়!ধরতে পারব খালি ধোন!
যেইহানে আমার অন্তরে চাকু মাইরা গেলো গা
অই মাগী এহনো স্নো মুখে দিয়া হাইসা বেড়ায়!
ফহিন্নির ঝি সালোয়ারের এতগুলা লাল রঙ
কার দিলে কোপ মাইরা লইছে-সবাই তো জানে ।

কিন্তু ঠোলারা তো ক্যান জানি নেয় না আমার কেস
থানায় ঢুকলে কি সব বালের ধারা কপচায়
মনে কয় সব ধারা উপধারা হোগায় হান্দাই
ঢাবি ল’এর ছাত্রের লগে আইন-জ্ঞান চোদায় !

আরেকটা ব্যাপার বুঝিনা!খিলজী লাগছে ক্যান
আমার পিছনে!হালারে কহনো আগে দেহি নাই
মাগার আমার পিরীত মরার পরদিন থিকা
কোনদিক থোন জানি হইল সে শহরে হাজির;
যহনি মাগীরে চাকু হাতে বোঝাপড়া দিতে যাই
কইন থেইকা বেবাক সৈন্যগো নিয়া উপস্থিত
বখতিয়ার খিলজী;হাতে সোলেমানি তরবারি
আইচ্ছা আমারে কি হালায় লক্ষণসেন ভাবছে?
চেহারা সুরতে কিছুতে আমারে আকাডা লাগে না
তয় কি মাগীর নতুন খদ্দের হইসে হালায়?
হইতেই পারে;দ্যাশটাই তো একটা মাগিপাড়া।

কয়দিন চলে দেহি!ওরে উল্ডা ছুড়ি হান্দাইয়া
মাগী অরি কোনো চামচার লগে ভাগব ঠিকই ;
কইসে ক্যাডা রে! —কইসে কবরে হোয়া এক পাদ্রী
কবরে যাইয়া কেউ মিথ্যা কয় না; লাভ কী কয়া!
—————————————————————–
পরিশিষ্টঃ

এতটুক পড়ার পর আজিজ সরকার নিশ্চিত হন এই লোক এক পাগল এবং এর পাগলামির কূল কিনারা না পেলেও এই পাগলের আশেপাশে থাকা যে নিরাপদ নয় এটা তিনি বুঝতে পেরে সোজা বাড়ির পথে হাটা শুরু করেন।এমন সময় তার দিকে এক কাগজের বল উড়িয়ে মারেন অই কথিত পাগল।ওটা তার গায়ে লাগলেও সেটা খুলে দেখার মানসিক সস্তি বা ইচ্ছা কোনটাই আজিজ সরকারের ছিল না বলে সেই কাগজে কী লেখা ছিল তা আর জানতে পারে নি এলাকাবাসি। শুধু জানতে পারছি আমি। কারন অই কথিত পাগল আর আমার মাঝে এক ধরনের understanding আছে।যাই হোক। সেই কাগজের লেখা নিচে দেয়া হইলঃ
—————————————————————————————————–
অই ফহিন্নির পুত!এহন তোর কী মনে হয়
ডাক্তারে পাগল বইলা পাঠাইব কি পাবনা?
মাগার মনের মধ্যে রাহিস আমারে ভালোমত
রাখবি আর কী!রাখোস তো;সবসময় রাখোস
স্যুটের ভিতর সুশীল সাজোস!!!—–নিমক-হারাম!!

৬ thoughts on “==============৷৷”গোত্রহীন কথামালা”৷৷==============

  1. শিরোনামের মত মুল কন্টেন্টেও
    শিরোনামের মত মুল কন্টেন্টেও শৈল্পিকতা আছে। কবিতাটা চেনা চেনা লাগছে। কার কণ্ঠে যেন আবৃত্তি শুনেছি! আপনি নিজে লিখলেও চমৎকার হইছে।

    1. আখতারুজ্জামান ইলিয়াস পুরান
      আখতারুজ্জামান ইলিয়াস পুরান ঢাকার মানুষের স্ল্যাংগুলারে শিল্পের পর্যায়ে নিয়া গেসিলেন বাংলা কথাসাহিত্যে। শামসুর রাহমান তার “মাতোয়াইলা রাত” কবিতায় পুরান ঢাকার ডায়ালেক্ট আর স্ল্যাং ব্যবহার করেছেন। কিন্তু এরপরে আর এইক্ষেত্রে কাজ করেন নাই।কবিতার পংতিতে এইসব শব্দ খুব কদাচিৎ ব্যবহৃত হইসে আর পুরান ঢাকার পাগলের শব্দ তো নাই-ই। আমি পুরানঢাকায় বড় হইসি।তাই আমার চেষ্টা ছিল এই এলাকার মানুষদের ভাষা,স্ল্যাং,দাঙ্গাবাজ মনোভাব কবিতাতে তুইলা আনতে। আমার মজা লাগছে এইটা কইরা।ভবিষ্যতে আরও কাজ করার ইচ্ছা আছে।

  2. পড়ে আরাম পেলুম।আমার প্রথমে
    পড়ে আরাম পেলুম।আমার প্রথমে ঢাকা এসে খুব ইচ্ছে হয়েছিল ঢাকার ভাষা শেখার আর তা পুরান ঢাকার মানুষের কাছ হতে? মাগার কেও আমায় শেখাই লো না তা।

    1. কি আর করবেন। যেই ভাষা আপনার
      কি আর করবেন। যেই ভাষা আপনার নেটিভ অইটা দিয়া কিছু সাহিত্য লেখেন। আপনে মনেও শান্তি পাইবেন আর আমরা যারা জানি না তারাও উপকৃত হব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *