ডিয়ান ফসি

ডিয়ান ফসি (Dian Fossey) ছিলেন একজন আমেরিকান প্রাণী বিদ্যাবিত ছিলেন যিনি প্রায় ১৮ বছর যাবত গরিলার বিভিন্ন প্রজাতি নিয়ে ব্যপক গবেষনা করেন । তিনি রুয়ান্ডা পার্বত্য অঞ্চলে নিয়মিত এ ব্যাপারে জ্ঞান চর্চা করতেন ।

ডিয়ান ফসি (Dian Fossey) ছিলেন একজন আমেরিকান প্রাণী বিদ্যাবিত ছিলেন যিনি প্রায় ১৮ বছর যাবত গরিলার বিভিন্ন প্রজাতি নিয়ে ব্যপক গবেষনা করেন । তিনি রুয়ান্ডা পার্বত্য অঞ্চলে নিয়মিত এ ব্যাপারে জ্ঞান চর্চা করতেন ।

জন্ম এবং শৈশব – ডিয়ান ফসি ক্যালিফোর্নিয়ার সান ফ্রান্সিস্কো তে জন্ম গ্রহন করেন । তাঁর বাবা একজন মার্কিন নেভি নাবিক ছিলেন আর মা ছিলেন ফ্যাশন মডেল । ডিয়ান এর যখন ৬ বছর বয়স তখন তার বাবা মার বিবাহ বিচ্ছেদ হয় । এর পরে তাঁর মা দ্বিতীয় বার বিয়ে করলেও তাঁর সৎ পিতা তাঁকে কখনই নিজের মেয়ের মত দেখতেন না বরং অবজ্ঞা করতেন । এই অবজ্ঞা তাঁকে ধীরে ধীরে পশু পাখির প্রতি আকৃষ্ট করে ।

শিক্ষা – সৎ পিতার নির্দেশ মত তিনি মারটিন কলেজে একটি ব্যাবসায়িক বিষয়ে পড়তে ভর্তি হন । কিন্তু তার পশু প্রেমের কারনে উনিশ বছর বয়সে তিনি ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রাক – পশু চিকিৎসা কোর্সে ভর্তি হন । তিমি তারঁ পিতার ইচ্ছার বিরুদ্ধে গিয়ে তাঁর পেশাগত জীবন পশু পাখিদের নিয়ে কাটাতে চেয়েছিলেন যার ফলশ্রুতিতে তিনি পরিনত বয়সে পরিবার রথেকে কোন আর্থিক সমর্থন পান নি । তিনি একটি ডিপার্টমেন্টাল স্টোর এ কিছুদিন কেরানি হিসেবে কাজ করেন । পরে একটি কারখানায় যন্ত্র চালক হিসাবেও কাজ করেন ।

তিনি একজন আদর্শ ছাত্রী হয়েও পদার্থ এবং রসায়নে কিছুটা দুর্বল ছিলেন পরে দ্বিতীয় বর্ষে অকৃতকার্য হন ।পরে তিনি সান জোসে স্টেট কলেজে স্থানান্তরিত হয়ে অকুপেশনাল থেরাপি বিষয়ে পড়ালেখা করেন এবং ১৯৫৪ সালে স্নাতক হন । পরবর্তীকালে কালে তিনিবিভিন্ন হাসপাতাল এ কাজ করেন এবন যক্ষা রোগীদের নিয়েও কাজ করেন ।

তার নরম স্বভাবের কারনে তিনি খুব সহজেই শিশুদের নিয়ে কাজ করতে সমর্থ হন । পরে হেনরি পরিবার তাঁকে তাদের খামার বাড়িতে আমন্ত্রন জানায় গৃহপালিত পশুদের নিয়ে কাজ করতে । ১৯৬৬ সালে তিনি চাকরী ছেড়ে দেন যখন প্রখ্যাত নৃতত্ববিদ লুই রিকি তাকে আস্বস্ত করেন যে গরিলা দের নিয়ে কাজ করার জন্য তিমি তহবিল পাবেন ।

পর্যটনের বিরধিতা– তিনি পর্যটনের ঘোর বিরোধিতা করেন কারন পর্যটক দের দ্বারা গরিলা রা বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছিল আর তাছাড়া তাদের জীবনের শান্তি বিঘ্নিত হচ্ছিল বলেও তিনি প্রতিবাদ করেন ।

বৈজ্ঞানিক অর্জন – তিনি গরিলাদের শ্রেনীবিভাগ খাদ্য তাদের মাঝে সামাজিক সম্পর্ক নিয়ে গবেষনা করেছেন ।

মৃত্যু – ১৯৮৫ সালের শেষ দিকের ডিসেম্বরে রুয়ান্ডা উপত্যকার কাছে কেবিনের বেডরুমে তাঁর লাশ পাওয়া যায় । ধারনা করা হয় খুব কাছের কেউ তাঁকে হত্যা করে ।

তাঁর লেখা শেষ দিন লিপিতে তিনি লিখেন – When you realize the value of all life, you dwell less on what is past and concentrate more on the preservation of the future.

বই পত্র
Woman in the Mists তাঁকে নিয়ে লেখা প্রথম জীবনী । এরপরে তাঁর কাছের মানুষ সহকর্মী সাক্ষাতকার নিয়ে একটি বই রচিত হয় যার নাম The Dark Romance of Dian Fossey

তিনি সব চেয়ে বেশি নজরে আসেন Vanity Fair নামের বইতে যেখানে তাঁর বিতর্কিত আচরন নিয়ে লেখা হয় যা তাঁর মৃত্যুর জন্য অনেকাংশে দায়ী বলে মনে করেন লেখক ।

আজ ডিয়ান ফসি এর ৮২ তম জন্মদিনে তাঁকে শ্রদ্ধা জানাই ।

৬ thoughts on “ডিয়ান ফসি

  1. কয়েকটা বানান ভুল ছাড়া চমৎকার
    কয়েকটা বানান ভুল ছাড়া চমৎকার হয়েছে লেখাটা আপু… :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ:

    শুভেচ্ছা রইল… :ফুল: :ফুল: :গোলাপ:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *