আপোষহীন আপোষকামী !!!

বক্তৃতা শেষে দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের অনশন ভাঙান খালেদা জিয়া”
=> প্রথম আলো

বহু দিন ধরেই মনে হচ্ছে, সরকার যেভাবে ধান, চাল, আলু, পাট ইত্যাদীর মুল্য নির্ধারণের ক্ষেত্রে একটা লোয়ার বা হায়ার লিমিট ফিক্স করে দেয় ; ঠিক সেভাবেই সরকারের উচিত ‘জনস্বার্থে’ হিপোক্রেসীর ও একটা লিমিট ফিক্স করে দেয়া !! গলাবাজ রাজনৈতিক নেতাদের বক্তব্যে হিপোক্রেসীর মিনিমাম লিমিট ক্রস করলেই, তা জামিন অযোগ্য অপরাধ হিসাবে বিবেচনা করে যথাশিঘ্রই নতুন আইন প্রনয়ন করা এখন প্রায় ফরজের পর্যায়ে চলে গেছে !!


বক্তৃতা শেষে দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের অনশন ভাঙান খালেদা জিয়া”
=> প্রথম আলো

বহু দিন ধরেই মনে হচ্ছে, সরকার যেভাবে ধান, চাল, আলু, পাট ইত্যাদীর মুল্য নির্ধারণের ক্ষেত্রে একটা লোয়ার বা হায়ার লিমিট ফিক্স করে দেয় ; ঠিক সেভাবেই সরকারের উচিত ‘জনস্বার্থে’ হিপোক্রেসীর ও একটা লিমিট ফিক্স করে দেয়া !! গলাবাজ রাজনৈতিক নেতাদের বক্তব্যে হিপোক্রেসীর মিনিমাম লিমিট ক্রস করলেই, তা জামিন অযোগ্য অপরাধ হিসাবে বিবেচনা করে যথাশিঘ্রই নতুন আইন প্রনয়ন করা এখন প্রায় ফরজের পর্যায়ে চলে গেছে !!

অদ্ভুত এক আইটেম আমাদের আপোষহীন নেত্রী, পুরাই আজ্জব ! তার দলের অনশন, অথচ তিনিই অনশন করলেন না ! এটা হৈল !!!? আবার আসছে ফখরুলের অনশন ভাঙ্গানোর মহান উদ্দেশ্যে !!

এসব ফাইজলামি আর কত কাল !!? আবার গলাবাজিও চলে সমানে, সামনে নাকি আরো কঠোর কর্মসুচীর ঘোষনা দিবেন তিনি !! যে দলের খোদ চেয়ারপার্সনই নিজের দেওয়া কর্মসুচী নিজেই পালন করেন না, সে দলের দেয়া “কঠোর কর্মসুচী”সফল করার জন্য দেশের আনাচে কানাচে থেকে নেতা কর্মীরা পঙ্গপালের মত ঝাকে ঝাকে ছুটে আসবে, সেটা তিনি ভাবলেন কিভাবে !?? এতটুকু ভাবতেও তো ব্যাপক দুঃসাহসিকতা প্রয়োজন ! তাই দ্বীধাহীন চিত্তে স্বীকার করতেই হচ্ছে – ম্যাডামের সাহস আছে মাইরি !

অবশ্য অতীতে এ জাতীয় অভিজ্ঞতা তার আরো বহুবার হয়েছে ! সাম্প্রতিক উদাহরণ হিসাবে বহুলালোচিত লং মার্চের উদাহরণ টানা যায়- পাবলিক করে লং মার্চ, আর তিনি করেন মোটর মার্চ ; কারণ এর মধ্যে একটা পিকনিক পিকনিক ভাব আছে ; অতপর ইটস আ টাইম টু ডিস্কো !!

মাস্তি আভি বাকী হ্যায় ! বক্তৃতা ঝাড়তে ঝাড়তে এক পর্যায়ে তিনি দাবী করলেন, এরশাদই হচ্ছে তার স্বামী ‘শহীদ’ জিয়ার হত্যাকারী !! এই দাবী শোনার পর তার প্রতি পাব্লিকের সহমর্মিতা বাড়বে নাকি ঘৃনা বাড়বে !!?
কেন তিনি তার স্বামীর হত্যাকারীর সাথে এত বছর মহব্বত করলেন !? কোন দুঃখে !? এত লোভী কেন তিনি ? স্বামীর হত্যাকারীর দেয়া বাস ভবন নিলেন কেন “ভাঙ্গা স্যুটকেস পরিবারের” এই স্বত্বাধীকারী !??

লোভ, ঘৃণা আর নীচতার এক অদ্ভুত নিদর্শন তিনি !! যে মানুষ লোভের কাছে পরাজিত হয়ে নিজের স্বামীর হত্যা ারীর বিচার না করে উল্টো তার সাথে বন্ধুত্ব পাতান, সেই মহিলা নির্লোভ থেকে জনগণের স্বার্থ রক্ষা করবেন – সেইটা আমরা ক্যম্নে বিশ্বাস করতাম !!???

এই মহিলাকে যে “আপোষহীন দেশনেত্রী ” উপাধী টা দিছে , সর্বকালের নিষ্ঠুরতম মিথ্যাবাদীতার জন্য তারে অবিলম্বে শুলে চড়ানো বা ফাসি কাষ্ঠে ঝোলানো উচিত ! যে মানুষ ১0 বছরের ও বেশি সময় ধরে দেশ চালিয়ে ও স্বামীর হত্যাকারীর বিচার না করে, লোভ এবং স্বার্থের বশবর্তি হয়ে উল্টা খুনীর সাথে ভালোবাসামুলক “আপোষ” করে, তাকে “আপোষহীন নেত্রী” হিসাবে উল্লেখ করাই তো অপরাধ হিসাবে বিবেচনা করা উচিত

৮ thoughts on “আপোষহীন আপোষকামী !!!

  1. খালেদা নামটার মধ্যেই সব
    খালেদা নামটার মধ্যেই সব মহাত্ত্য। তিনি আন্দোলনের নতুন নতুন মাত্রা যোগ করে আমাদের আনন্দের খোরাক যুগিয়ে দেশ সেবা করেন। আর তার চট্টগ্রামের খলিফারা আরও বেশি অভিজ্ঞ।

    1. তিনি এক কমপ্লিট
      তিনি এক কমপ্লিট এণ্টারটেইনমেণ্ট প্যাকেজ, জনসভায় তিনি কৌতুক পরিবেশন করবেন আর ব্যাক গ্রাউন্ড মিউজিক হিসাবে বাজবে- ” গোপালী এই গোপালী” , মাঝে মধ্যে কান্না কাটি ও হবে , হাল্কা ইমোশনাল এটাচমেণ্ট ।সহজ ফর্মুলা !
      এত ভেজালের ভিড়ে বহু বছর ধরেই তিনি জাতির জন্য পিওর বিনোদনের ব্যাবস্থা করে যাচ্ছেন একেবারে নিঃস্বার্থে, তাই তার প্রতি অশেষ কৃতজ্ঞতা

  2. ইষ্টিশনের সুশীলেরা এগুলান পড়ে
    ইষ্টিশনের সুশীলেরা এগুলান পড়ে না ভাই, এগুলান পড়ার টাইম নাই!

    শেখ হাসিনার নামে লেইখা দেখেন, দেখেন ক্যামনে হুমড়ি দিয়া পড়ে!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *