দুঃখ সুখের বাহার

দুঃখের মাঝেই চিরস্থায়ী বসবাস, হয়তো হঠাৎ সুখের আলতো বাতাসে-
কিংবা উচ্ছলতায় মাখা কোনো ঝরো হাওয়া, ধুয়ে দিয়ে যায় সকল দুঃখ!
একটু পরেই হয়তো আবার সহসাই গড়ে ওঠে দুঃখ নামের কুৎসিত দুর্গ।
সুখ-দুঃখের সহবাসে কী বিচিত্র এই জীবন! ভালোই তো লাগে, খারাপ কী?
চলমান দুঃখের বেড়াজাল, আতঙ্ক, কষ্ট, হাহাকার অথবা চোখের পানি
নির্লজ্জতায় কখনো কখনো হতাশায় পরিপূর্ণ একটা মানুষ হয়ে যায় স্তব্ধ,
আবার চলে আসে হঠাৎ এক পশলা বৃষ্টির মত সুখ! শ্রান্ত করতে তাকে।
কখনো ক্ষুদ্র কণার মত ছড়িয়ে ছিটিয়ে সুখ গুলো ছোট্ট জীবনটার উপর-
পরতেই থাকে পরতেই থাকে! যদিও স্থায়ী হয় আসলে দুঃখেরই বসবাস!

দুঃখের মাঝেই চিরস্থায়ী বসবাস, হয়তো হঠাৎ সুখের আলতো বাতাসে-
কিংবা উচ্ছলতায় মাখা কোনো ঝরো হাওয়া, ধুয়ে দিয়ে যায় সকল দুঃখ!
একটু পরেই হয়তো আবার সহসাই গড়ে ওঠে দুঃখ নামের কুৎসিত দুর্গ।
সুখ-দুঃখের সহবাসে কী বিচিত্র এই জীবন! ভালোই তো লাগে, খারাপ কী?
চলমান দুঃখের বেড়াজাল, আতঙ্ক, কষ্ট, হাহাকার অথবা চোখের পানি
নির্লজ্জতায় কখনো কখনো হতাশায় পরিপূর্ণ একটা মানুষ হয়ে যায় স্তব্ধ,
আবার চলে আসে হঠাৎ এক পশলা বৃষ্টির মত সুখ! শ্রান্ত করতে তাকে।
কখনো ক্ষুদ্র কণার মত ছড়িয়ে ছিটিয়ে সুখ গুলো ছোট্ট জীবনটার উপর-
পরতেই থাকে পরতেই থাকে! যদিও স্থায়ী হয় আসলে দুঃখেরই বসবাস!
যার রয়েছে অনন্তকাল ছুটে চলার নিশ্চয়তা- তবুও বা খারাপ কিসে জীবনটা?
আনন্দময়-ই তো! বৈচিত্র্য তো চিরকাল-ই আনন্দের; মানুষের স্বভাবজাত!
কষ্টের বিহ্বলতায় যেমন আত্মায় সুখ পাই, উল্লসিত সুখেও তেমনি হই তৃপ্ত।
দুঃখ-সুখের কাটাকাটি ভুলে তাই বলতে হয়, জীবনটা অনেক আনন্দময়!
থাকুক জীবনে দুঃখের বেড়াজাল, ফিরে ফিরে আসা ক্ষণিকের সুখ ও কী নেই!
উপভোগ করবো তাই জীবন- যেভাবে অনুভব করি অস্থি-মজ্জার নিজ শরীর।
সুখ সেখানে নরম চামড়া, আর দুঃখ হোক তাতে দেহ গড়নের মূল কারুকার্য!

৬ thoughts on “দুঃখ সুখের বাহার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *