কথোপকথন

– ক্রিং ক্রিং
– কাকে চাইছেন?

– একটু খুলবেন প্লিজ? সার্ভে করতে এসেছি।
– আমার বাসায়? হুম,একটু গুনে বলি? হুম, সাড়ে তিনজন।

– সাড়ে তিন?
– হুম। আমি, একটা কাচপোকা, আর সদ্য গর্ভবতী এক জোনাক পোকা।

– আমি তো পোকা গুনতে নক করিনাই। মানুষ কয়জন?
– এইতো, আমরা সবাই মিলে একজন মানুষ।



– ক্রিং ক্রিং
– কাকে চাইছেন?

– একটু খুলবেন প্লিজ? সার্ভে করতে এসেছি।
– আমার বাসায়? হুম,একটু গুনে বলি? হুম, সাড়ে তিনজন।

– সাড়ে তিন?
– হুম। আমি, একটা কাচপোকা, আর সদ্য গর্ভবতী এক জোনাক পোকা।

– আমি তো পোকা গুনতে নক করিনাই। মানুষ কয়জন?
– এইতো, আমরা সবাই মিলে একজন মানুষ।

– সবাই মিলে একজন কিভাবে হয়? ছোটবেলায় গুনতে শিখেন নাই?
– হুম, আমরা সবাই মিলে এক। United we stand, divided we fall.

– আমিতো দাঁড়াইতে বলিনাই। বসে বসেই গুনে বলেন মানুষ কয়জন।
– বারে, আপনিই বা দাঁড়িয়ে আছেন কেনো? বসুন না।

– আমি একা দাঁড়িয়ে থাকতে পারি, পড়ে যাওয়ার ভয় নাই।
– আলো আসছে না দরজা দিয়ে। আসুন না ভেতরে। জোনাকিটা আপনাকে দেখতে চায়।

– আমিতো জোনাকি শুমারি করতে আসিনি… যাইহোক এতো করে যেহেতু বলছেন চলুন…দেখান আপনার জোনাকি।
– আগে বসুন তো। আপনি নতুন মানুষ, আপনাকে দেখে লজ্জা পেয়েছে। পর্দার ওপাশে দাঁড়িয়ে দেখছে।

– পোকাও কি তবে লজ্জা পায়?
– হুমম, পায়। আমি আপনিওতো লজ্জা পাই, এই যেমন আপনি এখন পাবেন। ওদের পেতে দোষ কি?

– আমি এখন পাবো?কেন বলুন তো?
– আপনাকে খুব সুন্দর লাগছে। এক থোকা বেলীফুলের মতো।

– আমার তো মনে হচ্ছে কথাটা বলতে গিয়ে আপ্নিই লজ্জা পেয়েছেন!
– ইয়ে মানে, আমড়া খাবেন?

– কই আপনার পোকা কে ডাকুন…আমার যাওয়ার সময় হয়ে এলো।
– আমড়া খেতে খেতে কথা বলি? ঝাল পছন্দ?

– আজ থাক…অন্য আরেকদিন…সেদিন আপনার জোনাকির গলায় গান শুনে যাবো
বাইরে ভীষণ বাতাস…।ঝড় এলো বলে।।আজ তবে যাই।
– আম কুড়োবেন?

– নাহ, ছাতা মেলবো। ঝড়কে আমার ভীষণ ভয়!
– চলুন পৌঁছে দেই। একা একা ভয় পেয়ে লাভ কি?

– আপনিও কি তবে ভয়ের শেয়ার নেবেন?আপ্নার জোনাকি…
– ওরা আমাদের পাশেই থাকবে। আমাদের ঘিরে থাকবে, অদ্ভুত মায়ায়।

– লজ্জা পাবে না তখন?
– নাহ। আমি লজ্জাগুলো নিয়ে নেবো।

– তাহলে এখনি নিয়ে নিতেন। জোনাকি টাকে দেখে যেতাম…আবার আসতে হতোনা।
– ওরা যে এই আলো আধারিতে আপনাকে দেখা দেবে না। ঝড়ের মধ্যে কালো আকাশে ওরা আলো দেবে, বদ্ধ ঘরে দেবে না।

– তবে থাক…আরেক ঝড়ের রাতের দেখার অপেক্ষায় থাকলাম। ভাল থাকুক জোনাক পোকা…আর আপনি!
– আপনাকে তো আমি একা ছাড়বো না, ভয় পাবেন। সামনে ভীষন অন্ধকার!

– একলা চলে আমি অভ্যস্ত। এক রাতের আলো দিয়ে বাকি সব রাতের আঁধার তো দূর করতে পারবোনা।
– তবে আমি, আমরা প্রতিদিন এগিয়ে দেবো। বাদাম খাবো, আর গল্প করবো। হাটতে পারেন তো?

– হুম পারি… আমি একাই পারবো হেঁটে যেতে। আপনি বরং বাসায় থাকুন, জোনাকিটাকে সঙ্গ দিন। ও ঝড় ভয় পায়না?
– নাহ। খুব সাহসী। একা একা থাকতে পারে, ভুতের ভয় পায় না।

– ঝড় আর ভুত কি এক হলো?
– মনের ভেতরের ঝড়কে ভুত বলে।

– যাই আজকে। অনেক দূর যেতে হবে।
– জোনাকটাকে নিয়ে যান। কাচপোকাটা থাকুক আমার সাথে!

(অসমাপ্ত। এই কথোপকথনের কোন শেষ নেই!)

৩ thoughts on “কথোপকথন

  1. হুম, আমরা সবাই মিলে এক।

    হুম, আমরা সবাই মিলে এক। United we stand, divided we fall.

    :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *