বার বার ঘুরে ফিরে আসে

ওইসব ছবি ঘুরে ফিরে আসে আমার চোখের নীল-রুপালী পর্দায়,
পোষ্টেমের রিপোর্ট মর্গের লাশকাটার ইতিবৃত্ত,
বিবস্ত্র নারীর সতীত্বহানি ধর্ষণের ছেঁড়াকাপড়ের পড়ি থাকা জড় দেহ
আমার সাংবাদিক ভাইয়েরা জীবনের ঝুকি নিয়ে তুলে ধরে সেইসব চিত্র।

রাস্তার জনতার কোলাহল, পড়ে আছে পাশে গাড়ীচাপা কারো হতভাগ্যের লাশ,
কেউ চিনে,কেউ চিনে না; দুচোখের কারও ঝড়ে মায়ার অশ্রু,
পত্রিকার পাতায় ছাপা হয় ঘাতক বাস কেঁড়ে নিল অমুকের প্রাণ,
ড্রাইভার পলাতক ধরা যায় বাসটিকেও কেটে গেছে চোখের পলকে।
গাছে ঝুলে আছে কারও ফাঁসি দেওয়া অমক ব্যক্তির লাশ,
পুলিশ এসে তদারকি করে কিভাবে মারা গেছে,নেয় এই তথ্য,

ওইসব ছবি ঘুরে ফিরে আসে আমার চোখের নীল-রুপালী পর্দায়,
পোষ্টেমের রিপোর্ট মর্গের লাশকাটার ইতিবৃত্ত,
বিবস্ত্র নারীর সতীত্বহানি ধর্ষণের ছেঁড়াকাপড়ের পড়ি থাকা জড় দেহ
আমার সাংবাদিক ভাইয়েরা জীবনের ঝুকি নিয়ে তুলে ধরে সেইসব চিত্র।

রাস্তার জনতার কোলাহল, পড়ে আছে পাশে গাড়ীচাপা কারো হতভাগ্যের লাশ,
কেউ চিনে,কেউ চিনে না; দুচোখের কারও ঝড়ে মায়ার অশ্রু,
পত্রিকার পাতায় ছাপা হয় ঘাতক বাস কেঁড়ে নিল অমুকের প্রাণ,
ড্রাইভার পলাতক ধরা যায় বাসটিকেও কেটে গেছে চোখের পলকে।
গাছে ঝুলে আছে কারও ফাঁসি দেওয়া অমক ব্যক্তির লাশ,
পুলিশ এসে তদারকি করে কিভাবে মারা গেছে,নেয় এই তথ্য,
পারিবারিক কলহ নয়তো বা দাম্পত্যের দলাদলি অথবা কেউ মেরে-
সাংবাদিকের ক্যামেরায় ফুটে উঠে ফাঁসি দেওয়া লাশটির চিত্র।

রাস্তার এক ঝুপঝাড়ের মাঝে পড়ে আছে গলাকাটা লাশ,
কে বা কার অজ্ঞাত,হাত,পা টুকরো টুকরো হাত-পায়ে আঙুল,
পত্রিকার পাতায় পরের দিন ফুটে উঠে বেশ টপ সংবাদ,
রায়ের বাজার থেকে এক অজ্ঞাত যুবতীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

যৌতুকের দায়ে গৃহবধুর উপর অমানবিক নির্যাতন-নিপীড়ন,
সন্দেহে স্ত্রীর উপর পাষন্ডের ভীবষ নির্মম মারধর,
পরকিয়ার দায়ের ঘরের বধু অন্যের সাথে কিসের এত মাখামাখি,
সংসারের এই যাপিত জীবনের নানা চিত্র ফুটে উঠে পত্রিকার পাতায়।

অন্যান্যা বিশ্ব যৌন আবেদনময়ী সুশ্রী তরুনীর সংবাদে বিশ্ব তোলপার,
মর্ডাণের ছোঁয়ায় বিশ্ব যাচ্ছে দ্রুত পাল্টে ফেসবুকের চ্যাটিংয়ের সামাজিক যোগাযোগ,
হাতে হাতে মোবাইলে নগ্নতার ছড়াছড়িতে যৌবনের বারটা,
টিজ,ইভটেজিংয়ের প্রবণতায় ভীতিগ্রস্ত আমরা সাধারণ এই শতাব্দীর মানুষ।

যুদ্ধের পর যুদ্ধ বিশ্বের মানুষের চোখে প্রতিনিয়ত কান্নার্ত ভয়াংকারে ফাটে বুক,
প্রকৃতির নির্মম প্রতিশোধে ঘরছাড়া মানুষের বৃক্ষের নীচে বসবাস,
ত্রাণের ব্যবস্থা নিতে রাষ্ট্রের প্রধানদের চোখে থাকে না শান্তিময় ঘুম,
পরমাণুর অস্ত্রের ঝনঝনানিতে মানুষের চোখে মৃতুশিখায় ভয়ংকর রুপ।

যন্ত্রের দাসে মানুষের অলসতায় থেমে গেছে জীবনের দৈহিক গতি,
মানুষ ঢাল-তলোয়ার ব্যবহার করে না;পিষ্টলে একটা বুলেটের ব্যপার,
রিমোটের বোতামে চেপে থাকা সর্বনাশা ধ্বংসের তান্ডবলীলা,
ঘুরে ফিরে আসে চোখের নীল-রুপালি পদায় নানা আধুনিক বাস্তব চিত্রের লীলা।
[দুপুর:১.৫৮ মিনিট-২৭/৬/২০১১]

১ thought on “বার বার ঘুরে ফিরে আসে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *