সোনার বিস্কুট/বার এবং দুদকের ল্যাব ও মানবাধিকারঃ


খবরঃ নকল ও নিম্নমানের বিস্কুট তৈরি ও বাজার জাত
করার অভিযোগে ধোলাই খাল থেকে বেকারীর মালিক আটক ।
বেকারীতে সিলগালা ।

সম্প্রতি ঢাকার রামপুরা থেকে উদ্ধার হওয়া সোনার বার
মামলার তদন্তের অংশ হিসেবে মহানগর ডিবি পুলিশ এ
অভিযান পরিচালনা করে ।
সম্প্রতি বাংলাদেশের বিভিন্ন এয়ারপোর্টে বিপুল পরিমান সোনা
উদ্ধার করা হয় । গত সপ্তাহে রামপুরা এলাকায় সোনা চোরাচালান
চক্রের একটি গাড়ি আটক করে পুলিশ । পরিত্যাক্ত অবস্থায় গাড়ি
ও সোনার বার উদ্ধার করে সংশ্লিষ্ট থানায় জমা দেওয়া হয় । সব
গুলো বার জমা দেওয়া হয়নি এমন অভিযোগের ভিত্তিতে ডিবির


খবরঃ নকল ও নিম্নমানের বিস্কুট তৈরি ও বাজার জাত
করার অভিযোগে ধোলাই খাল থেকে বেকারীর মালিক আটক ।
বেকারীতে সিলগালা ।

সম্প্রতি ঢাকার রামপুরা থেকে উদ্ধার হওয়া সোনার বার
মামলার তদন্তের অংশ হিসেবে মহানগর ডিবি পুলিশ এ
অভিযান পরিচালনা করে ।
সম্প্রতি বাংলাদেশের বিভিন্ন এয়ারপোর্টে বিপুল পরিমান সোনা
উদ্ধার করা হয় । গত সপ্তাহে রামপুরা এলাকায় সোনা চোরাচালান
চক্রের একটি গাড়ি আটক করে পুলিশ । পরিত্যাক্ত অবস্থায় গাড়ি
ও সোনার বার উদ্ধার করে সংশ্লিষ্ট থানায় জমা দেওয়া হয় । সব
গুলো বার জমা দেওয়া হয়নি এমন অভিযোগের ভিত্তিতে ডিবির
তদন্ত দল তিন পুলিশ সহ ৫ জনকে আটক করে । তাদের
জিজ্ঞাসাবাদে প্রাপ্ত তথ্য বিশেষণ করে তদন্ত দল ভীষণ বিভ্রান্তিতে পড়ে । কারণ-
> ধরা পরা ৫ জনের মধ্যে তিন ক্যান্ডি বারে আসক্ত পুলিশ সদস্য বলছে “স্বাদে ক্যাডবেরীর চেয়ে ভাল” – এমন তথ্য পেয়ে ১৬৫ টি বার তাঁরা ৫ জন ভাগ করে নেয় । তবে স্বাদ মোটেও ভাল নয় , তাই কিছু বার তাঁরা আত্মীয় স্বজনদের কেও উপহার হিসেবে দেয় । এই তথ্যের সত্যতা পাওয়া যায় , তাঁদের শ্বশুর বাড়ির ফ্রিজ থেকে কিছু বার উদ্ধার করা হয় ।
> অন্য দিকে ধৃত পুলিশের দুই সোর্স জানায় “স্বর্ণ মেশানো বিস্কুট যৌন উত্তেজনা বর্ধন করে ও বিশেষ সময়ের দুর্বলতা কমায়” – এমন তথ্য জানা থাকায় তারা স্বর্ণের বিস্কুট নিতে আপত্তি করেনি । এবং এ বিস্কুট তাদের বহু দিনের পুরনো সমস্যা থেকে মুক্তি দিয়েছে । বান্ধবীরা তাদের কে বিয়ের করতে রাজী হয়েছে ।
বার না বিস্কুট না সত্যিকারের চোরাচালানের সোনা তা যাচাই করতে দু,দ,কে,র ল্যাবরেটরীতে উদ্ধার করা বার পাঠানো হয় ।
এই সংবাদ পেয়ে কাস্টমস কর্তৃপক্ষও এয়ারপোর্টে আটক সোনার বারও দুদকের ল্যাবে পরীক্ষার জন্যে পাঠায় । দুইদিন পর গোলাম রহমান এক সংবাদ সম্মেলন করে জানান রামপুরা থানা ও কাস্টমস থেকে প্রাপ্ত বার গুলো আমাদের বিশেষজ্ঞ গণ পুনঃ পুনঃ পরীক্ষা করেও সোনার অস্তিত্ব খুঁজে পায়নি । বার বা বিস্কুট আকৃতির এই সোনালী বস্তুগুলো যত্রতত্র ফেলে রাখা হয় সম্ভবতঃ প্রশাসনকে ব্যস্ত রাখার জন্যে । এরকম দৃশ্যপট থেকে নজর অন্যত্র সরিয়ে আসল সোনাগুলো পাচার করার এটা বহু পুরনো কৌশল । গোলাম রহমান আরও বলেন আমাদের ইনটেলিজেন্স উয়িং এই সোনালী বস্তুগুলোর উৎসের সন্ধান জারী রেখেছে ।
সংবাদ সম্মেলন শেষ হওয়ার দুই ঘণ্টার মধ্যে ধোলাইখালে অভিযান চালানো হয় ।
আটক কৃতদের আদালতের নির্দেশে ১৪৪ দিনের রিমান্ডে আনা হয়েছে । এই সংবাদ লেখা পর্যন্ত প্রাপ্ত সর্বশেষ খবরে বেকারীর মালিকদের গ্রেপ্তার ও রিমান্ডের তীব্র প্রতিবাদ এসেছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন থেকে । কমিশনের চেয়ারম্যান মিজানুর বলেন – ধোলাই খালে যেখানে আস্ত গাড়ী চোখের পলকে বদলে যায় , নানা প্রকার ইলেক্ট্রনিক্স সামগ্রী প্যারেন্ট কোম্পানীর চেয়েও নিখুঁত ফিনিশিং হয় , সেখানে সেইসব মিমিক্রি আর্টিস্ট দের স্পেয়ার করে বেকারীর মালিক কে আটক করা ৫ জানুয়ারীর নির্বাচনের চেয়েও হাস্যকর প্রহসন । সংবাদ সম্মেলন শেষ হওয়ার আধ ঘণ্টা পর জানা যায় হুসেইন মোঃ এরশাদের সাথে সাভার ক্লাবে গলফ খেলছেন মানবাধিকার চেয়ারম্যান । ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান অবশ্য জানাতে পারেন নি হঠাৎ কি রোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি সি এম এইচ এ ভর্তি হয়েছেন ।

৪ thoughts on “সোনার বিস্কুট/বার এবং দুদকের ল্যাব ও মানবাধিকারঃ

  1. স্যাটায়ার লেখার চেষ্টাকে
    :মানেকি: :মানেকি: :মানেকি:
    স্যাটায়ার লেখার চেষ্টাকে সাধুবাদ জানাচ্ছি। আরও লেগে থাকুন এই লাইনে। আপনার হতেও পারে। 😀

  2. ধন্যবাদ ডাঃ আতিক , এটা
    ধন্যবাদ ডাঃ আতিক , এটা স্যাটায়ার না , এটা একটা পরাবাস্তব সংবাদ বিশ্লেষণ । যাদের কথা উল্লেখ করা হয়েছে , তাঁরা সবাই দায়িত্ব পালনের নামে মশকরা করতেছে । তাঁরা বাস্তবের ভাড় । সাংবিধানিক ভাড় , আরকি । সেই কথাই ভাড়ামো করে বলা আর কি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *