বিদায় কবিতাঃ নিরাশার বুদবুদ ওঠা ‘নৈরাজ্যবাদের’ বিক্রি হয়ে যাওয়া মদ (Misao Fujimura’s suicide note)

স্বর্গ- মর্ত্যের মাঝের সূক্ষ রেখা
সামন্তাবসানের প্রশান্তি,
পার্থিবতাকে
মহীয়ান করে তুলেছি।

ক্ষুদ্রতার পাঁচটি জাররা
কোমল শান্ত ভূমি
ভঙ্গুর অথবা গতিশীল;
দিনশেষে সাদা ভাতের স্বপ্ন খুব বেশি নৈর্ব্যক্তিক হয়ে যায়।



স্বর্গ- মর্ত্যের মাঝের সূক্ষ রেখা
সামন্তাবসানের প্রশান্তি,
পার্থিবতাকে
মহীয়ান করে তুলেছি।

ক্ষুদ্রতার পাঁচটি জাররা
কোমল শান্ত ভূমি
ভঙ্গুর অথবা গতিশীল;
দিনশেষে সাদা ভাতের স্বপ্ন খুব বেশি নৈর্ব্যক্তিক হয়ে যায়।

সত্যের অধিবাস্তবতা,
প্রাণের বিপর্যয়,
আদিমতার কানাগলি
চোখের পলকেই হয়তো চিনে ফেলা যায়;
কিন্তু ততক্ষণে সব শেষ।

বর্ণনার অযোগ্য উদ্বেগের আবাদ,
গ্লানির মীমাংসা,
সব জিজ্ঞাসার উত্তর,
আমার চলে যাওয়ার আগে নাই বা হোক।

নেশায় বুঁদ হয়ে থাকি,
অযাচিত বাঁধটাকে খুব উঁচু মনে হয়,
অভাবে পড়ে স্বভাবগুলো
দৌড়ে পালাতে থাকে।

শেষ না হতেই আবার ক্ষণিকের শুরু,
আত্মসমর্পণই বুঝি একমাত্র পথ।

হতাশা ও বিষন্নতা,
বেড়ে ওঠে জমজ-ভাই হয়ে;
আশা মিলায় নিরাশায়
যখন ফেরার আর পথ থাকে না।

১ thought on “বিদায় কবিতাঃ নিরাশার বুদবুদ ওঠা ‘নৈরাজ্যবাদের’ বিক্রি হয়ে যাওয়া মদ (Misao Fujimura’s suicide note)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *