ছন্নছড়া

চলছে বাঁয়ে
কিসের তরে
তাহার পরে
তাকিয়ে মরে
হৃদয় ঝরে
মাথায় চুলে
হাওয়ায় দুলে




চুল ছিরেছি
দুল পরেছি
কুল পেয়েছি
চালে,
রাত হয়েছে
বাত রয়েছে
কাত হয়েছে
পালে ।
কাল দুপুরে
সুর নুপুরে
জল পুকুরে
টলে,
হার ইশারা
দ্যায় কি সারা
কি তাহারা
বলে ?
পাখ পাখালি
তোর রাখালি
চোখ বাঁকালি
ক্যানো ?
আর পারিনা
ধার ধারিনা
ঠিক কারিনা
য্যানো ! (হুহ !)

জাল বুনে
ঘর কুনে
রাগ শুনে
দাগ গুনে ।
ভাঙ্গা মন
দুঃখ ক্ষন
আশা কোন ?
অ-ন-শ-ন !
চল যাই
তরী বাই
দেরি নাই
বাধা পাই ।
হারবোনা
পারবোনা
ছারবোনা
ঘর-কোনা !

একটি পরী
দেয়াল ঘড়ি
আহা মরি !
কি যে করি !
নগ্ন পায়ে
মগ্ন হয়ে
সফেদ গায়ে
চলছে বাঁয়ে
কিসের তরে
তাহার পরে
তাকিয়ে মরে
হৃদয় ঝরে
মাথায় চুলে
হাওয়ায় দুলে
দুহাত বুলে
(য্যানো)নদীর কুলে !
চলন যেথা
নিরব সেথা
স্বরব কে তা ?
পরীর গায়ে
রোদের নায়ে
ডুববে হায়এ
ভুবন একা
পরীর দেখা
পেয়েই শেখা
আলোর রেখা ।

পাহার আছে
আহার আছে
কাহার পাছে
(ক্যানো) বাহার লাছে ?
সোনার বালা
মনার জ্বালা
কণার মালা
দিনার আলা
(তবু) হৃদয় কালা !
আশার আলো
বাসার ভালো
নাহার জ্বালো
(সেকী!) পাহার পালো ?
(নাহ!) শুন্যে যাবো
উন্যে যাবো
নাইবা পাবো
নিখোজ রবো !
(বলো) ক্যানো অ্যামন
য্যামন ত্যামন ?
(হুহ!) কী হয়েছে
কী রয়েছে
কী বয়েছে (তোমার)?
আমি যদি
একাই নদী
(তুমি) বাধা ক্যানো ?
আলো আনো
দেখবে জানো!
শুন্য কত বড় !
(তুমি) শুধুই কেঁদে মরো !

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *