অড্রে হেপবার্ন



অড্রে হেপবারন একজন জনপ্রিয় ব্রিটিশ অভিনেত্রী ছিলেন এবং ফ্যাশন আইকন হিসেবেও জনপ্রিয় ছিলেন ।

বাল্য কাল
– অড্রে হেপবার্ন এর জন্ম ১৯২৯ সালের ৪ মে বেলজিয়াম এর ব্রাসেলস এ । তাঁর পিতার নাম জোসেফ এন্থনি রাস্টন আর মার নাম ব্যারোনেস এলা । তাঁর পিতার চাকরীর সুবাদে তিনি তিন দেশে ঘুরে বেড়ানোর সুযোগ পান । তিনি ইংরেজি , ডাচ , ফ্রেঞ্চ ইটালিয়ান ভাষায় কথা বলতে পারতেন ।

বয়সন্ধি কাল এবং দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ – একটি খারাপ অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে অড্রের মা বাবা বিচ্ছেদ হয় । তার পর ১৯৬০ সালে রেড ক্রস এর মাধ্যমে ডাব্লিনে তিনি তাঁর বাবার দেখা পান এমং মারা যাওয়ার আগ অব্দি আর্থিক ভাবে সাহায্য করেন ।

দ্বিতীয় বিশ্বযুধের সময় অড্রের মা তাঁকে নিয়ে নেদারল্যান্ড এ চলে আসেন । সেই সময় তিনি এনিমিয়া এবং অপুষ্টির শিকার হন । তাঁর ভাষায় –

“I have memories. More than once I was at the station seeing trainloads of Jews being transported, seeing all these faces over the top of the wagon. I remember, very sharply, one little boy standing with his parents on the platform, very pale, very blond, wearing a coat that was much too big for him, and he stepped on to the train. I was a child observing a child.”

১৯৪৪ সালের মাঝে তিনি দক্ষ ব্যালে ডান্সার হয়ে ওঠেন । বিশ্ব যুদ্ধ তাঁর মনে এত টাই প্রভাব ফেলে যে তিনি ইউনিসেফ এর সাথে একাত্ম হয়ে কাজ করেন ।

পেশা – তিনি যুদ্ধের পর মার সাথে আমস্টারডামে চলে যান এবং তারপর লন্ডনে ভ্রমন কালীন সময় টুকটাক মডেলিং করে মাকে সাহায্য করেন । এর মাঝেই তিনি ফ্রেঞ্চ ঔপন্যাসিক কলেট এর নজরে পরেন যিনি তাঁর নাটক Gigi এর জন্য নতুন মুখ খুঁজছিলেন । অড্রে কে দেখেই তিনি চিৎকার দিয়ে ওঠেন । নাটক টি ২১৯ বার মঞ্চস্থ হয় এবং অড্রে স্বীক্রিতি স্বরূপ Theatre World Award পান ।

জনপ্রিয়তা – রোমান হলিডে সিনেমা করে তিনি বিপুল জনপ্রিয় হন । এ সিনেমায় তিনি প্রিন্সেস এ্যান এর ভুমিকায় অভিনয় করেন । বিপরীতে ছিলেন । গ্রেগ্রি পেক । এ সিনেমায় প্রথম পছন্দ ছিলেন এলিজাবেথ টেলর কিন্তু শেষ অব্দি ডিরেক্টর উইলিয়াম অয়েলর স্ক্রিন টেস্ট এর মাধ্যমে অড্রেকে নেন । তাঁর ভাষায় –

She had everything I was looking for: charm, innocence, and talent. She also was very funny. She was absolutely enchanting and we said, ‘That’s the girl!'”

রোমান হলিডের সাফল্যের পর তিনি ১৯৫৪ সালে Sabrina ছবিটি করেন এবং একি সাথে Academy Award for best Actress এবং Bafta Award এর জন্য মনোনীত হন ।

নিউ ইয়রক টাইমস এর এক সমালোচক তাঁর কথা বলতে গিয়ে বলেন ,

Somehow Miss Hepburn is able to translate [its intangibles] into the language of the theatre without artfulness or precociousness. She gives a pulsing performance that is all grace and enchantment, disciplined by an instinct for the realities of the stage.

Dutch in Seven Lessons , War and Peace , Breakfast at Tiffany’s , The Nun’s Story , Charade , My Fair Lady

মানবতার ডাকে

– তিনি ইউনিসেফ এর শুভেচ্ছা দূত হয়ে কিছুদিন কাজ করেন । তিনি ইথিওপিয়ার এক এতিম খানায় যান এবং খাবার এর ব্যবস্থা করেন । এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন ।,

“I have a broken heart. I feel desperate. I can’t stand the idea that two million people are in imminent danger of starving to death, many of them children, [and] not because there isn’t tons of food sitting in the northern port of Shoa. It can’t be distributed. Last spring, Red Cross and UNICEF workers were ordered out of the northern provinces because of two simultaneous civil wars… I went into rebel country and saw mothers and their children who had walked for ten days, even three weeks, looking for food, settling onto the desert floor into makeshift camps where they may die. Horrible. That image is too much for me. The ‘Third World’ is a term I don’t like very much, because we’re all one world. I want people to know that the largest part of humanity is suffering.”

১৯৯০ সালে তিনি ভিয়েতনামে যান । এছাড়া মারা যাবার চার মাস আগে তিনি সোমালিয়া এবং বাংলাদেশ যান । এ প্রসঙ্গে তাঁর বক্তব্য –

“I walked into a nightmare. I have seen famine in Ethiopia and Bangladesh, but I have seen nothing like this – so much worse than I could possibly have imagined. I wasn’t prepared for this.””The earth is red – an extraordinary sight – that deep terracotta red. And you see the villages, displacement camps and compounds, and the earth is all rippled around these places like an ocean bed and I was told these were the graves. There are graves everywhere. Along the road, wherever there is a road, around the paths that you take, along the riverbeds, near every camp – there are graves everywhere.

সম্মান – Academy Awards
BAFTA Awards
Emmy Awards
Golden Globe Awards
Grammy Awards
New York Film Critics Circle Awards
Screen Actors Guild Awards
Tony Awards

মৃত্যু – ১৯৯৩ সালের ২০ জানুয়ারি তিনি ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে ঘুমের মাঝে মারা যান । এই খবর শুনে অভিনেতা গ্রেগ্রি পেক কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের একটি কবিতা আবৃত্তি করেন ক্যামেরার সামনে ।

আজ অড্রে হেপবার্ন এর প্রয়ান দিবসে স্মরন করি গভীর শ্রদ্ধা এবং ভালবাসায় ।

২০ thoughts on “অড্রে হেপবার্ন

  1. Audrey Hepburn- কে নিয়ে কিছুই
    Audrey Hepburn– কে নিয়ে কিছুই বলার নেই, শুধুই অকৃত্রিম ভালোবাসা আর শ্রদ্ধা…
    আর আপনাকে স্মরণ করিয়ে দেয়ার জন্যে ধন্যবাদ! :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা:
    এই চমৎকার অভিনেত্রীর কিছু ছবি শেয়ার না করে পারছি না।

    তিনি দুর্দান্ত কিছু কোটেশনও দিয়ে গেছেন এই প্রজন্মের মডেলদের জন্যে…

    ছাতা হাতে এমন ভঙ্গিমায় তিনি প্রথম দাঁড়িয়েছিলেন কিনা আমার জানা নেই তবে এইভাবে কেউ দাঁড়াতে পারেন নি এইটা নিশ্চিত…

  2. অদ্রে হেপবার্ন
    মেরিলিন

    অদ্রে হেপবার্ন
    মেরিলিন মনরো
    এলিজাবেথ টেলর
    সোফিয়া লরেন

    আমি আর চিন্তা করতে পারছি না। হ্যাং হয়ে যাচ্ছে। কাকে ছেরে কাকে বলবো।
    তোকে ধন্যবাদ নীলা দি মনে করায় দেয়ার জন্যে

    1. ক্যাথেরিন হ্যাপবারন
      ক্যাথেরিন হ্যাপবারন (Katharine Hepburn (1907–2003) কই গেল? আমার প্রিয় :ভালুবাশি: :ভালুবাশি: :ভালুবাশি: :ভালুবাশি: :ভালুবাশি: :ভালুবাশি: ইনগ্রিড বারগ্ম্যান (Ingrid Bergman (1915–1982) কই? :ভাঙামন: :ভাঙামন: :ভাঙামন: :ভাঙামন:


      Ingrid Bergman (1915–1982)


      Katharine Hepburn (1907–2003)

  3. ওহ্‌, হেতিরে দেইখা এমন উদাস
    ওহ্‌, হেতিরে দেইখা এমন উদাস হই গেছিলাম যে আপনারে ধন্যবাদই দেওয়া হয় নাই। পোস্ট খুবই ভালো লাগছে। প্রিয় অভিনেত্রীরে নিয়া এমন একটা লেখা দেওয়ার জন্য আপনারে এক টন :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা:

  4. তুমারে কি বইলা কি জানামু
    তুমারে কি বইলা কি জানামু বুইঝা না পাওয়ায় আপাতত :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :গোলাপ: :গোলাপ: :গোলাপ: :গোলাপ: :গোলাপ: :গোলাপ: য়ের তোড়া দিয়া গেলাম… এই সুন্দরীতমার ছবি দেখছি তিনটা… আমি এখনও তারে ভুলতে পারি নাই… :ভালুবাশি: :ভালুবাশি: :ভালাপাইছি: :ভালুবাশি: :ভালাপাইছি: :লইজ্জালাগে: :মুগ্ধৈছি: :মুগ্ধৈছি:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *