আমার বাগানের তাজা মুলা..!! ঝুলিয়ে দিলাম..!!!

দুমিনিট সময় হবে..?? কিছু বলার ছিল…
অনেক দিন ধরেই বলতে চাচ্ছিলাম। কিন্তু ঠিক গুছিয়ে উঠতে পারিনি। বড্ড দেড়ি হয়ে যাচ্ছে। তাই ভাবলাম এলোপাথারীই বলে ফেলি। ইচ্ছে থাকলে গুছিয়ে নেবে হয়ত।

দেখ, আমি মানুষটা নেহায়াত খারাপ না।
অবাক হচ্ছ..?? ভাবছ এমন বিনয়ের সাথে সময় চেয়ে এখন আবোল-তাবল বলা শুরু করলাম কেন.!!
যাখুশি ভাবতে থাক, তবু বলতে হবে আমার।


দুমিনিট সময় হবে..?? কিছু বলার ছিল…
অনেক দিন ধরেই বলতে চাচ্ছিলাম। কিন্তু ঠিক গুছিয়ে উঠতে পারিনি। বড্ড দেড়ি হয়ে যাচ্ছে। তাই ভাবলাম এলোপাথারীই বলে ফেলি। ইচ্ছে থাকলে গুছিয়ে নেবে হয়ত।

দেখ, আমি মানুষটা নেহায়াত খারাপ না।
অবাক হচ্ছ..?? ভাবছ এমন বিনয়ের সাথে সময় চেয়ে এখন আবোল-তাবল বলা শুরু করলাম কেন.!!
যাখুশি ভাবতে থাক, তবু বলতে হবে আমার।

অকারনে মিথ্যা কথাও বলি না। মানুষ ঠকানো তো দূরে থাক। খুব যে একেবারে মজার মানুষ তা বলব না। তবে নিতান্ত বোরিংও না। হাসাতে না পারলেও হাসতে পারি প্রচুর। কারনে কিংবা অকারনে। তোমার ননসেন্স টাইপ কথাতেও হাসব। রেগে গেলে নাকি..?? মজা করছিলাম। বললাম না সার্কাস করে বেড়ানোর গুনটা আমার মধ্যে নেই। কিঞ্চিত বোকা-সোকা টাইপের। তবে শুনেছি সুন্দরীরা নাকি গবেট পছন্দ করে। তোমার ভাল না লাগলে বদলানোর চেষ্টা করে দেখব।
এখন নিশ্চই বুঝতে পারছ কি বলতে চাইছি ?? অবশ্য তুমি সম্ভবত প্রথমেই আঁচ করে নিয়েছ। মেয়েরা তো আগেভাগেই বুঝে ফেলে অনেক কিছু।

যাই হোক, রাজ-প্রাসাদে নিয়ে তুলব এমন আশ্বাস দেব না। তবে গাছ তলায় থাকতে হবে না। দুই রুমের একটা ছোট্ট বাসা থাকবে আমাদের। আর থাকবে বিশাল এক বারান্দা। দক্ষিনা বাতাসে ডাস্টবিনের দুর্গন্ধ থাকবে কি না গ্যারান্টি দিতে পারছি না। তবে শুক্ল-পক্ষের রাতে জোস্নার বান আসবে নিশ্চিত। ঢাকার বুকে এত বাড়ি! গলি-ঘুপচি ঘুরে ঠিক খুজে বের করে ফেলব এমন একট।দেখে নিও। আবার পাশে যখন মস্ত একটা দালান উঠে আকাশটা ঢেকে দিতে চাইবে, পালিয়ে যাব আমরা। অন্য কোনখানে, অন্য কোন এক খোলা বারান্দার আস্তানায়। ভাড়াটিয়াদের সুবিধাই তো এটা..! ভাবছ নিজের দারিদ্রের সাফাই গাচ্ছি..??!! হুমম.. অস্বীকার করব না।
তবে ভালবাসা তেল মাখা সিধেল চোরের মত। চোর ধরতে যেমন ছাই মেখে নিতে হয়, কাছের মানুষটার ভালবাসা ধরার জন্য জোস্না মেখে জড়িয়ে নিতে হয়। সেই স্বর্গে ঠিক তোমাদের ঐ গুনে গুনে লিফটের বোতাম চেপে পৌছানো যায় না।

আফসোস থাকবে হয়ত তোমার, দামি গাড়িতে চড়াতে পারব না। তবে অফিশ থেকে ফিরে বিকেল বেলা তোমাকে নিয়ে রিক্সা করে ঘুরতে বেরোব যখন, এক হাতে আলতো করে তোমার কোমরটা জড়িয়ে রাখব। রোদে দাড় করিয়ে রেখে ভাড়া নিয়ে অযথা হৈচৈও করব না। খেটে খাওয়া লোকটাকে না হয় দুটাকা বেশিই দিয়ে দেব।

প্রতিদিন চাইনিজে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হবে না। পর্কের নরম ঘাসের উপর বসে দুজন মিলে বাদাম চিবুতে চিবুতে কয়েক ঘন্টা না হয় আকাশটাই দেখব| উঠে পড়ার সময় টেনে তোলার জন্য হাতটা ঠিকই বাড়িয়ে দেব। তুমি বিরক্ত হবে কিছুটা। তবুও শাড়িতে লেগে থাকা শুকনো পাতা গুলো ঝেড়ে দেব।
ফেরার পথে যখন ঘর সাজানোর টুকিটাকি কিনতে চাইবে অযুহাত দেখিয়ে সরে পড়তে চাইব না। না হয় হাত খরচ কিছুটা কমিয়ে দেব সে মাসে। কদিন না হয় লোকাল বাসে ঝুলেই অফিশে যাব| তুমি টেরও পাবে না।

সন্ধ্যায় বাসায় ফিরে দুজন মিলে নতুন কোন রেসিপি রান্নার চেষ্টা করব। জানি পেঁয়াজ কাটতে কষ্ট হয় তোমার। চোখ জ্বলে। দুজন মিলে কিছুক্ষন কান্নাকাটি করে কেটে ফেলতে খুব একটা অসুবিধা হবে না।
ঘুমানোর সময় মশাড়ি টানানো নিয়েও খুব বেশি ঝগড়া করব না। সপ্তাহের চার দিন তুমি আর বাকি তিন দিন আমি করে দিব্যি চালিয়ে নিতে পারব।
নাক ডাকার অভ্যেস নেই আমার। ঘুমের মধ্যে আচমকা হাত পা ও তুলে দেই না। খুব বেশি অসুবিধা হবে না তোমার।
খুব মানিয়ে নিতে পারব আমরা। দেখে নিও…

২ thoughts on “আমার বাগানের তাজা মুলা..!! ঝুলিয়ে দিলাম..!!!

  1. ভুল কইরা পারচুনাল চিঠিটা
    ভুল কইরা পারচুনাল চিঠিটা এইখানে দিয়া ফালাইলেন নাকি?
    :কনফিউজড: :কনফিউজড: :কনফিউজড: :কনফিউজড: :কনফিউজড:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *