শুদ্ধ হবার এখনই সময়।

যখন খুব বড় কোন আন্দোলন শুরু হয় তখন পরিবর্তনগুলো দ্রুত হয়।সাধারণ মানুষকেও তখন দ্রুত মানিয়ে নিতে হয়। বদলে যাওয়া রাস্তায় হাটতে হয়।
কিন্তু বাংলাদেশের আজকের সমাজের একটা বিশাল অংশকেই দেখা যাচ্ছে তারা নিজেদের মত আছে। তাদের কাছে তাদের ব্যক্তিগত বিষয়াদি ছাড়া ভাবার কিছুই নেই। ব্যক্তিগত জীবনের সুখ – স্বাচ্ছন্দ্য, দুঃখ গুলোই তাদের কাছে একমাত্র বিবেচ্য। পাশের আর দশজনের মাঝে কী হয়ে যাচ্ছে তা তারা নজরে নেই না ততক্ষণ পর্যন্ত, যতক্ষণ না সে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। সে খুব সহজ একটা জিনিস ভেবে দেখে না, আর দশজন আমারই মত। ওদের যে পরিণতি হচ্ছে তা আজ হোক বা কাল হোক আমাকেও বরণ করে নিতে হবে।
সত্যি কথা হল, এরাই দেশের সবথেকে বড় শত্রু। স্বাধীনতার পর থেকে এই জাতীয় পশুদের সংখ্যা আমাদের সমাজে খুব বেড়ে গেছে।



সে খুব সহজ একটা জিনিস
ভেবে দেখে না, আর দশজন আমারই মত। ওদের
যে পরিণতি হচ্ছে তা আজ হোক বা কাল হোক
আমাকেও বরণ করে নিতে হবে।
সত্যি কথা হল, এরাই দেশের সবথেকে বড় শত্রু।
স্বাধীনতার পর থেকে এই জাতীয় পশুদের
সংখ্যা আমাদের সমাজে খুব বেড়ে গেছে।
এদের কোন আদর্শ নেই ; আদর্শ কি জিনিস
তাও এদের বোধের অগম্য। এরা দেশ – বিদেশের
বিভিন্ন সাইট থেকে সুন্দর কাপড়ের ডিজাইন
বের করবে। এদের মস্তিষ্ক জুড়ে থাকবে অসংখ্য
দেশি – বিদেশী গানের লিরিকস্। ওরা দুই লাইন
লিখতে পারে না, অনেক জায়গা থেকে পছন্দের
কিছু লাইন কপি পেস্ট করে।

যখন খুব বড় কোন আন্দোলন শুরু হয় তখন পরিবর্তনগুলো দ্রুত হয়।সাধারণ মানুষকেও তখন দ্রুত মানিয়ে নিতে হয়। বদলে যাওয়া রাস্তায় হাটতে হয়।
কিন্তু বাংলাদেশের আজকের সমাজের একটা বিশাল অংশকেই দেখা যাচ্ছে তারা নিজেদের মত আছে। তাদের কাছে তাদের ব্যক্তিগত বিষয়াদি ছাড়া ভাবার কিছুই নেই। ব্যক্তিগত জীবনের সুখ – স্বাচ্ছন্দ্য, দুঃখ গুলোই তাদের কাছে একমাত্র বিবেচ্য। পাশের আর দশজনের মাঝে কী হয়ে যাচ্ছে তা তারা নজরে নেই না ততক্ষণ পর্যন্ত, যতক্ষণ না সে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। সে খুব সহজ একটা জিনিস ভেবে দেখে না, আর দশজন আমারই মত। ওদের যে পরিণতি হচ্ছে তা আজ হোক বা কাল হোক আমাকেও বরণ করে নিতে হবে।
সত্যি কথা হল, এরাই দেশের সবথেকে বড় শত্রু। স্বাধীনতার পর থেকে এই জাতীয় পশুদের সংখ্যা আমাদের সমাজে খুব বেড়ে গেছে।
এদের কোন আদর্শ নেই ; আদর্শ কি জিনিস তাও এদেরবোধের অগম্য। এরা দেশ – বিদেশের বিভিন্ন সাইটথেকে সুন্দর কাপড়ের ডিজাইন বের করবে। এদের মস্তিষ্ক জুড়ে থাকবে অসংখ্য দেশি – বিদেশী গানের লিরিকস্। ওরা দুই লাইন লিখতে পারে না, অনেক জায়গা থেকে পছন্দের কিছু লাইন কপি পেস্ট করে।
দেশের কথা এরা শুনতে চাই না। তেলে বেগুনে জ্বলে উঠে। কৈশোরে এদের জীবনের লক্ষ্য থাকে একটা প্রেম করা, পারলে সেটাকে শারীরিক সম্পর্কে নিয়ে যাওয়া। এরপর যে কোন ভাবে অনেক টাকা কামানো।
সারারাত যাত্রা দেখে এরা সকালে একটা হাদীস শুনিয়ে যাবে।
এদের খুব সাধারণ বৈশিষ্ট্য হল, রাজনীতিকে প্রবল ঘৃণা।
চাকরি নিতে ঘুষের টাকা এরাই সবার আগে বের করে। প্রমোশন কিংবা অন্য কোন কাজে রাজনীতিবিদদের এরাই টাকা দেবে জোর করে। একহাতে ওয়াইনের বোতল নিয়ে এরা আরেকহাতে মালাজপে।
ভাববার সময় বোধহয় তাদের দ্বারে উপস্থিত।
একটু ভাবেন আপনারা। একদম নিজের জন্য ভাবেন। দেশটা তো আপনার। এটার উন্নতি তো আপনারই উন্নতি। আপনাকে রাজনীতি সচেতন হতে হবে। রাজনীতি সচেতন হতে রাজনীতি করতে হয় না। নিজের অধিকার চিনে রাখুন। অধিকার আদায়ে রাজনীতি করুন।
নিজের আদর্শ ঠিক করুন। আদর্শ ছাড়া টিকতে পারবেন না। দেশের সাধারণ মানুষকে নিজের একটাঅংশ মনে করুন। মনে করুন আজ তারা যে ক্ষতির ভেতর যাচ্ছে তা আপনাকেও ভোগ করতে হতে পারে।
সত্যের পথে থাকেন। নিজ মতাদর্শে বেয়াড়া না থেকে সত্যকে মেনে নিতে চেষ্টা করেন।
সব কিছুর উপর একজন মানুষকে তার ‘ মানুষ ‘ পরিচয়ে জানার চেষ্টা করুন।
নিজে একটা ধর্মের অনুসারী বলে অন্যদের ছোট ভাবার অধিকার আপনার নেই। যেই ধর্ম পালন করছেন তার সমালোচনা শুনতে প্রস্তুত থাকেন। সমালোচনার জবাব খোঁজার চেষ্টা করেন। গলা কাটা সমাধান নয়। ভুল বুঝে এরকম সমালোচক আরো বাড়বে।।
নিজের মতকে গালির উর্ধ্বে রাখতে চান – তো অন্য মতকে গালি দিবেন না।
সেই মতকে খারাপ ভাবে বিশেষণ করে এমন কাউকে সমর্থন করবেন না।
সব কথার মূল কথা, ভাবনা শুরু করেন। জেগে উঠেন। এখনই সময়। নয়তো কখনোই নয়। নিজেকে নিয়ে ভাবুন। দেশকে নিয়ে ভাবুন। নিজেরই তো দেশ। দেশ নিয়ে ভাবা মানে নিজের জন্যই তো ভাবনা।

৬ thoughts on “শুদ্ধ হবার এখনই সময়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *