বিশ্বের শ্রেষ্ঠ ৫ জন হ্যাকার ও তাদের হ্যাকিং নিয়ে দু একটি কথা

01.Gary McKinnon: সেরা হ্যাকারদের মধ্যে যার নাম প্রথমেই মনে আসে তিনি Solo হিসেবে পরিচিত।স্কটিশ কন্সপিরেসির এই থিয়োরিস্ট U.S এর এয়ার ফোর্স, আর্মি, ডিপার্টমেন্ট অব ডিফেন্স, নাসা, নেভির মত বড় বড় নেটওয়ার্কে অবৈধভাবে প্রবেশ করে বিশ্বরেকর্ড করেন। গ্লোবাল এনার্জি ক্রাইসিস সমাধানের
নিমিত্তে এগুলো থেকে তিনি এলিয়েন স্পেসক্র্যাফট এর যাবতীয় প্রমাণাদি চুরি ও নষ্ট করেন যা ইউএস

01.Gary McKinnon: সেরা হ্যাকারদের মধ্যে যার নাম প্রথমেই মনে আসে তিনি Solo হিসেবে পরিচিত।স্কটিশ কন্সপিরেসির এই থিয়োরিস্ট U.S এর এয়ার ফোর্স, আর্মি, ডিপার্টমেন্ট অব ডিফেন্স, নাসা, নেভির মত বড় বড় নেটওয়ার্কে অবৈধভাবে প্রবেশ করে বিশ্বরেকর্ড করেন। গ্লোবাল এনার্জি ক্রাইসিস সমাধানের
নিমিত্তে এগুলো থেকে তিনি এলিয়েন স্পেসক্র্যাফট এর যাবতীয় প্রমাণাদি চুরি ও নষ্ট করেন যা ইউএস
আদালতের ভাষ্যমতে প্রায় $৭০০০,০০০ ক্ষতির সমতুল্য। ২০০২ সালে ইউ এস আর্মির সার্ভার স্ক্রিনে “Your security system is crap,” it read. “I am Solo. I will continue to disrupt at the highest levels.” এই ম্যাসেজ দেখা দিয়েছিল যা তিনিই করেছিলেন। Large scale hackings এর সূচনা করার মধ্যে দিয়ে তিনি ইউ এস আর্মির সার্ভার এ হামলা করেন। হামলার কারণ হিসাবে উল্লেখ করতে তিনি বলেন, “ আমার বিশ্বাস ছিল তারা এমন কিছু তথ্য সেখানে লুকিয়ে রেখেছিল যা সকলের জানা দরকার।
02.Kevin Mitnick: বিশ্বের সুপরিচিত ও ভয়ংকর হ্যাকারদের মধ্যে মিটনিক একজন যিনি আখ্যায়িত হয়েছেন The most wanted computer criminals in United States এবং The most dangerous hacker in the World হিসেবে। টাচ টোন এবং ভয়েস কন্ট্রোলের মাধ্যমে সেলফোন ব্যবহার করে মিটনিক কম্পিউটার নেটওয়ার্ক এর আক্সেস নিতেন। মটোরোলার মত বৃহৎ কম্পিউটার নেটওয়ার্ক এই
জিনিয়াসের দ্বারা হ্যাকড হয়েছিল যা তাকে সেই দিনগুলিতে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে নিয়ে এসেছিল।
03.Jonathan James: এবার যার কথা বলব তার কাহিনী শুনে আপনারও হ্যাকার হতে ইচ্ছে করবে।১৬ বছর বয়সের আমেরিকান এই কিশোর হ্যাকিংকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে গ্রহন করেছিলেন যা তাকে ১৬ বারেরও
বেশি কারাগারে নিয়ে গিয়েছিল।
ইউএস ডিফেন্স ডিপার্টমেন্টের
ওয়েবসাইট তার এই চ্যালেঞ্জের
মধ্যে পড়েছিল। ইউ এস ডিফেন্স
সার্ভার থেকে তিনি প্রায় তিন
হাজার অতিগোপন বার্তা ও অনেক
ব্যবহারকারীর পার্সওয়ার্ড
‘চুরি করেছিলেন। ১.৭ মিলিয়ন
ডলারের নাসা সফটওয়্যার
চুরি করে নাসার সার্ভার ও
সিস্টেমকে শাটডাউন করতে বাধ্য
করেছিলেন তিনি।
চিন্তা করতে পারেন নাসার
সিস্টেম শাটডাউ!
সাইবারস্পেসে তার এই অস্বাভাবিক
ব্যবহার জেমসকে ১০ বছর কম্পিউটার
স্পর্শ করা থেকে বিরত রাখতে বাধ্য
করেছিল!!!
04. Adrian Lamo: মাইক্রোসফট, ইয়াহু, সিটিগ্রুপ, ব্যাংক
অব আমেরিকা, সিঙ্গুলার এবং দ্য
নিউইয়র্ক টাইমস এর কম্পিউটার
নেটওয়ার্ক ব্রেকডাউন করে Lamo
সর্বপ্রথম বিশ্বরেকর্ড করেন। হোমলেস
হ্যাকার নামে পরিচিত বিখ্যাত এই
হ্যাকারকে ২০০২ সালে New York
আদালতের নির্দেশে এই আচরনের
কারনে ৬৫,০০০ ইউএস ডলার
জরিমানা গুনতে হয়েছিলেন। ২০১০
সালে Bradley Manning কতৃক
বাগদাদে বিমান আক্রমনের ভিডিও
উইকিলিকস এর মাধ্যমে তিনিই প্রকাশ
করেন।
বর্তমানে তিনি একটি অলাভজনক
প্রতিষ্ঠানের সাথে কাজ করছেন।
05.George Hotz: ২০১১ সালে সনি এরিকসন এর
প্লেষ্টেশন জেলব্রেক
করে তিনি পরিচিতি লাভ করেন।
তবে তার বিচার কার্য চলাকালীন
সময়ে তার সহযোগীরা তার
তৈরি পদ্ধতি জনসমক্ষে প্রকাশ
করে যার ফলশ্রুতিতে এনিনমাস
হ্যাকারগ্রুপ সনির
সার্ভারে হামলা করে প্রায় ৭৭
মিলিয়ন গ্রাহকের তথ্য চুরি করে।
তবে তিনি এ বিষয়ে তার সম্পৃক্ততায়
অস্বীকৃতি জানায়। তিনি বলেন “
একটি সার্ভার এ আক্রমন করে শুধু
ইজজার এর তথ্য চুরি করার মতো কাজ’
তিনি হলে করতেন না কারণ
এটি মোটেও সন্তোষজনক নয় অন্তত তার
জন্য।

সূত্র :- http://www.techtunes.com.bd/tips-and-tricks/tune-id/262476

৪ thoughts on “বিশ্বের শ্রেষ্ঠ ৫ জন হ্যাকার ও তাদের হ্যাকিং নিয়ে দু একটি কথা

  1. লেখাটি প্রথমে টেকটিউনস ব্লগে
    লেখাটি প্রথমে টেকটিউনস ব্লগে প্রকাশ করা হয় ১২ ডিসেম্বর ২০১৩। আর আপনি টোটাল কপি করে পোষ্টায়ে দিলেন কোন প্রকার কৃতজ্ঞতা বা সূত্র ছাড়াই। :তালিয়া: :ভাবতেছি: :ভাবতেছি:

      1. সেক্ষেত্রে প্রথমেই সূত্র
        সেক্ষেত্রে প্রথমেই সূত্র দেওয়া প্রয়োজন ছিল। ধন্যবাদ পরবর্তীতে এডিট করে সূত্র যোগ করে দেবার জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *