পুতুল



ততোদিনে হৃদয় আমার পচে-গলে গ্যাছে
আমার হাত পা যে সব সুতোয় বাঁধা
নড়ে চড়ে , হাটে চলে ; চোখের পলক না পড়ুক -
কি দারুণ পুতুলের মত , সেলাই আমার
যেথায় সেথায় । আমি হাটি চলি
এ ঘর থেকে ও ঘরে যাই
আমার কোনোই বোধ হয় না

তবু কেউ একজন সেদিন আমায় থমকে দিল
নড়ন চড়ন আমার হঠাত বন্ধ হল । আমার এই দুচোখে
সুতো নেই , তাই পলক পড়ে না ; তবুও
চোখ গুলো কেন জ্বালা করে ? আর সিলাই করা
মুখটা আমার
একদম গেল ভিজে !

সুতাওয়ালা , তোমার দোহাই ; একটু থামো -
চোখ জ্বলে যায় ।
তুমি একটু থামো একটু বোঝ - হৃদয় আমার
অনেক আগেই বন্ধ । আমি কেমন তবুও হাটি চলি
তোমার দয়া হয়না ?
এমন কেনো চোখ দুটোতে
দাওনি সুতো আমায় ?

৪ thoughts on “পুতুল

  1. বোঝার ব্যর্থ চেষ্টা করছি,আদতে
    বোঝার ব্যর্থ চেষ্টা করছি,আদতে বোঝার কিছু আছে কিনা বুঝতে পারছি না। :ভাবতেছি:

    1. আপনাদের কথা শুনার পর কবিতা
      আপনাদের কথা শুনার পর কবিতা পইড়া দেখি নিজেও বুঝতেছিনা 😛 কি জিনিস বানাইলাম :চশমুদ্দিন: :হাহাপগে: :হাহাপগে: :হাহাপগে:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *