শ্রমিক দিবস। আবার শিশু শ্রমিক।

আজকের শ্রমিক দিবসের বড় উদাহরন হতে পারে এই শিশুটি।
যাত্রাবাড়ীর একটি এলাকার এক গলিতে খুব ভালো পুরি,পেয়াজু,ছোলা বানায়। সেখানে প্রায়ই খেতে যাই। ছেলেটিকে প্রায়ই দেখি। পানি এগিয়ে দেয়,সালাদ এনে দেয়।
খুব মিস্টি দেখতে ছেলেটি। কেনো যেনো মায়া লাগে অনেক দেখতে।
আজ একটু কথা বললাম ছেলেটির সংগে ।
কথা বলে জানতে পারলাম। ছেলেটির নাম রুবেল। বাড়ী সিলেট। বাবা মারা গেছে অনেক আগেই। মা সিলেটেই থাকে। রুবেলের বড় বোন এখানে থাকে। তাই রুবেল এখানে এসেছে। এবং এই ছোট্ট হোটেলে ছোটখাটো কাজ করে। সব থেকে অবাক হলাম ওর বেতন মাত্র দেড় হাজার। যদিও তিন বেলা খাওয়ায়।
আর ও কতহ্মন কাজ করে জানেন???

আজকের শ্রমিক দিবসের বড় উদাহরন হতে পারে এই শিশুটি।
যাত্রাবাড়ীর একটি এলাকার এক গলিতে খুব ভালো পুরি,পেয়াজু,ছোলা বানায়। সেখানে প্রায়ই খেতে যাই। ছেলেটিকে প্রায়ই দেখি। পানি এগিয়ে দেয়,সালাদ এনে দেয়।
খুব মিস্টি দেখতে ছেলেটি। কেনো যেনো মায়া লাগে অনেক দেখতে।
আজ একটু কথা বললাম ছেলেটির সংগে ।
কথা বলে জানতে পারলাম। ছেলেটির নাম রুবেল। বাড়ী সিলেট। বাবা মারা গেছে অনেক আগেই। মা সিলেটেই থাকে। রুবেলের বড় বোন এখানে থাকে। তাই রুবেল এখানে এসেছে। এবং এই ছোট্ট হোটেলে ছোটখাটো কাজ করে। সব থেকে অবাক হলাম ওর বেতন মাত্র দেড় হাজার। যদিও তিন বেলা খাওয়ায়।
আর ও কতহ্মন কাজ করে জানেন???
মাত্র ১৭ ঘন্টা। হ্যা ঠিকই শুনেছেন ১৭ ঘন্টাই।
সকাল ছয়টায় হোটেলে আসে। কাজ শুরু করে দেয়। সকালে মানুষ এর ডাল-পরোটা খাবার ভিড়। দুপুরে নানা রকমের তরকারী সহ ভাত খাবার ভিড়। আর সন্ধ্যার পর থেকে শুরু হয় পুরি,পেয়াজু,আলুর চপ,ছোলা ইত্যাদি খাওয়ার ভিড়। আবার রাতে ভাত খাবার ভিড়।
হোটেল বন্ধ হয় রাত এগারোটায় । আর এই ১৭ ঘন্টাই টানা কাজ করে ছেলেটি।
শুনে এতো খারাপ লাগছিলো বলার বাহিরে।
আসার সময় ছেলেটার হাতে দশটা টাকা গুজে দিয়ে বল্লাম,নে কিছু খাইস।
এর বেশী কিছু দেবার সামর্থ্য আমার ছিলো না। 🙂
শ্রমিক দিবস নিয়ে আমরা অনলাইনে কত বড়বড় বুলি ছাড়ি অথচ বাস্তবে শ্রমিকেরা যাই থাকে তাই থেকে যায়।

৩ thoughts on “শ্রমিক দিবস। আবার শিশু শ্রমিক।

  1. এদেশের শ্রমিক নেতারা শ্রমিক
    এদেশের শ্রমিক নেতারা শ্রমিক আন্দোলন করে নিজেদের আখের গুছানোর জন্য। শ্রমিকদের স্বার্থে তারা কিছুই করেনা। এটাই নির্মম সত্য।

  2. শিশুশ্রম বন্ধ করলে আমাদের
    শিশুশ্রম বন্ধ করলে আমাদের দেশের রাজনীতিবিদরাই বেশী অসুবিধায় পড়বেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *