ছবি যেন শুধু ছবি নয়

একটি ছবি একটি মুহূর্ত থেকে একটি কালের সাক্ষী হয়ে ওঠে।
ছবির মাধ্যমে ফুটে ওঠে ইতিহাস, ছবি কথা কয় বিমূর্ত হয়ে।

ছবির মাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত হয় সত্যের জয়গান, ছবির মাধ্যমে ফুটে ওঠে মানবিক চরিত্র।
হাজার বছরের অজানা ইতিহাস এক মুহূর্তে স্পষ্ট হয়ে ওঠে ক্ষয়ে যাওয়া এক অস্পষ্ট শিলা ছবিতে।
তাই, ছবি যেন শুধু ছবি নয়!

এ রকম একটি ছবি কালের সাক্ষী হয়ে থাক, এই প্রচেষ্টা!

৪০ thoughts on “ছবি যেন শুধু ছবি নয়

    1. দ্যাকচি, দ্যাকচি তো!
      তয় এক

      দ্যাকচি, দ্যাকচি তো!

      তয় এক খান কতা, ঐ রশুন গুলার মইদ্ধে কি বাম রশুন দু একটা নাই?

        1. আপ্নে দ্যাক্চি চরম আম্লীগ
          আপ্নে দ্যাক্চি চরম আম্লীগ বিদ্বেষী দুলাল ভাই!
          খালি লীগ বিদ্বেষী হৈলে হৈব?
          জামাত বিম্পি বিদ্বেষী কিডা হৈব?
          জবাব চাই জবাব চাই নৈলে ইস্টিশনে হর্তাল ডাক্মু

          1. সত্যিকার অর্থে আমি কোন
            সত্যিকার অর্থে আমি কোন রাজনৈতিক দলের সাথে জড়িত না। আমার অতীত ইতিহাস ঘাটলেই বুঝতে পারবেন। জামাত-বিম্পি ইস্যুতে কখনো আপোষ করেনি, করবো না। আর আওয়ামীলীগের সমালোচনা করা মানে বিম্পি-জামাতের পক্ষাবলম্বন করা যারা মনে করেন, তাদেরকে আমি দলকানা বলি। সরি টু সে, আমি দরকানা হতে পারব না। যখন লোটাস কামাল বলে ইসলামী ব্যাংক না থাকলে সে পথের ফকির থাকত, এই বক্তব্যকে আমি আওয়ামীলীগের দলীয় বক্তব্য হিসাবেই দেখব। কারণ লোটাস কামাল পরিকল্পনা মন্ত্রী। বাকিটা বুইজা নিয়েন।

          2. সত্যিকার অর্থে আমি কোন

            সত্যিকার অর্থে আমি কোন রাজনৈতিক দলের সাথে জড়িত না

            ইহা একটি অতীব সুশীল জবাব, অর্থাৎ সবই কহিব কিন্তু কোনটারই দায় নেবো না।
            কে জানি কইচিল, মানুষ মাত্রই রাজনৈতিক জীব।
            দাদা, লাইনেই আছেন তো!

          3. দয়া করে মুখ খারাপ করাবেন না।
            দয়া করে মুখ খারাপ করাবেন না। আপনাদের নেতারা যখন ইসলামী ব্যাংকের পক্ষে সাফাই গায় সেটাকে কি বলবেন? মুক্তিযুদ্ধের চেতনা? যান লোটা কামালের লেওড়া চুষেন গা! মুক্তিযুদ্ধ নিয়া আপনারা ব্যবসা করবেন, আর কিছু বললে সুশীল, চীনা বাম এসব ট্যাগ দিতে আসবেন। আওয়ামীলীগের মত বাটপার সর্বস্ব দলের কর্মীদের কাছে আমার রাজনৈতিক পরিচয় দেওয়ার বিন্দুমাত্র ইচ্ছা নাই। দুর্নীতিতে তারেক চুরাকে হার মানাবে আপনার চেতনার দল। আপনার মত দলকানাদের আমি বাল দিয়েও পুছি না। শেখ হাসিনা দেশটাকে পৈতৃক সম্পত্তি বানায়া আজ চারদিকে বিশৃঙ্খলা তৈরী করছে। নিজেদের দলের ধান্ধাবাজিতে পুলিশ-র‍্যাবকে ব্যবহার করছে। চোখ কি আপনার অন্ধ? একটা রাজনৈতিক দল ধান্ধাবাজিতে কতটা নীচে নামতে পারে আওয়ামীলীগ তার প্রমাণ।

          4. আওয়ামীলীগে উলঙ্গ কর্মীরা
            আওয়ামীলীগে উলঙ্গ কর্মীরা মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তির মধ্যে এভাবেই বিভাজন তৈরী করে তলে তলে নিজেরা জামায়াত ও জামাযাতী প্রতিষ্ঠান থেকে ফায়দা লুটছে। এই ট্যাগিং কারণেই আজ আমরা স্বপক্ষে শক্তি হয়েও আওয়ামী দুর্নীতির খোঁজ করতে গিয়ে থলের কালো বিড়াল বেরিয়ে পড়ছে। যত আপনারা স্বপক্ষের শক্তির উপর এভাবে ট্যাগিং দিবেন ক্ষতিটাও আপনাদের হবে। আরো এক্সক্লুসিভ নিয়ে আসতেছি।

          5. প্রথমত আপনি
            প্রথমত আপনি বললেন………

            দয়া করে মুখ খারাপ করাবেন না

            দ্বিতীয়ত, তারপরেই আপনি বললেন…………

            যান লোটা কামালের লেওড়া চুষেন গা! আপনার মত দলকানাদের আমি বাল দিয়েও পুছি না

            দাদা, এ যাবত কালে আপনার সাথে বহু তর্ক বিতর্ক হয়েছে, যোগ্য সমালোচক হিসেবেও আপনাকে এতদিন স্রদ্ধার চোখে দেখে এসেছি। এটাই তার প্রতিদান? আপনার সাথে বিতর্কের খাতিরে অনেক বাক্য বানেই আপনাকে হয়তো বিদ্ধ করার চেষ্টা করেছি তাই বলে এ রকম নোংরা শব্দ বোধ হয় এখন পর্যন্ত ব্যবহার করি নি। শেষমেশ কি না সেই আপনিই?

            রাজনৈতিক মতাদর্শগত বিভেদ হয়তো আপনার আমার মাঝে আছে কিন্তু সেই বিভেদটাকে মানবিক দৃষ্টিভঙ্গির ঊর্ধ্বে তুলে ধরিনি বরং যেখানে আপনার নৈতিক পরাজয়ের শঙ্কা তৈরি হয়েছে সেখানে আপনার সম্মানার্থে আলাপচারিতায় ক্ষ্যান্ত দিয়েছি। আজ সেই শ্রদ্ধার স্থানটুকুও কেড়ে নিলেন?

            ভাল থাকুন, আপনার বিবেকবোধকে স্বস্রদ্ধ সালাম রেখে গেলাম।

          6. ইহা একটি অতীব সুশীল জবাব,

            ইহা একটি অতীব সুশীল জবাব, অর্থাৎ সবই কহিব কিন্তু কোনটারই দায় নেবো না।
            কে জানি কইচিল, মানুষ মাত্রই রাজনৈতিক জীব।
            দাদা, লাইনেই আছেন তো!

            ইহা দিয়া আপনি কোন বালটা বুঝাইতে চাইতেছেন? সুশীলগিরি আমার পেশা না। অর্থ্যাৎ আমি পেশাজীবি সুশীল না। আমি স্পষ্টভাবে সব সময় কথা বলি আর স্পষ্টভাবেই বলছি আমি কোন রাজনৈতিক দলের সাথে জড়িত নই। তবে একটা রাজনৈতিক আদর্শ আমি লালন করি। তারপরও আপনি ত্যানা পেছাইতেছেন কেন? যে রাজনৈতিক বেশ্যাদের প্রচন্ড ঘৃণা করি, সেই ট্যাগ দিচ্ছেন কেন? আমি জানিনা আপনি অনলাইন কতদিন বাল ছিড়তেছেন? তবে অনলাইনে যারা পুরানো, তারা আমার সম্পর্কে কম বেশি জানে।

            আপনিও লোটাদের মত রাজনৈতিক বেশ্যাদের নিয়ে ভাল থাকুন।

          7. আমি জানিনা আপনি অনলাইন কতদিন

            আমি জানিনা আপনি অনলাইন কতদিন বাল ছিড়তেছেন?

            আপনি সম্ভবত কুইন্টাল খানিক ছিঁড়িয়াছেন, সে হেসেবে আমি নস্যি!
            মাত্র কেজি কয়েক হতে পারে।

          8. আমার পক্ষ থেকে আপনাকে সাব্রাশ
            আমার পক্ষ থেকে আপনাকে সাব্রাশ ।

            আমার ধারণা যারা বলেন রাজনীতিতে নেই অথচ সবসময় রাজনীতি নিয়ে মাথা ঘামান, কথা বলেন, দোষ গুনের তারতম্য খুজেন তারাই আসল জোচ্চোর তথা চিঙ্কু বাম । এরা প্রকৃত অর্থে বাংলাদেশকে ভালবাসে না । এরা দেশের স্বার্থের চাইতে চীনের স্বার্থকেই বেশি দেখে । তাইতো এরা উলফার মত সন্ত্রাসী সংগঠনকে মুক্তিকামী দল মনে করে, অনুপ চেটিয়ার মত সন্ত্রাসীকে মনে করে বিপ্লবী!
            এরা কেবলই চীনের স্বার্থের জন্যই ভারত বিরুধীতা করে, উলফার মত সংগঠনের পেছনে অর্থ-অস্র পর্যন্ত লগ্নি করে। এদের কোন স্বকীয় আদর্শ নেই ।

          9. এরা প্রকৃত অর্থে বাংলাদেশকে

            এরা প্রকৃত অর্থে বাংলাদেশকে ভালবাসে না । এরা দেশের স্বার্থের চাইতে চীনের স্বার্থকেই বেশি দেখে।

            আমি যতদূর জানি, চিঙ্কুদের ঐটা পৃথিবীতে সবচাইতে ছোট।
            সম্ভবত, এ দেশি বাম ভামেরা ওইটা লেবেনচুষ মনে কৈরা থাকে।

          10. প্রত্যেকটা অক্ষরে সহমত।
            আপনে

            প্রত্যেকটা অক্ষরে সহমত।
            আপনে ক্ষেপলেই আমার ঝিমিয়ে পড়া চৈতন্য জেগে উঠতে থাকে।
            :ঘুমপাইতেছে: :ঘুমপাইতেছে: :ঘুমপাইতেছে: :ঘুমপাইতেছে: :ঘুমপাইতেছে: :ঘুমপাইতেছে:

          11. আওয়ামী লীগের সমালোচনা করলেই
            আওয়ামী লীগের সমালোচনা করলেই হয় জামাত, না হয় সুশীল…!!!

            আর কত…???

            ভ্রষ্টকে সঠিক, আর অশুভকে শুভ হিসেবা দেখাবার আত্মসম্মানহীন প্রচেস্টা আর কতদিন চালু রাখবেন??? আপনি কি আওয়ামীলীগের বেতনভোগী ব্লগার???

          12. আপনি কি আওয়ামীলীগের বেতনভোগী

            আপনি কি আওয়ামীলীগের বেতনভোগী ব্লগার???

            আপনার বেতন টা কে দ্যায়?

          13. আমি বাংলাদেশের কোন নস্ট ও
            আমি বাংলাদেশের কোন নস্ট ও স্বারথবাদি রাজনৈতিক দলের পা চাটিনা যে আমার বেতন দরকার হবে।

          14. আমি বাংলাদেশের কোন নস্ট ও

            আমি বাংলাদেশের কোন নস্ট ও স্বারথবাদি রাজনৈতিক দলের পা চাটিনা

            তবে কোন দেশের………………?

        1. ঘটনাটি ঘটে ২০১১ সালে ।
          ঘটনাটি ঘটে ২০১১ সালে । স্থানীয় এটি মাজারের কয়েকজন ভক্ত গুজরাটের ততকালীন মূখ্য মন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথে সাক্ষাত করে তাকে একটি টুপি উপহার দেয় এবং তা পরতে অনুরোধ করে । কিন্তু মোদী তা পরতে অন্বীকার করে এক পর্যায়ে টুপিটি মাটিতে পড়ে গেলে এক পর্যায়ে একজন ভক্ত তা তুলতে যায় আর সে অবস্থার একটি ছবি ছাপে The Times of India

          1. এসব ধান্ধাবাজ দলকানাদের লিংকু
            এসব ধান্ধাবাজ দলকানাদের লিংকু দিয়া লাভ নাই। সুরঞ্জিতের কালো বিড়াল এদের আদর্শ। লোটা কামালের ইসলামী ব্যাংক প্রীতি বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন। এসব নিয়ে কথা বললে বলবে বিম্পি জামাতের হাতকে শক্তিশালী করছেন। যাদের রাজনীতি মিথ্যার উপর ভিত্তি করে, তারা ভুল তথ্য শেয়ার করে মানুষকে বিভ্রান্ত করবেই। ইতিহাস বিকৃতি এদেশের রাজনীতির একটা অপকৌশল। সব দলই একই পথের পথিক।

            নিকটা নিছে আরেক গালিবাজ থেকে ধার করে।

          2. কিন্তু মোদী তা পরতে অন্বীকার

            কিন্তু মোদী তা পরতে অন্বীকার করে এক পর্যায়ে টুপিটি মাটিতে পড়ে গেলে এক পর্যায়ে একজন ভক্ত তা তুলতে যায় আর সে অবস্থার একটি ছবি ছাপে The Times of India

            তা ভাই, পাশের যে লোক টি হাত জোড় করে দাঁড়িয়ে আছে তার বিষয়ে আপনার বক্তব্য কি?

        2. আকাশ ভাই, আপনি যে লিঙ্ক টা
          আকাশ ভাই, আপনি যে লিঙ্ক টা দিয়েছেন সেটার কোথায় লেখা আছে যে

          এক পর্যায়ে টুপিটি মাটিতে পড়ে গেলে এক পর্যায়ে একজন ভক্ত তা তুলতে যায়

          খবরটা আপনি ঠিক মতো পড়েছেন তো?
          আপনার দেওয়া লিঙ্ক তে কিন্তু পরিষ্কার লেখা আছে

          Sayed Imam Shahi Saiyed, a cleric of a small Dargah in Pirana village on the outskirts of the city had on Sunday gone up to stage to greet the chief minister,

          ছবিটাতেও নিচের দৃশ্য পরিষ্কার দেখা যাচ্ছে, সেখানে টুপিটা কোথাও দেখেছেন কি?

          যে লিঙ্গ (ল্যাওড়া) সরবরাহ করেছেন সেটা এখানকার কেউ কেউ যে প্রাণপণ চুষছেন সেটা দেখতেই পাচ্ছি।
          আপনার যেন আবার গলায় আটকে না যায়!

          1. তাইলে হুদাই মাতবরি করা উচিত
            তাইলে হুদাই মাতবরি করা উচিত হয় নি।
            না বুঝে বাল ছাল লিঙ্ক দিতে কইছে কে?

  1. আপনের বক্তব্যের বিরুদ্ধে ১৭
    আপনের বক্তব্যের বিরুদ্ধে ১৭ দিন একটানা হর্তাল দিলেম।
    জামাত ডায়ালগঃ”পালাবি কুতায় হর্তাল দেবোই দেবো হুঃহাঃহাঃহাঃ”

    1. টূট টূট টুট
      ভাই, টূট টূট টুট

      টূট টূট টুট

      ভাই, টূট টূট টুট কইয়া সবাই কি দায় এড়াইতেচেন?
      একজনরেও তো ঐ ভণ্ডদের নামে কিছু কইতে দেখলাম নাহ!

    2. টূউউউঊট।
      আসলে মোদীর কথা কৈতে

      টূউউউঊট।
      আসলে মোদীর কথা কৈতে গিয়া ক্যান যে নিজ দ্যাশের রাজনীতি উঠাইলাম!
      আল্লাহ মাফ করেন এইডা আমারই দুষ।

    1. কি জনাব, সাইদির ফোন সেক্সের
      কি জনাব, সাইদির ফোন সেক্সের লিংক দিমু নাকি? ওটা শুনলে কিন্তু মন একেবারে ভাল হয়ে যাবে ।

  2. আমি আসবার আগেই আলোচনা বহুত
    আমি আসবার আগেই আলোচনা বহুত দুর গড়িয়ে গেছে ।
    যাইহোক, এখানে জনাব বৃত্তবন্দী চন্দ… সাবের দুটি কমেন্ট বড় ব্যতিক্রমি মনে হল । উনি পোষ্টের প্রথম মন্ত্যব্যে বলেছেন,

    সব রসুনের পাছা এক।

    মানে জামাত-বিজেপি একই ।আবার চিহ্নিত ছাগু আকাশের ফালতু একটা লিংকের প্রতিমন্তব্যে বলেছেন,

    এসব ধান্ধাবাজ দলকানাদের লিংকু দিয়া লাভ নাই।

    তার মানে ছাগুর লিংক শেয়ারকে স্বাগত জানিয়ে আবার পোষ্টে দেয়া ছবিটির বিরুধীতা করেছেন!
    উনার কাছে জানতে মুঞ্চায়, আপনি-আপনারা আসলে কি চান? জামাত প্রীতি আর মোদী বিরুধীতা যে একসাথে সম্ভব নয় সেটা উপলব্দি করতে সমস্যা হচ্ছে?

    1. যে চান্দু ক্ষুদ্র বৃত্তের
      যে চান্দু ক্ষুদ্র বৃত্তের মধ্যে বন্দি থাকে তার কথা বাদ দেন। কুয়োর ব্যাঙ বলে একটা কথা আছে, সেটা স্মরন করুন।

      কিন্তু, আকাশ সাহেব যে লিংক টা সরবরাহ করেছেন তাতে কি কোথাও লেখা আছে

      এক পর্যায়ে টুপিটি মাটিতে পড়ে গেলে এক পর্যায়ে একজন ভক্ত তা তুলতে যায় আর সে অবস্থার একটি ছবি ছাপে The Times of India

      দৃশ্যপট পরিষ্কার করার স্বার্থে দ্বিতীয় আরেকটি ছবি যুক্ত করেছি, সেখানে পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম করার চিত্র ফুটে উঠেছে । অদৃশ্য টুপি তোলার জন্য উবু হয়েছিলেন বলে যে কথা বলা হচ্ছে তা একেবারেই ভিত্তিহীন। মোদীর হাত দিয়ে আশীর্বাদ করার অভিব্যক্তি এবং স্মিত হাসি কি চোখে পড়ছে না?

      ……… এতটা অন্ধ সম্ভবত এখনও হইনি।

  3. দুনিয়ার সবাইকে বুঝানো বা সত্য
    দুনিয়ার সবাইকে বুঝানো বা সত্য মানানো সম্ভব হলেও হাজার তথ্য প্রমাণ দিয়েও ছাগুদেরকে প্রকৃত সত্যতেও বিশ্বাস করানো সম্ভব হয় না যদি ব্যাপারটা তাদের আদর্শের বিপক্ষে থাকে ।
    আফসুস লাগে যখন দেখি… মানবতাবাদীরাও(আসলে মানবতা ব্যবসায়ী)প্রকাশ্য ওদের বিপক্ষে থাকলেও তলে তলে ওদেরই লিঙ্গ চোষে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *