শুন্যকাব্য

যদি তাই হবে
তবে কেনো এ বিশ্বজয় ?
কেনো আকাশ পানে ছোটা ?
কেনো সমুদ্র তলে ?
কেনো জীবন বাজী রেখে
হিমালয়ের চুরায় ওঠা ?
কেনো বিজ্ঞান , প্রযুক্তি
কেনো জ্ঞান , কেনো দর্শন ?



১.সভ্যতা

যদি তাই হবে
তবে কেনো এ বিশ্বজয় ?
কেনো আকাশ পানে ছোটা ?
কেনো সমুদ্র তলে ?
কেনো জীবন বাজী রেখে
হিমালয়ের চুরায় ওঠা ?
কেনো বিজ্ঞান , প্রযুক্তি
কেনো জ্ঞান , কেনো দর্শন ?
কেনো মহাপ্রানদের
লক্ষ বছরের সাধনা ??
যদি তাই হবে
তবে সময় কেনো এগুলো ?
কেনো মানুষ গুহা ছেরে
অট্টালিকায় আসলো ?
কেনো ঘোড়া ছেরে রেলগাড়ি চরলো ?
কেনো জাহাজ , কেনো উড়োজাহাজ ?
কেনো পৃথিবী হাতের মুঠোয় ?
যদি পিছনেই ফিরে যাবো
তবে কেনো এগুলাম ?
যদি মানুষই হয় বেশ্যা ,
বিধর্মি , নাস্তিক , শয়তান….
তবে কেনো বলি ‘মানুষ সমান’ ??
যদি তাই হবে ,
তবে কেনো মানবতা ???

২.পথভ্রষ্ট

নষ্ট ভ্রষ্ট বিপথগামী কুলাঙ্গার
ওরা হাজার বছরের চেনা ঘর ভেঙ্গে ফেলতে চায় ,
অসভ্য অসামাজিক
সমাজে প্রতিষ্ঠিত কাঠামো আর সুষম স্তর মানে না ,
বেয়াদপ অভদ্র
কথায় কথায় কারন খোজে ,
চিরায়িত জ্ঞানের প্রাচীর ভেঙ্গে অবান্তর মিথ্যা প্রতিষ্ঠিত করতে চায় ,
অসংযমি
চেনা জগতের সীমানাকে ওরা শুন্যে মিলাতে চায় ।
ওদের ধ্বংশ হউক।।

৩.মিছিল

সীমানা পেরুনোর সাহস নেই যাদের
নতুন কিছু করতে যারা ভয় পায়
নতুন দিনের আহ্বানকে ঘৃনা করে যারা
প্রাণপনে আকরে রাখে কুসংস্কার
অন্ধকার যাদের প্রিয়
সামান্য আলোতেও যারা ছটফট করে
তাদের জন্য এ পৃথিবী নয় ।
আলোক মশাল নিয়ে নব্য তরুণদের কুচকাওয়াজ আসছে ।
এ শহর আলোকিত হবে শিঘ্রই ।

১ thought on “শুন্যকাব্য

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *