পুনর্জন্ম

তুমি চোখ তুলে তাকাতে এক পলক
ফিরিয়ে নিতে ন্যানো-সেকেন্ড।
তোমার চোখের তারায় হাজার বর্ষের আলো, টানেল
পেরিয়ে পুরাতন নগরী, বন্দর, এক পুরাণ মহাকাব্য।

আদিম নগরীর প্রাসাদে বা রাজপথে, প্রান্তরে
হোলি উৎসবরত সব্যসাচী রক্তাক্ত প্রান্তর
ছেড়ে ফিরে যেতে মুখোমুখি!
ফের চোখ তুলে তাকালে-
ফিরিয়ে নিতে ন্যানো সেকেন্ড।

তোমার মখমল গায়ে সটান গ্রীবা, বক চাহনি
কুর্নিশরত সেনানীর নিয়ম ভুলে এক উদ্ধত সাধারন মুখোমুখি!
অথবা হেরেমের সেবাদাসী ভীরু পায়ে চাহনি
প্রহরারত প্রহরী বা পেয়াদার মুখোমুখি
ফের চোখ তুলে তাকালে
ফিরিয়ে নিতে ন্যানো-সেকেন্ড।

অন্ধকার গুহায় ছিলে দলহীন নির্জন

তুমি চোখ তুলে তাকাতে এক পলক
ফিরিয়ে নিতে ন্যানো-সেকেন্ড।
তোমার চোখের তারায় হাজার বর্ষের আলো, টানেল
পেরিয়ে পুরাতন নগরী, বন্দর, এক পুরাণ মহাকাব্য।

আদিম নগরীর প্রাসাদে বা রাজপথে, প্রান্তরে
হোলি উৎসবরত সব্যসাচী রক্তাক্ত প্রান্তর
ছেড়ে ফিরে যেতে মুখোমুখি!
ফের চোখ তুলে তাকালে-
ফিরিয়ে নিতে ন্যানো সেকেন্ড।

তোমার মখমল গায়ে সটান গ্রীবা, বক চাহনি
কুর্নিশরত সেনানীর নিয়ম ভুলে এক উদ্ধত সাধারন মুখোমুখি!
অথবা হেরেমের সেবাদাসী ভীরু পায়ে চাহনি
প্রহরারত প্রহরী বা পেয়াদার মুখোমুখি
ফের চোখ তুলে তাকালে
ফিরিয়ে নিতে ন্যানো-সেকেন্ড।

অন্ধকার গুহায় ছিলে দলহীন নির্জন
আগন্তুকের সতর্ক পা- হরিণী বুকে চপলতা
একরাশ বিস্ময়, ছিলোনা ভয়
ফের চোখ তুলে তাকালে
ফিরিয়ে নিতে ন্যানো সেকেন্ড।

বিংশ শতাব্দীর আগুন খেলার মাঠ, রাজপথ
যুদ্ধাহত সৈনিক বা গত যৌবন প্রৌঢ়
ইঞ্জেশান বা অক্সিজেন মাস্ক লাগিয়ে দিয়ে
ফিরে যেতে যেতে চোখ তুলে তাকালে
ফিরিয়ে নিতে ন্যানোসেকেন্ড

তোমার চোখের তারায় নগর, সভ্যতা,
লেখা পুরাণ মহাকাব্য
ফিরে ফিরে তাকাতে অবিনশ্বর! পুনর্জন্মের মহড়া!!

৬ thoughts on “পুনর্জন্ম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *