আত্মকথন

ধারণ ক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে চলছিল বাসটি,গন্তব্য স্থলের প্রায় ২ কিলোমিটার আগে চাকা হয়ে গেল পাঞ্চার। যাত্রীদের মধ্যে কেউ কেউ ভাড়া দিল বটে,কিন্তু বেশির ভাগ যাত্রীই আনন্দ চিত্তে হুড়মুড়িয়ে বাস থেকে নেমে ভাড়া না মিটিয়েই চলে যাচ্ছিল,যেন মহা অন্যায় কাজ করে ফেলেছে ড্রাইভার,এদিকে বেচারা ড্রাইভার আর হেল্পার অপরাধীর চোখে সবার চলে যাওয়া দেখছিল . আমিও গেলাম বৈকি।

প্রায় আধা কিলোমিটার হেটে চলে এসেছি মনের খচখচানি নিয়ে। কি মনে করে আবার উল্টো হাটা শুরু করলাম। আবার আধা কিলোমিটার হেটে গিয়েই হেল্পারের হাতে ভাড়াটা গুজে দিয়ে আসলাম, মনের খচখচানি দূর হল।


ধারণ ক্ষমতার অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে চলছিল বাসটি,গন্তব্য স্থলের প্রায় ২ কিলোমিটার আগে চাকা হয়ে গেল পাঞ্চার। যাত্রীদের মধ্যে কেউ কেউ ভাড়া দিল বটে,কিন্তু বেশির ভাগ যাত্রীই আনন্দ চিত্তে হুড়মুড়িয়ে বাস থেকে নেমে ভাড়া না মিটিয়েই চলে যাচ্ছিল,যেন মহা অন্যায় কাজ করে ফেলেছে ড্রাইভার,এদিকে বেচারা ড্রাইভার আর হেল্পার অপরাধীর চোখে সবার চলে যাওয়া দেখছিল . আমিও গেলাম বৈকি।

প্রায় আধা কিলোমিটার হেটে চলে এসেছি মনের খচখচানি নিয়ে। কি মনে করে আবার উল্টো হাটা শুরু করলাম। আবার আধা কিলোমিটার হেটে গিয়েই হেল্পারের হাতে ভাড়াটা গুজে দিয়ে আসলাম, মনের খচখচানি দূর হল।

চলে আসছি আমি, নিজের অজান্তেই অজানার উদ্দেশ্যে প্রশ্ন ছুড়ে দিলাম,

সুখ,তুমি কি আছ টাকার গন্ধে?নাকি কোনো রমণীর আলিঙ্গনে?

কেউ একজন উত্তর দিল, আমি এর কোনোটাতেই নেই, আমি তোমার বিবেকের সাথেই গা লাগিয়ে চলি, বিবেকের কাছে হারতে শেখ . তাহলেই আমাকে পাবে।

বিবেক কে প্রশ্ন করি,তোমার যখন এতই শক্তি,তাহলে আসার সময় পাকিস্তানের জয়ে এত মানুষকে উল্লাস কর্তে দেকলাম কেন?

বিবেক মনে হয় একরাশ লজ্জা নিয়ে উত্তর দিল,তোমাদের মতো আমারো হারজিত আছে,আমাকেও তোমাদের মধ্যেকার কিছু বেইমানের জন্য হারতে হয়।

কেউই অপরাজেয় নয়,

১ thought on “আত্মকথন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *