প্যাকেজ নাটকঃ ‘যাত্রা দেখে ফাতরা লোকে!’

অভিনয়েঃ
শেখ হাসিনাঃ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশে সরকার
খালেদাঃ সাবেক বিরোধী দলীয় নেত্রী এবং বর্তমান বিএনপি চেয়ারম্যান
———————————————-

প্রথম দৃশ্যঃ

হাসিনাঃ জামায়াতকে ছেড়ে সমঝোতায় আসুন > খালেদার প্রতি হাসিনার আহবান
খালেদাঃ জামায়াতকে ছাড়া যাবে না > হাসিনাকে খালেদার সোজাসাপ্টা উত্তর

(( গ্যালারী থেকে বিদগ্ধ দর্শকের শীটি বাজিয়ে মন্তব্যঃ ))

দর্শক একঃ খালেদা জিয়ার অন্যায়টা কি? সে কি সর্বহারার মত নিষিদ্ধ দলের সাথে জোট করেছে নাকি? খালেদাকে জামায়াত ছাড়ার নসিহত করার আগে রাষ্ট্রের প্রধান হিসেবে আপনের দায়িত্ব কি সেইটা আগে কন?


অভিনয়েঃ
শেখ হাসিনাঃ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশে সরকার
খালেদাঃ সাবেক বিরোধী দলীয় নেত্রী এবং বর্তমান বিএনপি চেয়ারম্যান
———————————————-

প্রথম দৃশ্যঃ

হাসিনাঃ জামায়াতকে ছেড়ে সমঝোতায় আসুন > খালেদার প্রতি হাসিনার আহবান
খালেদাঃ জামায়াতকে ছাড়া যাবে না > হাসিনাকে খালেদার সোজাসাপ্টা উত্তর

(( গ্যালারী থেকে বিদগ্ধ দর্শকের শীটি বাজিয়ে মন্তব্যঃ ))

দর্শক একঃ খালেদা জিয়ার অন্যায়টা কি? সে কি সর্বহারার মত নিষিদ্ধ দলের সাথে জোট করেছে নাকি? খালেদাকে জামায়াত ছাড়ার নসিহত করার আগে রাষ্ট্রের প্রধান হিসেবে আপনের দায়িত্ব কি সেইটা আগে কন?

দর্শক দুইঃ আরে ওই হালা জামাতি, কি ফালতু প্যাঁচাল পাড়তেছোস? খালেদার মত হাসিনা কি জামায়াতের সাথে জোট গঠন করে হরতাল-অবরোধ দিছে না-কি? বেহুদা কথা বন্ধ কর। নাহলে প্যাঁদানি একটাও মাটিতে পড়বে না। (হালা নাটক দেখতে আইয়াও শান্তি নাইক্কা)

অপমানিত দর্শক একঃ কেন ভাই, আমি ভুল কি কইলাম? খালেদা জিয়া জামায়াতের সাথে একটা রাজনৈতিক দল হিসেবে জোটবদ্ধ হইছে। আর গায়ের জোরে প্রধানমন্ত্রী হাসিনা খালেদারে কইতেছে যে জামায়াতের সঙ্গ ছাড়তে। এইটা কি ইনসাফের কথা?

দর্শক দুইঃ এইখানে অ-ইনসাফের কি দেখলেন?

দর্শক একঃ ধরেন, একটা দেশের প্রধানমন্ত্রী যদি নির্বাহী বা সাংবিধানিক ক্ষমতাবলে জামায়াতকে নিষিদ্ধ ঘোষনা না করে দলটিকে দেশের ভিতরে রাজনীতি করার সুযোগ দিতে পারে, তাহলে দল হিসেবে বিএনপির কি এটা রাজনৈতিক অধিকার নয় জামায়াতের সাথে জোট বাঁধা?

দর্শক তিনঃ তারমানে আপনি বলতেছেন যে শেখ হাসিনাও জামায়াতকে পেলেপুশে রাখছে?

দর্শক একঃ হ ভাই, আমি তাই বলতে চাইতেছি। দেশের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে হাসিনা তাই করছেন। একটা দেশের নির্বাহী প্রধান যদি জামায়াতকে নিষিদ্ধ করতে না পারে, তাহলে সেই প্রধানমন্ত্রীর নৈতিক কোন অধিকার থাকে না অন্য কোন দল বা গোষ্ঠীকে জামায়াতের সঙ্গ ত্যাগ করতে নসিহত করার।

দর্শক তিনঃ তারমানে খালেদা যা করতেছে, তা অন্যায় কিছু করতেছে না?

দর্শক একঃ না, তা-না। অবশ্যই খালেদা অন্যায় করতেছেন স্বাধীনতাবিরোধীদের সাথে জোট বেঁধে। তবে খালেদা বেআইনী কিছু করছেন না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যদি ওনার কর্তব্যের অংশ হিসেবে জামায়াতকে একটা জঙ্গী সংগঠন হিসেবে বাংলাদেশে নিষিদ্ধ ঘোষনা করতেন এবং তারপরেও যদি খালেদা জামায়াতের সাথে জোট বাধতেন বা গোপনে যোগাযোগ রাখতেন, তাহলে সাংবিধানিক ভাবেই খালেদাকেও বাংলার মাটি থেকে ‘লাল’ কার্ড দেখানো যেত। কারন একটা নিষিদ্ধ দল বা গ্রুপের সাথে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ যোগাযোগ রক্ষা করা আইনত রাষ্ট্রদ্রহীতার সামিল এবং এর শাস্তি সর্বোচ্চ মৃত্যুদন্ড।

দর্শক চারঃ আমাদের মহানবী হযরত মোহাম্মদ (সঃ) নিজে মিষ্টি খাওয়ার অভ্যাস পরিত্যাগ না করিয়া একটা শিশুকেও অতিরিক্ত মিষ্টি খাওয়া থেকে বিরত থাকতে বলতেন না। হি হি হি… হাসিনা আপারও উচিত জামায়াতকে নিষিদ্ধ ঘোষনা করে তারপর খালেদাকে নসিহত করা।

দর্শক পাঁচঃ হ ভাই ঠিক কইছেন, একটা রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে জামায়াতকে ‘আত্নিয়তা’-র বন্ধনে রেখে আর যাই হোক দেশ থেকে জঙ্গীবাদও তাড়ানো যাবে না এবং এদের নির্যাতন থেকে সংখ্যালঘিষ্ঠদের বাঁচানোও যাবে না। অহেতুক মুখে মুখে শুধু মানবতার কথা বলাই সার।

(( ব্যাকগ্রাউন্ড থেকে ‘কারার ঐ লৌহ কপাট’ এবং ‘মুক্তির মন্দির সোপান তলে’ গানদু’টো এক সাথে বেজে ওঠে। আসলে একটা বাজার কথা ছিল। কোনটা ঠিক বোঝা যায় না। তবে এটা যে প্রচ্ছন্ন একটা যান্ত্রিক ত্রুটি, তা বোঝা যায়। সাথে সাথে মঞ্চের পর্দা পড়ে যায়। যান্ত্রিক ত্রুটির জন্য ক্ষমা চাওয়া হলেও দর্শকরা আস্তে আস্তে স্থান ত্যাগ করে। নাটকও বন্ধ হয়ে যায়। ধারনা করা হয়, আগামী শো গুলোতে এভাবেই যান্ত্রিক গোলযোগের জন্য নাটক মাঝ পথে বন্ধ হয়ে যাবে এবং দর্শকরাও যার যার বাড়ি চলে যাবে। নাটকের শেষ দৃশ্যটি জানা হবে না কোনদিনও… আগামী ৪২ বছর পরেও না… ))

৪ thoughts on “প্যাকেজ নাটকঃ ‘যাত্রা দেখে ফাতরা লোকে!’

  1. সবাই শুধু হাসে। ব্যাপার কি?
    সবাই শুধু হাসে। ব্যাপার কি? হহাহ… তবে এটা ঠিক আপনারা যারা এই প্যাকেজ নাটকটি পড়লেন, আপনারা সবাই ফাঁতরা লোক। (তিনটা অট্রহাসির ইমো দিতে চেষ্টা করলাম; কিন্তু পারলাম না):)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *