শোক দিবসে জন্মদিন উৎসব !

জয় বাংলা” বলতে যাদের এত অনীহা , তাদের তো নিজেদের পরিচয় দিতে গিয়ে “আমি বাংলাদেশি” বলতেও অনীহা থাকা উচিত ! কারণ “জয় বাংলা” যদি কেবলই বঙ্গবন্ধুর নিজস্ব সম্পত্তি হয়ে থাকে, তাইলে “বাংলাদেশ” টা ও তার একান্ত নিজস্ব সম্পত্তি !! কারণ এ দেশের নামকরণ টাও ত তিনিই করছিলেন !!
অবশ্য খালেদা জিয়ার মত পলিটিক্যাল প্রসটিটিউট যদি তখন ক্ষমতায় থাকত তাইলে হয়ত গোপাল গঞ্জের নাম বদলে দেয়ার হুমকিদাতা এই অ’ভদ্রমহিলা “বাংলাদেশ” নাম টা ও নগদে বদলে দিত !! ঠিক যেভাবে “জাতীয় শোক” দিবস টাকে জন্মদিন বানিয়ে “জাতীয় উৎসব” দিবস বানিয়ে ছেড়েছে ! জাতির সৌভাগ্য, এই মুর্খচোদা বকচুদ তখনো ক্ষমতার লাগামটা ধরতে পারে নাই !


জয় বাংলা” বলতে যাদের এত অনীহা , তাদের তো নিজেদের পরিচয় দিতে গিয়ে “আমি বাংলাদেশি” বলতেও অনীহা থাকা উচিত ! কারণ “জয় বাংলা” যদি কেবলই বঙ্গবন্ধুর নিজস্ব সম্পত্তি হয়ে থাকে, তাইলে “বাংলাদেশ” টা ও তার একান্ত নিজস্ব সম্পত্তি !! কারণ এ দেশের নামকরণ টাও ত তিনিই করছিলেন !!
অবশ্য খালেদা জিয়ার মত পলিটিক্যাল প্রসটিটিউট যদি তখন ক্ষমতায় থাকত তাইলে হয়ত গোপাল গঞ্জের নাম বদলে দেয়ার হুমকিদাতা এই অ’ভদ্রমহিলা “বাংলাদেশ” নাম টা ও নগদে বদলে দিত !! ঠিক যেভাবে “জাতীয় শোক” দিবস টাকে জন্মদিন বানিয়ে “জাতীয় উৎসব” দিবস বানিয়ে ছেড়েছে ! জাতির সৌভাগ্য, এই মুর্খচোদা বকচুদ তখনো ক্ষমতার লাগামটা ধরতে পারে নাই !

আজ যেভাবে বঙ্গবন্ধু হত্যার দিনটাকে কটাক্ষ করে এ অকৃতজ্ঞ মহিলা মহা ধুমধামে নিজের জন্মদিন পালন করেন, তাতে এটা পরিস্কার যে, মীর জাফরের উত্তরাধিকারী রা আজো বহাল তবিয়তেই এই বাংলা দাপিয়ে বেড়াচ্ছে !অথচ বঙ্গবন্ধু না থাকলে খালেদার ঠাই হত তার পেয়ারা প্রেমিক গাঙ্গুয়ার হেরেম খানায়, প্রধানমন্ত্রী হওয়া ত অনেক দুরের ব্যাপার ! এটা সর্ব্জনবিদিত যে, বঙ্গবন্ধুর ধমকে জিয়া তার স্ত্রী খালেদা কে আবার গ্রহন করতে একপ্রকার বাধ্য হইছিল ! সেই পিতার মত মানুষটার শাহাদাৎবার্ষিকীতে তিনি মজা লইতে ব্যাকুল ! অবশ্য যে মহিলা ক্ষমতার জন্য নিজের স্বামীর হত্যাকারীদের সাথে আতাত করেন, তার কাছ থেকে এরচেয়ে বেশি আর কিইবা আশা করা যায় !

তবে আমি নিশ্চিত, ইতিহাস শীঘ্রই শহস্রাব্দের সেরা বেঈমান হিসাবে খালেদার নাম টা মীরজাফরের আগেই উচ্চারণ করবে !! ইতিহাস কাউকে ক্ষমা করে না !

৩ thoughts on “শোক দিবসে জন্মদিন উৎসব !

  1. আহা আপ্নারা চেতেন কে ভাই,
    আহা আপ্নারা চেতেন কে ভাই, মুর্খচোদা বকচুদ এর কাজে লাফান কেন। আর কেন ই বা
    খালেদা জিয়ার মত পলিটিক্যাল প্রসটিটিউট এর কাজে বাধা দিতে চান। কেন এত চুল্কানি আপ্নাদের।
    কুকুর কতেছে কুকুরের কাজ —— তাতে লিগের কেন যে জলে তাই বুঝিনি না।

    1. ভাই এটা আমি লীগের
      ভাই এটা আমি লীগের কর্মী/সমর্থক হিসাবে বলি নাই , এটা সাধারণ পাব্লিকের দৃস্টিভঙ্গী থেকে বলছি । যদি স্বাধীনতার ঘোষক আর রাজাকারের তোষক সুমহান সামরিক স্বৈরশাসক শহীদ জিয়ার মৃত্যুর দিনে শেখ হাসিনা জন্মদিন পালন করতেন , তাইলে তার ও সমালোচনা করতাম । এখানে আওয়ামীলীগারদের জ্বলা বা না জ্বলার অবান্তর হিসাব নাই

  2. যুগে যুগে অকৃতজ্ঞরা কৃতজ্ঞতা
    যুগে যুগে অকৃতজ্ঞরা কৃতজ্ঞতা স্বীকার করার চেয়ে মাথায় উঠে মুতে দেয়াটাকেই জীবনের লক্ষ্য বানিয়ে ফেলেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *