বৃষ্টি পড়ে

বৃষ্টি পড়ে,
বৃষ্টি পড়ে কৃষ্ণচূড়া গাছের উপর
উজ্জল লাল রং,
আর তার থেকেও উজ্জল তার স্পষ্ট দাড়িয়ে থাকা।
গভীর আগ্রহে, সাহসী বর্বরদের মত
পাতায় পাতায় ঝাপিয়ে পড়ে নগ্ন বৃষ্টির ফোটা
রং সব গড়িয়ে গড়িয়ে,
ভাসিয়ে ডুবিয়ে সমস্ত রাজপথ



বৃষ্টি পড়ে,
বৃষ্টি পড়ে কৃষ্ণচূড়া গাছের উপর
উজ্জল লাল রং,
আর তার থেকেও উজ্জল তার স্পষ্ট দাড়িয়ে থাকা।
গভীর আগ্রহে, সাহসী বর্বরদের মত
পাতায় পাতায় ঝাপিয়ে পড়ে নগ্ন বৃষ্টির ফোটা
রং সব গড়িয়ে গড়িয়ে,
ভাসিয়ে ডুবিয়ে সমস্ত রাজপথ
ভুল নদীতে পড়ে।
পাতাগুলো ঝড়ে পড়া বিষন্ন পাখির পালক,
ফুটপাত আর রাস্তা জুড়ে অনেক জাতহীন পাখির পালক,
একাকী কৃষ্ণচূড়া,
একাকী কৃষ্ণচূড়া,
বৃষ্টি পড়া সন্ধ্যার, ঘোরে লাগা মানুষগুলো
তোমার কান্ডে কান্ডে,
মূলে মূলে জমা হয়।
মানুষ,মানুষ,মানুষ
সারি সারি মানুষ-তোমার ভেংগে পড়ার অপেক্ষায়
শেষ বৃক্ষের শাখা প্রশাখায়
অস্তিত্বের সংকট কুড়ায়।
তবু কে করতে পারে অনিবার্য সংকটকে অসম্ভব
শৈল্পিক সৌন্দর্যে শিল্পের মৃত্যু হয়
নরকের কীটদের ঘর বাড়ি ভেংগে হয় ধ্বংসস্তূপ
ধ্বংস হতে দাও
মৃত হতে দাও
কৃষ্ণচূড়া তোমার জায়গা ছেড়ে দাও
বৃষ্টি পড়ে
বৃষ্টি পড়ে
এই সূবর্ণ সময়ে পৃথিবীকে ছাড় দাও
নক্ষত্রদেরও মৃত্যু হয়,
বসে আছি সূূর্যের কখন হবে মৃত্যু সময়
ঈশ্বর দেখবে নাকি কেমন লাগে মানুষের পাশে দাড়িয়ে ভিজতে,
মানুষের মৃত্যু হোক
মানবিক চেতনার মৃত্যু হোক
উজ্জল শাখা প্রশাখার মৃত্যু হোক
মৃত হোক এই রাজপথ, এই শহর,এই সভ্যতা
এসো
তুমি আমি তাকিয়ে দেখি বৃষ্টি
বৃষ্টি পড়ে,
বৃষ্টি পড়ে,পড়ে অনন্ত বৎসর।

৪ thoughts on “বৃষ্টি পড়ে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *