মুভির জবাব মুভি দিয়ে দিতে পারলাম না…

গুন্ডে মুভি নিয়ে ঝড় শুরু হয়ে গেছে।কেন? কারন সেখানে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ কে ভারত-পাকিস্তানের যুদ্ধ বলে চালিয়ে দেওয়া হয়েছে।
আচ্ছা ভাইয়া,আপনি কি এই ব্যাপারে নিশ্চিত, যে গুন্ডে মুভিতে আমাদের রক্তমাখা গৌরবের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে বিকৃত করা হয়েছে?হ্যা ভাই, আমি নিজ চোখে দেখছি,এরপরেইতো এটা নিয়ে ফেসবুকে তীব্র সমালোচনা করে যাচ্ছি,এবং একটি প্রতিবাদ সমাবেশের ইভেন্ট খুলেছি।

গুন্ডে মুভি নিয়ে ঝড় শুরু হয়ে গেছে।কেন? কারন সেখানে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ কে ভারত-পাকিস্তানের যুদ্ধ বলে চালিয়ে দেওয়া হয়েছে।
আচ্ছা ভাইয়া,আপনি কি এই ব্যাপারে নিশ্চিত, যে গুন্ডে মুভিতে আমাদের রক্তমাখা গৌরবের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে বিকৃত করা হয়েছে?হ্যা ভাই, আমি নিজ চোখে দেখছি,এরপরেইতো এটা নিয়ে ফেসবুকে তীব্র সমালোচনা করে যাচ্ছি,এবং একটি প্রতিবাদ সমাবেশের ইভেন্ট খুলেছি।
আচ্ছা,আপনি কি নিয়মিতই মুভি দেখেন?হ্যা ভাই, আমি একজন মুভিখোর,হলিউড, বলিউড,টালিউড এদের এমন কোন ভালো মুভি নাই যেগুলো আমি দেখি নাই।আর আমাদের ডালিউড, আমাদের দেশের কয়টা মুভি দেখেছেন?আমাদের দেশের কয়েকটা ভালো মুভির নাম বলেন তো?ইয়ে মানে…
এই হচ্ছে আমাদের অবস্থা।আমরা বিদেশীদের মুভি কেন, ওদের গু দেখলেও ঘি বলে সন্দেহ করি।আর নিজ দেশের ক্ষেত্রে?একজন ভালো বাঙ্গালী পরিচালকের নাম তো দুরের কথা, সাকিব,জলিল এর নিঃস্বার্থ ভালোবাসা টাইপ মুভি ছাড়া আর কোন ভালো মুভির নামই আমরা বলতে পারিনা।
যতটুকু বুঝতে পারি,মুভিকে একটি শক্তিশালী গণমাধ্যম বললে খুব বেশি ভুল বলা হবে না।বরং কমিয়ে বলা হবে।কারন আমরা দেশীয় আর্টফিল্ম গুলি না দেখলেও ভিনদেশী আর্টফিল্ম গুলি ঠিক গোগ্রাসে গিলে খাই।এবং এই ধরনের মুভি গুলিতে সবসময় অনেক গুরুত্বপুর্ন ম্যাসেজ, শিক্ষণীয় বিভিন্ন ধরনের বিষয় তুলে ধরা এবং বিভিন্ন ইনফরমেশন থাকে যা আমরা অনেক আগ্রহ নিয়ে দেখি।এবং চেতন অথবা অবচেতন মনে তা গ্রহন করি।
কিন্তু আমরা আমাদের দেশে এই ধরনের কোন মুভি তৈরি হতে দেই না।কারন আমরা এইসব মুভি গুলিকে না দেখেই খ্যাত মন্তব্য করে নাক সিটকাই।যার ফলে আমাদের হল গুলিতে মুভি গুলি চলে না। ফ্লপ হয়।প্রযোজনা সংস্থাগুলি আর্থিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়।যার ফলে তারা আর ইনফরমেটিভ কোন ভালো মুভি বানাতে সাহস করে না।
আমাদের দেশে আমাদের সংস্কৃতি, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস,বিভিন্ন রকম সামাজিক অসঙ্ঘতি,এইসব নিয়ে যে একেবারেই মুভি তৈরি হয়নি তা না।আমাদের দেশেও অনেক ভালো এবং গুনি চলচিত্র নির্মাতা ছিল এবং আছে।তাদের হাত ধরে অনেক ভালো ভালো মুভি তৈরিও হয়েছে।কিন্তু সেইসব মুভিগুলি কতোটা ব্যবসা সফল ছিল সেটা আমাদের অজানা নয়। খুব সাম্প্রতিক সময়ের একটা ছোট উদাহরন দিলেই সেটা পরিস্কার হয়ে যাবে।মাত্র মাস কয়েক আগে বলাকাতে এক তরুন পরিচালকের একটা ভালো মুভি ‘উধাও’দেখতে গিয়ে দেখি সেই হলে পাশাপাশি আরও একটা বাংলা কমার্সিয়াল (নাম ভুলে গেছি)মুভি চলতেছে।ঢুকে দেখি ‘উধাও’মুভিটি চলাকালীন সময়ে আমরা মাত্র ২০/৩০জন দর্সক ছিলাম।অথচ পাশাপাশি চলা ঐ কমার্শিয়াল(!)মুভিটির টিকেট পাওয়া যাচ্ছিলো না।
যাইহোক,মূল কথায় আসি।ভারত আমাদের সবচেয়ে গৌরবের যায়গায় হাত দিয়েছে।তারা আমাদের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃত করে নিজেদের যুদ্ধ বলে চালিয়ে দিচ্ছে।অবশ্যই এটার সরকার সহ তথা সমগ্র দেশবাসির পক্ষ থেকে তীব্র প্রতিবাদ করা জরুরী।এবং মুভিটি যেন নিষিদ্ধ হয় সেই দাবী তুলে আন্দোলন হওয়া জরুরী।
তবে হ্যা।আজকে বলিউড কেন, সয়ং হলিউড পর্যন্ত সাহস পেতো না অন্তত মুভির মত এইরকম একটি শক্তিশালী মাধ্যম ব্যবহার করে আমাদের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃত করার,যদি না আমরা আমাদের নিজেদের চলচিত্র শিল্প কে খ্যাত বলে নাক না সিটকিয়ে তাদের কে ভালো মুভি বানাতে উৎসাহী করতাম।
আজকে যদি আমাদের দেশেও আরও বেশি সংখ্যক মুক্তিযুদ্ধ এবং আমাদের ইতিহাস নিয়ে মুভি তৈরি হতো,এবং আমরা যদি সেগুলো হলে গিয়ে দেখে তারপর ভালো মন্দ সমালোচনা করতাম তাহলে সেই মুভি গুলি সফলতা পেতো, হয়তো আমাদের দেশের সীমানা ছাড়িয়ে তা বাইরেও প্রদর্সনী হতো।এবং আমাদের সত্যিকারের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস সীমানার বাইরের মানুষের কাছেও পৌঁছে যেতো।ফলে কেউ আর আমাদের মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃত করার সাহস দেখাতে পারতো না।
পরিশেষে এইটুকুই বলবো।মুভির জবাব মুভি দিয়ে দেওয়ার প্রয়োজন ছিল।কিন্তু বর্তমানে আমাদের চলচিত্র শিল্পের যে অবস্থা, তাতে করে সেই আশা খুব কম।তবু আশা রাখি অন্তত এখন যেন আমাদের চলচিত্র সংস্থার ঘুম ভাঙ্গে এবং আমরা দর্সকরাও যেন আমাদের দেশীও চলচিত্রের প্রতি একটু সদয় হই।
এবং আসুন আমরা সবাই প্রতিবাদ জানাই যেন ভারত সরকার খুব শীঘ্রই’গুণ্ডে’মুভিটা নিষিদ্ধ করতে বাধ্য হয়।

১৫ thoughts on “মুভির জবাব মুভি দিয়ে দিতে পারলাম না…

      1. সেই মানসিকতাও তৈরি হচ্ছে
        সেই মানসিকতাও তৈরি হচ্ছে ভাই… খুব বেশিদিন বাকি নেই, নতুন প্রজন্ম জবাব দেবে চলচ্চিত্র দিয়েই… :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ:

  1. আমার মনের কথাগুলোই বলেছেন
    আমার মনের কথাগুলোই বলেছেন জাড্য, মুভির জবাব দিতে হবে মুভি দিয়েই… আমরা বানাব সেই মুভি, খুব বেশি দেরি নেই আর… একটু ভরসা রাখেন এই প্রজন্মের উপর… এই প্রজন্ম মুভি দিয়েই উপযুক্ত জবাবটা দেবে…

    1. প্রজন্ম তৈরি হচ্ছে … আমাদের
      প্রজন্ম তৈরি হচ্ছে … আমাদের মেধা যদি অন্যসব ক্ষেত্রে সারা বিশ্বের কাছে প্রশংসিত হয় তাহলে মুভির ক্ষেত্রে কেন নয় ?

  2. গুন্ডে মুভিটা এমনেতেও দেখার
    গুন্ডে মুভিটা এমনেতেও দেখার যোগ্য মুভি না। ইতিহাস বিকৃতির জন্য এখন সবার নজরে আসছে। কিন্তু দুঃখের বিষয় মুভির জবাব মুভি দিয়ে দেওয়ার মত কোন অস্ত্র আমাদের হাতে নেই। চলচিত্র জগতে আমরা চরম পিছিয়ে।

  3. ভারতের একটা শ্রেণী উগ্র
    ভারতের একটা শ্রেণী উগ্র জাতীয়তাবাদের কারণে আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের গৌরবময় ইতিহাসকে বিকৃত করে । ছবিটির বিকৃত ইতিহাস কর্তন করার দাবী জানাচ্ছি । সরকারিভাবে এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে ।

  4. গুন্ডে কে যে পুন্দানি দিয়েছে
    গুন্ডে কে যে পুন্দানি দিয়েছে আইএমডিবি’তে …
    সর্বকালের সর্বনিকৃষ্ট চলচ্চিত্রের স্থান দখল করেছে এখন মুভিটি!!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *