আগ্রহরা আর কোনো কিছুতে আগ্রহ বোধ করেনা…

দিন দিন ক্যামন করেই য্যানো আমার সিলিং ফ্যানটার মত হয়ে যাচ্ছি… পাখা ঘুরে আর কিরকির শব্দ হয়, বাতাসের নাম গন্ধও নেই। আজকাল শুধুই ঘুরি নিজের ভীতর। এ ঘুরার য্যানো অন্ত নেই। ফুরোয় না আমার বিচরণ, অজানায়… ডুবে থাকি নিজের মত করে।

রাত ১১টা। রেল লাইন। সোডিয়াম লাইট। হালকা বৃষ্টিতে চিক চিক করছে অনেক কিছুই। ঠিক কী কী বস্তু চিক চিক করছে আলোর সংমিশ্রণে মাথায় কাজ করছেনা। রেল স্টেশনে থেমে থাকা একটা ট্রেনের লাইট জ্বলছে। খুব সম্ভব এখানে প্যাসেঞ্জার উঠা নামা হবে। জং ধরা গোটা কয়েক রেলের বগি নিথর ভাবেই পড়ে আছে। পাশেই রেল লাইনের কিছু টুকরো লেপ্টে পড়ে আছে মাটি আর ঘাসে। গাজার ধুয়ার গন্ধ নাকে আসছে। ৯/১০ বছরের এক বিরাট শিশুর আঙ্গুলের চিপায় দেখা গেলো। কিছু শ্যাম রমণী ঘুর ঘুর করছে বগির আশে পাশে।



দিন দিন ক্যামন করেই য্যানো আমার সিলিং ফ্যানটার মত হয়ে যাচ্ছি… পাখা ঘুরে আর কিরকির শব্দ হয়, বাতাসের নাম গন্ধও নেই। আজকাল শুধুই ঘুরি নিজের ভীতর। এ ঘুরার য্যানো অন্ত নেই। ফুরোয় না আমার বিচরণ, অজানায়… ডুবে থাকি নিজের মত করে।

রাত ১১টা। রেল লাইন। সোডিয়াম লাইট। হালকা বৃষ্টিতে চিক চিক করছে অনেক কিছুই। ঠিক কী কী বস্তু চিক চিক করছে আলোর সংমিশ্রণে মাথায় কাজ করছেনা। রেল স্টেশনে থেমে থাকা একটা ট্রেনের লাইট জ্বলছে। খুব সম্ভব এখানে প্যাসেঞ্জার উঠা নামা হবে। জং ধরা গোটা কয়েক রেলের বগি নিথর ভাবেই পড়ে আছে। পাশেই রেল লাইনের কিছু টুকরো লেপ্টে পড়ে আছে মাটি আর ঘাসে। গাজার ধুয়ার গন্ধ নাকে আসছে। ৯/১০ বছরের এক বিরাট শিশুর আঙ্গুলের চিপায় দেখা গেলো। কিছু শ্যাম রমণী ঘুর ঘুর করছে বগির আশে পাশে।

আগ্রহ নেই। কোনো কিছুতেই। রেল লাইনের এই জায়গাটা আমার বেশ পছন্দের। সারা দিন রাত এখানে কেউ ঘুমোয় নাহ। তারা জেগে থাকে, কেউ চা-বিড়ি, কেউ পানি-জুস, কেউ চিপস, কেউ কান পরিস্কার করে আবার কেউ সরকারী পোষাক গায়ে দিয়ে হাটতে হাটতে ঝিমোয়। কেউ লাগবে কী-না জিজ্ঞেস করে, কিছুক্ষন পরপরই। ভুলে কিংবা ইচ্ছায়। আগের মত এখন আর রহস্য খুঁজে পাইনা।

চা দোকানে গান বাজছে,-“মদ খেয়েছি মাতাল হয়েছি, সরে দাড়া তোরা যত মাওলানা… গন্ধ লাগিলে মন্দ হবি, ইবাদতি তোর আর হবেনা”। দাঁড়িয়ে গানটা শোনার আগ্রহও নেই। গানটা মুখস্ত করা… পরের লাইনগুলো জানি, তাই হয়তো আগ্রহ নেই। নচেৎ আগ্রহ থাকার কথা ছিলো। দিন দিন কি আগ্রহ মরে যাচ্ছে কী-না কে জানে?। আজকাল বিরাট মাপের সুন্দরীর হাসি দেখেও পুলকিত হইনা। ক্যামন য্যানো বন্য বন্য টাইপ।

এতো অনাগ্রহের ভীরেও মাঝে মাঝে আৎকে উঠি, শিউরে উঠি, আহ্লাদিত হই,ভীত হই… পশু হই, মানুষ হই, অবাক হই…!!!

১৮ thoughts on “আগ্রহরা আর কোনো কিছুতে আগ্রহ বোধ করেনা…

  1. বাহ দারুণ লাগলো লেখাটা। আপনার
    বাহ দারুণ লাগলো লেখাটা। আপনার লেখার স্টাইল চমৎকার। ইস্টিশনের প্ল্যাটফর্মে আপনারে স্বাগতম। 😀

  2. পুরানো লেখার, পুরানো ব্লগারের
    পুরানো লেখার, পুরানো ব্লগারের স্বাদ পাচ্ছি আপনার লিখায়। ইস্টিশনে স্বাগতম। :গোলাপ:

      1. দুনিয়াটা বড়ই বিচিত্র। আর
        দুনিয়াটা বড়ই বিচিত্র। আর পৃথিবীটা আসলেই গোলাকার! (বড়ই উদাস লাগছে)
        আপনার মত-আগ্রহরা আর কোনো কিছুতে আগ্রহ বোধ করেনা…

  3. এতো অনাগ্রহের ভীরেও মাঝে মাঝে
    এতো অনাগ্রহের ভীরেও মাঝে মাঝে আৎকে উঠি, শিউরে উঠি, আহ্লাদিত হই,ভীত হই… পশু হই, মানুষ হই, অবাক হই…!!!————–
    অবাক হবারই কথা, অবাক না হলেই তা যে ব্যতিক্রম হবে না। আর ব্যতিক্রম লাইফের জন্য হানি কর।

    :গোলাপ:

  4. আশাকরি আমি যে অতিথি পাখির
    আশাকরি আমি যে অতিথি পাখির লেখা পড়ার জন্য ব্লগের স্বর্ণযুগে উন্মুখ হয়ে থাকতাম, আপনি সেই অতিথিপাখি। সেই অনেকদিন পর আপনার লেখা পড়লাম। আর হ্যাঁ, ইস্টিশনে আপনাকে দেখে খুবই ভাল লাগছে। ইস্টিশনে আপনাকে স্বাগতম। আপনার লেখা মজার মজার ব্যক্তিগত কাব্যকথা পড়ার জন্য আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষা করব।

    হ্যাপি ব্লগিং! 😀

    1. পরিচিত মানুষজন পেলে ভালোই
      পরিচিত মানুষজন পেলে ভালোই লাগে… আড্ডা দেয়া যাবে। ভালো থাকবেন।

  5. আমি এই লেখকের লেখার আদি কালের
    আমি এই লেখকের লেখার আদি কালের ভক্ত।
    পাখি ভাই নিয়মিত লিখবেন বলে আশা করি।তার নিকট অবশ্য দাবিও করা যায়।
    আপ্নার উদাস উদাস লেখা ভালু পায় 🙂
    আফসুস! সেইসব দিন মনে পড়ে গেল….
    (নক্ষত্র)

    1. কারিগর সাহেব @ মাঝে মাঝে
      কারিগর সাহেব @ মাঝে মাঝে অনিচ্ছা সত্বেও কিছু কিছু মানুষের অনেক কিছুই করতে হয়। আমিও তাঁর ব্যাতিক্রম নই। আপনার মত করে কেউ কেউ লেখা লেখি আমার উপর চাপিয়ে দিচ্ছে ইদানিং। লেখা লেখি আসেনা আর। ক্যামন য্যানো নিজেকে খুব গোটানো মনে হয় আজকাল। ধুয়াও আর ধোয়াসে করেনা আমাকে… মনে হচ্ছে হারাচ্ছি কোথাও… মিশে যাচ্ছি কোথাও…

  6. বহুদিন পর সেই পুরনো ফ্লেভার।
    বহুদিন পর সেই পুরনো ফ্লেভার। এই লোকের স্বভাব চরিত তার আইডির মতো। এই আছে, এই নাই….

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *