বৈশাখেরর কালবৈশাখি ও নাঃগঞ্জের লাশ

আজ বাতাসের অসুখ করেছে । অসহায় বাচ্চার মতো বাইরে হু হু করছে । আকাশ কিছুক্ষন পরপর চিত্‍কার করছে । একটু পরে হয়তো অঝোরে শ্রাবণধারা নামবে !
বৈশাখ মাস, রুমের অসস্থিকর ভ্যাপসা গরমটা আস্তে আস্তে জমাট ঠান্ডায় রুপ নিচ্ছে । এখন সম্ভবত বৈশাখ তার ভয়ংকর রুপ প্রদর্শন করবে । আদিম পৈচাশিকতায় নাচানাচি শুরু করবে । দত্যের মতো ভাংচুর করবে সবকিছু ।
সে যাই হোক , যত ভয়ংকরই হোক , মৌসুমের প্রথম বৃষ্টি । প্রচন্ড তাপদাহে নগরজীবন প্রায় অচল । তাই কালবৈশাখের বৃষ্টিটুকু বড়ই আশির্বাদ ।
তবে হে কালবৈশাখ , মানুষের জন্মের গুরুত্ব তুই বোঝো ? জানো ? সবার উপরে মানুষ সত্য তাহার উপরে নাই !

আজ বাতাসের অসুখ করেছে । অসহায় বাচ্চার মতো বাইরে হু হু করছে । আকাশ কিছুক্ষন পরপর চিত্‍কার করছে । একটু পরে হয়তো অঝোরে শ্রাবণধারা নামবে !
বৈশাখ মাস, রুমের অসস্থিকর ভ্যাপসা গরমটা আস্তে আস্তে জমাট ঠান্ডায় রুপ নিচ্ছে । এখন সম্ভবত বৈশাখ তার ভয়ংকর রুপ প্রদর্শন করবে । আদিম পৈচাশিকতায় নাচানাচি শুরু করবে । দত্যের মতো ভাংচুর করবে সবকিছু ।
সে যাই হোক , যত ভয়ংকরই হোক , মৌসুমের প্রথম বৃষ্টি । প্রচন্ড তাপদাহে নগরজীবন প্রায় অচল । তাই কালবৈশাখের বৃষ্টিটুকু বড়ই আশির্বাদ ।
তবে হে কালবৈশাখ , মানুষের জন্মের গুরুত্ব তুই বোঝো ? জানো ? সবার উপরে মানুষ সত্য তাহার উপরে নাই !
জানোনা ! জানলে কী আর গলাচিপায় মানুষগুলোকে চুবিয়ে মারতি ?
অবশ্য তোর জানার কথাও না ! পৃথিবীর একমাত্র বিবেচনাক্ষমরাই বুঝে না ! গুম হয়ে যায় ! হাজার বছরে একটু একটু করে অর্জিত মানবতা ভাসে শীত্যালক্ষায় !
বাংলাদেশে দুপেয়ো এই বিশেষ প্রানিটি আওয়ামিলীগ বিএনপি সহ বিভিন্ন শাখা উপশাখায় বিভক্ত । বায়োলজিতে এর কোনো বিষদ বর্ণনা না থাকলেও এদের বৈশিষ্টসম্পন্ন আচারণই তাদের প্রজাতিগত বিভিন্নতা প্রমান করে । এমনকি এক প্রজাতিও অন্য প্রজাতিকে ‘মানুষ’ হিসেবে স্বীকৃতি দেয় না । শীতল্যখ্যায় লাশ নিয়ে ইতোমধ্যে রাগবি শুরু হয়ে গেছে ! (ইউ নো ম্যান ! রাগবি ইজ আ ভেরি এক্সাইটিং গেম !) যেই মুহুর্তে রাগবীর বল যার বগলের তলে তখন সেই ফ্রন্টফুটে !
বাই দ্য ওয়ে ! দু একবার উকিঝুকি দেয়া ছারা ছাত্রসংঘের বর্তমান সংস্করণটি পর্দার আড়ালেই আছে । (হয়তো ঘাপটি মেরে বসে আছে) । বিএনপি আঙ্গুল চুশতে চুশতে রক্ত বের করার পরও অপেক্ষায় আছে কখন মধু বেড় হবে ! বৃহত্তম জামাত তাদের জীহাদে হয়তো ‘কৌশলগত’ বিরতি দিয়েছে । মাঠ পুরাই খালি ! প্রগতি ও মুক্তচিন্তার লোকদের কাছে কাফনের কাপর যায়না অনেক দিন । হয়না গলির অন্ধকারে চোরাগোপ্তা হামলাও ।
নাহ ! অসহ্য ! বিপ্লবে যদি রক্ত না থাকে তবে কিসের বিপ্লব ??
আর তাইতো বিপ্লবের মর্ম রক্ষার্থেই এগিয়ে আসলো দুই প্রগতিশীল বামধারার সংগঠন ছাত্র মৈত্রি ও ছাত্র ইউনিয়ন ।
বরিশালের ঐতিহ্যবাহী ব্রজমোহন কলেজ । শিবির মাঠে নেই বলে হত্যার হুমকি দেয়া বন্ধ থাকবে ? কভি নেহি !
গেলো এই কাহিনি । রাজশাহীতে শিবিরের জেহাদি ভাইয়েরা এক ফাসেকের পায়ের প্রায় পুরো অংশই কেটে নিয়েছে । প্রশাসন বসে বসে বাল ছিরতেছে । ঐদিকে নাঃগঞ্জে প্যানেল মেয়র ও আইনজিবীসহ সাতজন গুম । অতঃপর পানির নিচের পরিবেশ পছন্দ না হওয়ায় অথবা অক্সিজেনের মায়া কাটিয়ে উঠতে না পারায় তারা শীতলখ্যায় ভেসে উঠলো ।
ব্যাস ! ডক্তর সেলিনা হায়াতের মায়াকান্না শুরু হয়ে গেলো ! আর কিছু দিন পর শামিম ওসমানের চিত্‍কার ।
হু কেয়ার্স ? বলি এতোসব ভেবে কি হবে ? আজকের আবহওয়া শীতল আছে । ঘুমাও !

২ thoughts on “বৈশাখেরর কালবৈশাখি ও নাঃগঞ্জের লাশ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *