রেড সিগন্যাল

প্রিয় বন্ধু,
হঠাত সেদিন আমার ভাই বলে উঠল,’আরে তুই তো কালো হয়ে গেছিস। যা যা পার্লারে যা,ফেসিয়াল-টেসিয়াল করে আয়।’ ভাইয়ার কথাটা শুনে মনে হল,আমরা শুধু বাইরের দিকটাই দেখি। আমাদের পুরো খোলটাই দৃশ্যমান,এর ভিতরে কতটুকু তাজা আর কতটুকু পোকায় কাটা সেটা আমাদের আলোচ্য বিষয় না।
কালো হয়ে যাওয়ার চাইতে যা নিয়ে আমি বেশি শঙ্কিত,সেটা হল আমার হারিয়ে যাওয়া।প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে আয়নার সামনে না দাড়ালেও আমি টের পায়,আমার বয়স বেড়ে যাচ্ছে ১০ বছর করে। এই মুহূর্তে আমার বয়স ৭০।

প্রিয় বন্ধু,
হঠাত সেদিন আমার ভাই বলে উঠল,’আরে তুই তো কালো হয়ে গেছিস। যা যা পার্লারে যা,ফেসিয়াল-টেসিয়াল করে আয়।’ ভাইয়ার কথাটা শুনে মনে হল,আমরা শুধু বাইরের দিকটাই দেখি। আমাদের পুরো খোলটাই দৃশ্যমান,এর ভিতরে কতটুকু তাজা আর কতটুকু পোকায় কাটা সেটা আমাদের আলোচ্য বিষয় না।
কালো হয়ে যাওয়ার চাইতে যা নিয়ে আমি বেশি শঙ্কিত,সেটা হল আমার হারিয়ে যাওয়া।প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে আয়নার সামনে না দাড়ালেও আমি টের পায়,আমার বয়স বেড়ে যাচ্ছে ১০ বছর করে। এই মুহূর্তে আমার বয়স ৭০।
“আমি এখন অবসর প্রাপ্ত একজন কেরানি।ভেবেছিলাম প্রতিদিনের ঘানি টানার এই জীবন শেষে যখন মুক্ত হব তখন আমার আনন্দের কমতি থাকবেনা। কিন্তু চাওয়া আর পাওয়ার ব্যবধান বিস্তর।এখন আমার সকাল থেকে রাত কাটে টিভির সামনে বসে।নিশ্চিত জীবনের আশায় বেছে নিয়ে ছিলাম এই কেরানির চাকরি।আমারো তো ইচ্ছা ছিল,স্বপ্ন ছিল।কিন্তু রিস্ক নেবার ভয়ে আমি সরে এসেছিলাম।তুই সবসময় বলতি,’বাদ দে মানুষের কথা।যে যা ইচ্ছা বলুক,তুই তোর স্বপ্নের হাত ছাড়িস না।এই মধ্যবিত্ত শ্রেণীর উপর তোর ক্ষোভ কম ছিল না।তুই রাগে চেচিয়ে বলতি,এরা জানে কোনমতে বেচে থাকতে।এরা তেলাপোকার চেয়েও অধম।’
আমিও তোর কথায় সায় দিতাম।কিন্তু অই যে মধ্যবিত্ত মন আমার,ঝুকি নিতে চাইতো না।আমি চলে এলাম নিশ্চিত জীবনযাত্রায়।এই জীবন নিশ্চিত কিন্তু প্রবহমান নয়।তারপর সংসার হল,কিন্তু প্রেম হল না।যা হল তার নাম মায়া।সেই মায়ার বাধনে ঢিল পড়তে লাগলো যখন এলো পরবর্তী প্রজন্মরা।
একসময় তারাও বেড়ে উঠলো,আমাদের মতই করতে চাইলো নতুন কিছু।করতে দিলাম না,ভয়ে।
বলতে পারিস আমাদের এই ভয় কাটবে কবে?কতদিন আমরা ঝুকি নেয়ার ভয়ে পিছিয়ে থাকব?প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম আর কতদিন ধরে মধ্যবিত্ত মানসিকতা লালন করবে?
এখন আমার অখন্ড অবসর।ভাবনার জন্য অফুরন্ত সময়।পেনশনের টাকায় কেটে যাচ্ছে আমার জংধরা সময়।”
আমি ভালো থাকতে পারছি না।প্রতিদিন এই অবসরপ্রাপ্ত কেরানির কথাগুলো আমি শুনতে পায়।ঘুমের মাঝে আমি দেখতে পায় এই ৭০বছরের লোকটির হতাশ জীবন।
এটা কি কোন ধরনের সতর্কতা?আমার ঘুরে দাড়ানোর সময় কি এখন?
রোদেলা।

৫ thoughts on “রেড সিগন্যাল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *