জামায়াত বিএনপিঃ কে কার???

এতদিন ভাবতাম, জামায়াত(পরে ইসলাম শব্দটা বসাতে পারলাম না) বিএনপি’র জোটের একটা শরিক দল। আজ বুঝেছি, আমার ভাবনাটা ছিল বিরাট একটা ভুল। আসলে বিএনপিই জামায়াতের একটা অংশ, নতুবা জামায়াত বিএনপিকে টাকা দিয়ে কিনে ফেলেছে। জামায়াতের আছে অঢেল টাকা। তাঁরা তরুনদেরকে ইহকালে মানুষের কল্যানের কথা না শিখিয়ে পরকালের সুখের কথা শিখায়। শিখায় বোমা মেরে আর পাঁচজন মানুষকে হত্যা করে নিজে মারা গেলে সে শহীদ, বেহেশতে তার জায়গা পাকা। অথচ নিজেরা কখনো সামনে আসে না। নিজেদের সন্তানদের কখনো বিক্ষোভ মিছিল, ভাংচুর, এসব কর্মকান্ডে পাঠায় না। মুখে সবাইকে পরকালের চিন্তা করতে বলে, কিন্তু মুখোশের আড়ালে গড়ে তোলে টাকার পাহাড়। বিএনপিকে কেনা তাঁদের কাছে কোন ব্যাপার না। বিএনপিরও তাঁদের কাছে বিক্রি হয়ে যাওয়া কোন আশ্চর্যের ঘটনা না। ভাবতে অবাক লাগে, জিয়া নাকি একাত্তরের যুদ্ধে সেক্টর কমান্ডার ছিলেন! যদি তাই হত তাহলে আজ কি খালেদা এইসব নষ্ট, বাঙালীর কলঙ্ক রাজাকারদের সমর্থন জানাতে পারতেন? অবশ্য ওনার স্বামী যখন কর্ণেল তাহেরকে গোপন বিচার নামক প্রহসনে ফাঁসিতে ঝোলাতে পারে তাঁর যোগ্য স্ত্রী হিসেবে ওনারও গায়ের রং পরিবর্তন করাটা আশ্চর্য কিছু না, যখন সার্জারি করে নিজের চেহারাটাই বদলে ফেলতে পারলেন! তবে আস্তে আস্তে বাহিরের সৌন্দর্য ভেদ করে ভিতরের কদর্য রূপটা বের হচ্ছে, জামায়াতের সাথে পার্থক্যটা কমতে কমতে শুণ্যের কোঠায় নেমে গেছে। ওনার স্বামী রাজাকারদের দিয়েছিলেন এই মাটিতে রাজনীতি করার অধিকার, আর উনি দিলেন গাড়িতে লাল সবুজের পতাকা ওড়ানোর অধিকার। এখনতো পুরোপুরি একাত্ম হয়ে গেছেন। মনে হচ্ছে জামায়াত ছাড়া ওনারা বাথরুমেও যেতে পারেন না। হিন্দুদের মন্দির ভেঙ্গেছে নাকি পুলিশ, উনি কি আমাদের অন্ধ মনে করেন? বাঙালীদের জাতীয় বেঈমান হিসেবে উনি নিজের জায়গাটা পুরোপুরি পাকাপোক্ত করলেন আজকে।
ওনার কাছে এখন মুক্তিযোদ্ধাদের যুদ্ধের কোন দাম নেই। শহীদদের স্বজনদের চোখের পানির কোন দাম নেই। লক্ষ বীরাঙ্গনার আর্তচিত্‍কারের কোন দাম নেই। যুদ্ধ করে অর্জন করা লাল সবুজের পতাকার কোন দাম নেই। সর্বোপরি রাজাকারদের সাখে ওনার দলের কোন পার্থক্য নেই।
তাহলে বাঙালীদের কাছে ওনার দাম এরপর আর থাকে কি করে?

৫ thoughts on “জামায়াত বিএনপিঃ কে কার???

  1. বিএনপি এখন জামাতের কুশিলব।
    বিএনপি এখন জামাতের কুশিলব। ফ্যাশন শো করায় গোলাপী বস্ত্র উথারিয়া। 😀

  2. জামাত বিএনপি একি মায়ের পেটের
    জামাত বিএনপি একি মায়ের পেটের জমজ ভাই। আর এই ভাইয়ের ছোবলেই বিএনপির মৃত্যু হবে

    1. বিএনপি’র কি আসলেই মৃত্যু
      বিএনপি’র কি আসলেই মৃত্যু হবে???? এই দল বেঁচে থাকলে বাঙালী জাতির অস্তিত্ব থাকবে কিনা সন্দেহ আছে।

  3. গোলাপী ম্যাডাম সংবাদ সম্মেলন
    গোলাপী ম্যাডাম সংবাদ সম্মেলন করে জানিয়ে দিলেন, ….বিএনপি এখন জামাতের পেটে………. তাদের আর বের হবার উপায় নাই। তাদের এখন জামাতের পেটে হজম হয়ে শৌচাগারে পরতে হবে। আর যদি বদ হজম হয়ে উল্টি করে বের হয়ে আসেও তা হলে, বাংলাদেশের জনগণ তাদের ডাস্টবিনে নিক্ষেপ করবে…………… জয় বাংলা……..

  4. আগে জামায়াত ছিল বিএনপি’র অংশ।
    আগে জামায়াত ছিল বিএনপি’র অংশ। বর্তমানে বিএনপি হচ্ছে জামায়াতের জাতীয়তাবাদী শাখা। জামায়াতের কাজ হচ্ছে, যাকে ধরবে শেষ করে ছাড়বে। বিএনপি’র অগনিত কর্মী, সমর্থকদের জন্য আমার খুব আপসুস হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *