ধর্ষণঃ এ কোন নির্মমতা, নৃসংসতা!!!

বাংলাদেশের পূর্নিমা রানী শীল। অষ্টম শ্রেনীর ছাত্রী। মায়ের সামনেই ১০-১২ জনের এক দল পশু পালাক্রমে ধর্ষন করে তাকে। এত মানুষ দেখে পূর্নিমার মা বলছিলো ‘আমার মেয়েটা ছোট তোমরা একজন একজন করে আসো, মরে যাবে।’অসহায় বাবা দেখে মেয়ের ধর্ষন, মা আকুতি জানায়। ২০০১ সালের ঘটনা সেটা। আর ২০১৪ সালের ৮ জুন নীলফামারীর কিশোরীগঞ্জ উপজেলার চাঁদখানা ইউনিয়নের দক্ষিণ চাঁদখানা বড়বালা গ্রামের এক রিকশাভ্যান চালকের শারীরিক প্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষণ করে ছাবেদ আলী (৪৫) নামের এক বিবাহিত নরপশু।


বাংলাদেশের পূর্নিমা রানী শীল। অষ্টম শ্রেনীর ছাত্রী। মায়ের সামনেই ১০-১২ জনের এক দল পশু পালাক্রমে ধর্ষন করে তাকে। এত মানুষ দেখে পূর্নিমার মা বলছিলো ‘আমার মেয়েটা ছোট তোমরা একজন একজন করে আসো, মরে যাবে।’অসহায় বাবা দেখে মেয়ের ধর্ষন, মা আকুতি জানায়। ২০০১ সালের ঘটনা সেটা। আর ২০১৪ সালের ৮ জুন নীলফামারীর কিশোরীগঞ্জ উপজেলার চাঁদখানা ইউনিয়নের দক্ষিণ চাঁদখানা বড়বালা গ্রামের এক রিকশাভ্যান চালকের শারীরিক প্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষণ করে ছাবেদ আলী (৪৫) নামের এক বিবাহিত নরপশু।

এই লেখা যখন লিখছি, সারা বিশ্বের আনাচে কানাচে আরও কত মেয়ে যৌন নির্যাতনের শিকার হচ্ছে, ধর্ষিত হচ্ছে তার কত শতাংশ ঠাঁই পাচ্ছে খবরের কাগজে? অঙ্কের হিসাব নিকাশ করতে গেলে শতাংশের ঘর লজ্জা পাবে। আর বৈবাহিক ধর্ষণ? সেতো অপরাধই নয়।

২০১২ শেষে দিল্লির চলন্ত বাসে ঘটে যাওয়া গণধর্ষণকে কেন্দ্র করে প্রতিবাদে উত্তাল হয়েছিল সারা দেশ। সেই সময়েই দিল্লির স্কুল প্রিন্সিপালের লালসার শিকার হয় এক স্কুল ছাত্রী। বিহারে ট্রেন থেকে নামিয়ে গণধর্ষণের পর এক মহিলাকে খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয় গাছে। ত্রিপুরায় জনসমক্ষে গণধর্ষণের শিকার হন এক গৃহবধূ। সরকারী স্কুলে ৭ বছরের শিশু কন্যাকে ধর্ষিত হতে হয় শিক্ষকদের হাতে। মহারাষ্ট্রে তিন নাবালিকা বোনকে ধর্ষণের পর খুন করে ফেলে দেওয়া হয় কুয়োতে। কলকাতায় পরিতক্ত্য বাসে ধর্ষিত হন এক মানসিক ভারসাম্যহীন মহিলা।

ভারত, ৫ মেয়ে ও নাতনিকে লাগাতার ধর্ষণ করার অভিযোগে ৬৪ বছরের এক ব্যক্তি গ্রেফতার
ভরতপুরের বায়ান শহর থেকে ধর্ষক পিতা বাবুলাল ধাকার ও তাকে সমর্থন করার জন্য তার স্ত্রী শকুন্তলাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গত ২০ বছর ধরে নিজের ৫ মেয়েকে লাগাতার ধর্ষণ করার অভিযোগ রয়েছে বাবুলালের বিরুদ্ধে। রয়েছে ৩ বছরের নাতনিকে ধর্ষণের অভিযোগও। সোমবার বাবার বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন মেয়েরা। কীভাবে বাবা তাঁদের ওপর শারীরিক নির্যাতন চালাত তার বিস্তারিত বিবরণ তাঁরা দিয়েছেন অভিযোগে। তাঁদের মাও বরাবরই বাবাকেই সমর্থন করে এসেছে বলেও জানিয়েছেন মেয়েরা। অভিযোগ, বয়ঃসন্ধির সময় থেকে শুরু করে বিয়ের পরও তাঁদের বাবার বিকৃত কামের শিকার হতে হয়েছে। বিয়ের আগে দুই মেয়ে বাবার দ্বারা গর্ভবতীও হয়ে পড়েছিলেন। পরে গর্ভপাত করান তাঁরা।

আফগানিস্তান, ধর্ষিত হওয়ার শাস্তি জেল!
আফগানিস্তানে এখন আর তালেবান শাসন নেই। কিন্তু আফগানের নির্যাতিত মহিলাদের তাতে ফারাক কিছু এসেছে কি? পরিষ্কার উত্তর, না। দেশটিতে এমন মেয়েদের সংখ্যা যথেষ্টই বেশি, যাদের জোর করে বিয়ে দেয়া হয়েছে অথবা পতিতাবৃত্তিতে নামানো হয়েছে। কিংবা অন্যায়ের প্রতিবাদ করায় স্বামীর হাতে নির্মমভাবে অত্যাচারিত হতে হয়েছে। এমন ঘটনাও ঘটেছে, যেখানে জোর করে পতিতাবৃত্তিতে নামানোর পর লজ্জায়-ঘেন্নায় পালিয়েছেন সেই মহিলা বা আত্মহত্যা করেছেন। এমন ঘটনা একটি, দুইটি নয়, হাজার হাজার। আবার কেউ স্বামীর হাতে ক্রমাগত অত্যাচারিত হতে হতে ভয়ে ঘর ছেড়েছেন। তবে সেসব মহিলা ঘরে ফিরে এলে অবশ্যই জেলে যেতে হবে, এমনই বিধান রয়েছে আফগান আইনে।
কাবুলের ১৭ বছরের মেয়ে আমিনা এমনই এক উদাহরণ। জোর করে আমিনাকে পতিতাবৃত্তিতে নামায় তার স্বামী। এরপর লজ্জায় সে ঘর ছাড়ে। এর কয়েক মাস বাদে সে ঘরে ফিরে এলে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে জেলে পাঠায়।

মালয়েশিয়া, ৩৮ যুবক হাতে এক কিশোরী ধর্ষিত!!
মালয়েশিয়ার উত্তরাঞ্চলীয় কেলানতান প্রদেশে ১৫ বছরের এক কিশোরী গণধর্ষণের ঘটনায় ৩৮ জন জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া যায়। ১৫ বছর বয়সী ওই কিশোরী বাড়ি থেকে বের হয়ে রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাওয়া সময় তাকে একটি মাদক আখড়ায় নিয়ে গিয়ে ৩৮জন মিলে ধর্ষণ করে।
মালয়েশিয়া পুলিশের পরিসংখ্যান অনুযায়ী ২০১৩ সালে দেশটিতে ৩,০০০ ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। ধর্ষিতাদের ৫২ শতাংশই ১৬ বছর ও তার চেয়েও কম বয়সী।

পাকিস্তান, ৫১বছর বয়সী নারী ও তার ১৪ বছরের ছেলেকে ধর্ষনের পর খুন
রিয়াদের মানফোহা এলাকায় ৫১বছর বয়সী এক পাকিস্থানী নারীকে ধর্ষনের পর খুন করে সাথে তার ১৪বছরের ছেলেকেও ধর্ষন করে চার পাকিস্থানী।

যুক্তরাষ্ট্র, রোগীকে ধর্ষন করলো ওয়ার্ডবয়
অসুস্থ রোগীরা চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে যান সুস্থ হওয়ার আশায় কিন্তু হাসপাতালে যদি লুকিয়ে থাকে যোসহা সামওয়ে নামের নরপশু তাহলে নারীরা কোথায় নিরাপদ? যুক্তরাষ্ট্রের উটাহ রাজ্য যোসহা রাত্রীবেলা মহিলা রোগীর কেবিনে ঢুকে এবং মরফিন দিয়ে তাকে অজ্ঞান করে ধর্ষন করে।

২০১৩ সালে ভারতে, ১০৪ তম আন্তর্জাতিক নারী দিবসের ঠিক আগের দিন কেরালার কোজিকোড়ে একটি ৩ বছরের শিশু শিকার হল গণধর্ষণের। রাস্তায় শিশুটিকে পিঁপড়ে মোড়া অচৈতন্য অবস্থায় উদ্ধার করে কিছু স্কুলপড়ুয়া। মাকে ধর্ষণের অভিযোগে কেরালার কোট্টায়ামে সন্তান ২৫ বছরের এক যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ। সেনা জওয়ানের হাতে ধর্ষণ এবং নিগ্রহের প্রতিবাদে নগ্ন মিছিল করেছিলেন মণিপুরের সাহসীনীরা। কিন্তু সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সহ্যশক্তি এবং লজ্জার পরত জমতে থাকে প্রতিবাদের ভাষার উপরে। কিন্তু মানুষ যে এখনো নধরকান্তি মেষশাবক হয়ে যায়নি তা আরও একবার প্রমাণ করলেন নির্ভয়া। মৃত্যুর আগে নিজের মধ্যে জ্বলতে থাকা প্রতিবাদের আগুন সঞ্চারিত করেছিলেন আম জনতার মধ্যে। তোলপাড় হয়ে গিয়েছিল সারা দেশ। কিন্তু তাতে পৈশাচিকতায় কোনো ভাঁটা পড়েনি।

আর বাংলাদেশে কোথাও মা মেয়ে এক সঙ্গে, কোথাও মা মেয়ের সঙ্গে পুত্রবধু এবং পুত্রবধুর মাও ধর্ষণের শিকার হয়েছে, হচ্ছে। আবার কোথাও স্বামীকে বেঁধে তার ও সন্তানদের সামনে মাকে ধর্ষণ করেছে তারা। অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী থেকে ডিগ্রী পড়ুয়া ছাত্রী, পথশিশু থেকে গার্মেন্টস কর্মী কে হচ্ছে না ধর্ষনের শিকার। সংখ্যালঘু পরিবারের মেয়েদের তুলে নিয়ে মদ খেয়ে পালক্রমে ধর্ষণ করছে। ধর্ষিত হয় ৮ বছরের শিশুও। মা, মেয়ে, পুত্রবধূকে ধর্ষণ করা হয় এক সঙ্গে। ছেলের চেয়েও ছোট বয়সী সন্ত্রাসী কর্তৃক মায়ের বয়সী নারী ধর্ষিত হয়। রক্ষা পাচ্ছে না পঙ্গু, অন্ধ, প্রতিবন্ধী নারীরাও।

দেশ থেকে দেশে, সারা বিশ্বজুড়েই আক্রান্ত নারী, আক্রান্ত মানবতা। বাড়ছে ধর্ষন, বাড়ছে নির্মমতা, নৃসংসতা! বদল কী আসবে? নাকি ক্রমশ আরও বিপন্ন হয়ে উঠবে পৃথিবীর বুকে নারীর অস্তিত্ব। প্রশ্নটা এলোমেলো হয়ে ঘুরে বেড়ায়, উত্তর মেলেনা!!!

১৫ thoughts on “ধর্ষণঃ এ কোন নির্মমতা, নৃসংসতা!!!

  1. ধর্ষকদের একটাই শাস্তি হওয়া
    ধর্ষকদের একটাই শাস্তি হওয়া উচিত আর তা হলো, জনসমক্ষে পুরুষাঙ্গ কর্তন।

    1. কিন্তু সেই শাস্তিটা দেবে কে?
      কিন্তু সেই শাস্তিটা দেবে কে? পরিস্থিতি দেখে মনে হয় রাষত্র সমাজ ব্যাক্তি সিস্টেম সব ধর্ষকের পক্ষে

  2. আমরা এখন বেশি সুশিল হয়েগেছি
    আমরা এখন বেশি সুশিল হয়েগেছি তাই এসব খবর পরতে বা কাউকে বলতে লজ্জা লাগে অথবা সময় কোথায় । আমরা নিচে নামতে নামতে আর নিচে নামবার যায়গা নাই । যাই হোক দুয়েকটা ধর্ষক যদি সঠিক শাস্তি পায় তবে আশা করি বাকি পশুগুলো ভয় পাবে । এবং যথেষ্ট সচেতন ও শিক্ষার আলোকে প্রসারিত করতে হবে । এগিয়া যান কথা দিচ্ছি পাশে পাবেন ।

  3. যারা ধর্ষন করে তাদের কাছে
    যারা ধর্ষন করে তাদের কাছে ধর্ষন নির্মমতা না, জৈবিক চাহিদা। যে দেশে জৈবিক চাহিদা মেটানোর কোন ব্যবস্থা নেই, সেই দেশে ধর্ষন কমার কোন সম্ভবনাও নেই।

  4. নারীরা পর্দানশীল হয়ে চললে
    নারীরা পর্দানশীল হয়ে চললে সমাজ থেকে ধর্ষনের মত দুশ্চিন্তা এমনিতে দুর হয়ে যাবে। মেয়েরা যেখাবে বেহেয়ার মত চলাফেরা করে খুবই লজ্জাজনক। ধর্ষনের আবেদনময়ীতা কমে গেলে ধর্ষন আর থাকবে না।

      1. বুড়া বেটিগুলা রাম্তাঘাটে রঙঢং
        বুড়া বেটিগুলা রাম্তাঘাটে রঙঢং করে দেখে মাথা ঠিক থাকেনা। এজন্য দুই একটা ঘটনা ঘটে। মুল সমস্যা হচ্ছে মহিলাদের বেপর্দা চলা। ছবির হাটের রঙঢং অবশ্য বন্ধ হইছে। এখন রাস্তাঘাট আর সপিং মলের রঙঢং বন্ধ করতে হবে।

        আল্লাহ আপনাকে হেদায়েত দান করুক।

      1. এনজিও ব্যাপারী চেতলেন কেন?
        এনজিও ব্যাপারী চেতলেন কেন?

        নিয়মিত রোজা রাখুন। রমজান মাসে মাথা ঠান্ডা রাখতে হয়।

        1. এনজিও ব্যাপারী

          ভালো

          এনজিও ব্যাপারী

          :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে:

          ভালো নাম দেয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ মাটির ছেলে।

  5. ধর্ষকদের শাস্তি হওয়া উচিত
    ধর্ষকদের শাস্তি হওয়া উচিত লিঙ্গ কর্তন। তবে এটার জন্য আইন ও বিচার বিভাগের দিকে তাকায় থেকে লাভ নাই। প্রতিটি এলাকার সচেতন তরুণ যুব সমাজকেই এই দায়িত্ব নিজেদের হাতে তুলে নিতে হবে। এলাকার মানুষ সচেতন হলে অচিরেই এই রোগ নির্মূল হয়ে যাবে।

  6. মাটির ছেলে@ গত বছর ঢাকায় ইভা
    মাটির ছেলে@ গত বছর ঢাকায় ইভা নামে এক ডাক্তারকে ধর্ষণ করতে না পেরে হত্যা করেছিল ঐ হাসপাতালের এক কর্মচারী। ঐ ডাক্তার তো পর্দানশীল ছিলেন।তার মানে কি দাঁড়ালো?
    ডাক্তার ইভা বোরকা না পড়লেই ধর্ষণের চেষ্টা করা হত না থাকে।
    ফাউল কথা কম বলবেন। সবার মা/বোন/বউ/মেয়ে আছে। এমন কোন যুক্তি দেখাবেন না, যেখানে নিজেকে বিপদে পড়তে হয়।।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *