রাজাদের বিদায়। শেষ হলো ছয় বছরের রাজত্ব!!!!

ঠিক ২০০২ এর কথা মনে পড়ে গেলো। ৯৮ এর চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স বাদ পড়ে গেলো গ্রুপ পর্ব থেকেই। আবার ২০১০ বিস্বকাপেও ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ইতালি বাদ পড়ে গ্রুপ পর্ব থেকেই। একই ঘটনারেই যেন পুনরাবৃত্তি হলো এবারের বিশ্বকাপে। কেবল পার্থক্য দলটি স্পেন।
১৯২০ সালের ২৮ আগস্ট ডেনমার্কের বিরুদ্ধে খেলার মাধ্যমে শুরু হয় ম্পেনে ফুটবল যাত্রা। কিন্তু প্রায় শত বছরের মধ্যে স্পেন তার সবচেয়ে সেরা সাফল্য পেতে শুরু করে ২০০৮ সাল থেকে।


ঠিক ২০০২ এর কথা মনে পড়ে গেলো। ৯৮ এর চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স বাদ পড়ে গেলো গ্রুপ পর্ব থেকেই। আবার ২০১০ বিস্বকাপেও ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ইতালি বাদ পড়ে গ্রুপ পর্ব থেকেই। একই ঘটনারেই যেন পুনরাবৃত্তি হলো এবারের বিশ্বকাপে। কেবল পার্থক্য দলটি স্পেন।
১৯২০ সালের ২৮ আগস্ট ডেনমার্কের বিরুদ্ধে খেলার মাধ্যমে শুরু হয় ম্পেনে ফুটবল যাত্রা। কিন্তু প্রায় শত বছরের মধ্যে স্পেন তার সবচেয়ে সেরা সাফল্য পেতে শুরু করে ২০০৮ সাল থেকে।

২০০৮ এর জুলাই মাসে সর্বপ্রথম স্পেন ফিফা র্যাংকিং এর প্রথম স্থানে উঠে আসে। সেই থেকে শুরু। টানা ৬ বছর বিশ্ব শাসন। সাফল্য পেয়েছে প্রায় প্রতিটি টুর্নামেন্টে। জিতেছে বিশ্বকাপ (২০১০), ইউরো (২০০৮, ২০১২) এবং ফেডারেশন কাপে সর্বপ্রথম অংশগ্রহণ করে ও তৃতীয় স্থান অধিকার করে। বিশ্বকে দেখিয়েছে সুন্দরতম খেলার উদাহরণ।

কিন্তু সব কিছুরই শেষ থাকে। তা না হলে হট ফেবারিট হওয়া সত্ত্বেও কোটি ভক্তে চোখ ভিজিয়ে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিলো স্পেন।

তবে এখানেও একটা মজার ব্যাপার আছে। গত বিশ্বকাপে স্পেন পুরো বিশ্বকাপ জিতে মাত্র ৭ গোলের ব্যবধানে। আবার এই বিশ্বকাপও তারা মোট ৭ গোল হজম করেই বিদায় নিলো বিশ্ব আসর থেকে।

যাই হোক, এটা বিশ্বকাপ। কোন কিছুই আগে থেকে ধারণা করা যায় না। দেখা যাক এবার অন্যান্য হট ফেবারিটরা কি করে।

৫ thoughts on “রাজাদের বিদায়। শেষ হলো ছয় বছরের রাজত্ব!!!!

  1. স্পেন তো তাও ৬ বছর রাজত্ব
    স্পেন তো তাও ৬ বছর রাজত্ব করেছে; ১ নম্বর দল থেকেছে টানা ৬ বছর! অন্য কেউ আগে সেইটা কইরা দেখা তো!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *