নদী

জীবন নামে একটা নদী আছে । নদীটা স্বচ্ছ । এ কূল থেকে অকূল সীমানার বাইরে । চোখ তুলে দেখা যায় না ।
এ নদী চিরকাল বয়ে যায় । আবার কখনো থেমে যায় । জোয়ার ভাটা পথ হারিয়ে ফেলে , নদীর বুকে চর জন্মে ।
এ নদীর নাম কি ?
আমার নদীটার নাম দিয়েছি নীলিমা ।
নীলিমার জল স্বচ্ছ নীল ।
বসন্ত থেকে শরত্‍
অষ্টপ্রহর এখানে নয়টি নীলপদ্ম ফুটে থাকে ।
মাঝে মাঝে নদীর পাড়ে বসে থাকি । বিলাসী বজরা ভাসাই । খেয়াঘাটের অনেক মাঝি অবাক হয়ে চেয়ে থাকে ।
এ নদীতে কারো অনুপ্রবেশ নেই । নীলিমা শুধু আমার ।


জীবন নামে একটা নদী আছে । নদীটা স্বচ্ছ । এ কূল থেকে অকূল সীমানার বাইরে । চোখ তুলে দেখা যায় না ।
এ নদী চিরকাল বয়ে যায় । আবার কখনো থেমে যায় । জোয়ার ভাটা পথ হারিয়ে ফেলে , নদীর বুকে চর জন্মে ।
এ নদীর নাম কি ?
আমার নদীটার নাম দিয়েছি নীলিমা ।
নীলিমার জল স্বচ্ছ নীল ।
বসন্ত থেকে শরত্‍
অষ্টপ্রহর এখানে নয়টি নীলপদ্ম ফুটে থাকে ।
মাঝে মাঝে নদীর পাড়ে বসে থাকি । বিলাসী বজরা ভাসাই । খেয়াঘাটের অনেক মাঝি অবাক হয়ে চেয়ে থাকে ।
এ নদীতে কারো অনুপ্রবেশ নেই । নীলিমা শুধু আমার ।

আজকাল নদী শুকিয়ে গেছে । এমন গ্রীষ্ম অনেক গেছে নদী কখনো শুকায় নি । এবার নীল জল শুকিয়ে গেল , নদীর ধারে হিজলের ডালে যে ডাহুক ঘর বেঁধেছিল সেও চলে গেছে ।
আর নীলপদ্ম
কেমন জানি বাসি ফুলের মতো পঁচা গন্ধ ছড়াচ্ছে ।
আমার নীলিমা কি মৃত ?
নদী কি থেমে গেল ?
নাকি আবার আসবে বর্ষা ?

২ thoughts on “নদী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *