অমাবস্যার কবিতা

চাঁদের ছায়া দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হচ্ছে প্রতিনিয়ত
অমাবস্যার সাধকের চামড়া কুঁচকে গেছে
প্রস্ফুটিত গোলাপেরা বিক্রি হবার প্রতীক্ষায় আছে বসে
চন্দ্রাহত পথিক দুই এক কদম করে পা ফেলছে দ্রুত
কবির কলমে টগবগ করে ফুটছে আসন্ন কাব্য
মজুরের দু’চোখে নেমে এসেছে ঘুম
পেঁচা একদৃষ্টিতে গ্রিলে চেয়ে আছে
তারকা চিহ্নিত প্রশ্নগুলো আউড়ে যাচ্ছে ছাত্র
পাগলে খুঁজে বেড়াচ্ছে কল্পিত সম্পদ



চাঁদের ছায়া দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হচ্ছে প্রতিনিয়ত
অমাবস্যার সাধকের চামড়া কুঁচকে গেছে
প্রস্ফুটিত গোলাপেরা বিক্রি হবার প্রতীক্ষায় আছে বসে
চন্দ্রাহত পথিক দুই এক কদম করে পা ফেলছে দ্রুত
কবির কলমে টগবগ করে ফুটছে আসন্ন কাব্য
মজুরের দু’চোখে নেমে এসেছে ঘুম
পেঁচা একদৃষ্টিতে গ্রিলে চেয়ে আছে
তারকা চিহ্নিত প্রশ্নগুলো আউড়ে যাচ্ছে ছাত্র
পাগলে খুঁজে বেড়াচ্ছে কল্পিত সম্পদ
শিশু কেঁদে যাচ্ছে কাঁচা ঘুমে
ল্যাম্পপোস্টেরা বসে বসে ঝিমুচ্ছে
প্রাগৈতিহাসিক ইতিহাস জীবন ফিরে পাচ্ছে আহত স্বপ্নে
কিবোর্ডে চলছে ঝড়
চায়ের এঁটো কাপগুলো পড়ে আছে
একজন কেউ সবকিছু দেখে চুপচাপ বসে আছে অনাদি থেকে…

১ thought on “অমাবস্যার কবিতা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *