ক্রিকেট যদি শিল্প হয় শিল্পী তৈরীতে দুর্নীতি কেনো?!!!

এগারো সদস্যের দলটিকে সফলতা এনে দেওয়া একজন খেলোয়াড়ের পক্ষে সম্ভব নয়, সে যত ভালো খেলে থাকুকনা কেনো৷ তবে সেই কঠিন সাফল্যটিকে সহজে জয় করার পথ তৈরী করতে পারা সম্ভব একজন খেলোয়াড়ের পক্ষেই৷
নির্জন আজো এটাই বিশ্বাস করে৷ গল্পটার শুরু নির্জনের স্কুল জীবন থেকে৷ বরাবরের মতো ইন্টারস্কুল,ইউনিয়ন ও উপজেলা ভিত্তিক সকল টুর্নামেন্ট কিংবা ম্যাচে অলরাউন্ডার হিসেবেই তার খ্যাতি৷ যখন থেকে ক্রিকেটের মানে বুঝি ম্যান অব দ্য ম্যাচ অথবা সিরিজের ট্রপিটা বুঝি তার জন্যেই মাঠে আনা হয়! তখন থেকেই নির্জন স্বপ্ন দেখে একদিন সে জাতীয় দলে খেলবে৷

এগারো সদস্যের দলটিকে সফলতা এনে দেওয়া একজন খেলোয়াড়ের পক্ষে সম্ভব নয়, সে যত ভালো খেলে থাকুকনা কেনো৷ তবে সেই কঠিন সাফল্যটিকে সহজে জয় করার পথ তৈরী করতে পারা সম্ভব একজন খেলোয়াড়ের পক্ষেই৷
নির্জন আজো এটাই বিশ্বাস করে৷ গল্পটার শুরু নির্জনের স্কুল জীবন থেকে৷ বরাবরের মতো ইন্টারস্কুল,ইউনিয়ন ও উপজেলা ভিত্তিক সকল টুর্নামেন্ট কিংবা ম্যাচে অলরাউন্ডার হিসেবেই তার খ্যাতি৷ যখন থেকে ক্রিকেটের মানে বুঝি ম্যান অব দ্য ম্যাচ অথবা সিরিজের ট্রপিটা বুঝি তার জন্যেই মাঠে আনা হয়! তখন থেকেই নির্জন স্বপ্ন দেখে একদিন সে জাতীয় দলে খেলবে৷
বাংলাদেশকে বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ান দল গুলোর তালিকায় জায়গা করে দেয়ার মতো কঠিন স্বপ্নটাকে খুব সহজভাবেই দেখতো সে৷ যদিও স্বপ্ন দেখাটা সহজ এবং স্বপ্ন দেখার অধিকারও সবার থাকে৷ তবে সেই স্বপ্ন সত্যি করে তুলার সামর্থ্য কিংবা উপকরণ সবার থাকেনা৷
সেই সামর্থ্য ও উপকরণ দুটোই নির্জনের আছে৷ ব্যাট হাতে মাঠে থাকলে বুঝতে কষ্ট হয় সে ব্যাট করছে নাকি প্রতিপক্ষের বোলারদের ধৈর্যশক্তি পরীক্ষা করছে৷ আর বল হাতে বোলারের দায়িত্বে থাকলে যেনো বলটা শুধু তার কথাই শুনে৷ তবে স্বপ্ন পূরনে সামর্থ্য ও উপকরনের পাশাপাশি যা লাগে সেটা হলো সুযোগ৷
দুর্নীতির বাজারে আজও যা নির্জনের পাওয়া হয়ে উঠেনি! অথছ ক্রিকেটশিল্পে একটা সুযোগই পারে নির্জনদের ক্রিকেটশিল্পী হিসেবে পরিচয় করে দিতে৷

অগত্যা এভাবেই দুর্নীতির গর্জনে, শতশত নির্জন থেকে যায় নির্জনে!

৪ thoughts on “ক্রিকেট যদি শিল্প হয় শিল্পী তৈরীতে দুর্নীতি কেনো?!!!

  1. শুধু এই না। আমি লোকাল
    শুধু এই না। আমি লোকাল ক্রিকেটের লোকেদের সাথে বেশ কিছুদিন চলাফেরা করেছি। কয়েকটা দিন বাংলাদেশের ক্রিকেটার তৈরীর পাইপলাইন দেখেছি। খুবই করুন অবস্থা। নিজেদের মধ্যে রেশারেশি।

    এই ছেলে ওর কাছে প্র্যাকটিস করে, ওকে নেওয়া যাবে না। এরকম অবস্থা। খেলা দেখে খুব কমই বিচার করা হচ্ছে এখন।

    আপনার বক্তব্য পরিস্কার না… আরো গুছিয়ে লেখলে ভালো হত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *