আসলে বেঁচে থাকাটাতেই সার্থকতা…

দাঁড়িপাল্লায় মাপিয়া মাপিয়া সোনালী ধান হাওয়া ভবনে গুদামজাত করার দিন ফুরাইয়াছে…
ভোট ফর বোট দিয়া ঘরে আনিতে হইবে ৫৭ধারায় মোড়ানো ডিজিটাল বাক-শীলতাকে…
দেশ যাইবে সিপি এর খোঁয়াড়ে নতুবা আইজুর দখলে …

শীতের দিনে উষ্ণতা ছড়াইতেছে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ধিকিধিকি করে জ্বলতে থাকা আগুন
আমসত্ততের রেসিপি ছাড়িয়া রাস্তায় রাস্তায় চলিতেছে গ্রিল আর রোষ্ট উৎসব…
মানবতার চিৎকার নিয়ে আবার উড়িয়া আসিবে হয়তো কোন পিল্লাই
অথবা দুর্নীতি, সংঘর্ষ আর পুরুস্কার সরূপ
“তোমারা সবাই ধ্বংস হও” এই ফিচলে হাসির আড়ালে হাতে তুলিয়া দিবে অস্কার!
বালুর ট্রাকের আড়ালে ঢাকা পড়িবে এরশাদিয় গনতন্ত্র

দাঁড়িপাল্লায় মাপিয়া মাপিয়া সোনালী ধান হাওয়া ভবনে গুদামজাত করার দিন ফুরাইয়াছে…
ভোট ফর বোট দিয়া ঘরে আনিতে হইবে ৫৭ধারায় মোড়ানো ডিজিটাল বাক-শীলতাকে…
দেশ যাইবে সিপি এর খোঁয়াড়ে নতুবা আইজুর দখলে …

শীতের দিনে উষ্ণতা ছড়াইতেছে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ধিকিধিকি করে জ্বলতে থাকা আগুন
আমসত্ততের রেসিপি ছাড়িয়া রাস্তায় রাস্তায় চলিতেছে গ্রিল আর রোষ্ট উৎসব…
মানবতার চিৎকার নিয়ে আবার উড়িয়া আসিবে হয়তো কোন পিল্লাই
অথবা দুর্নীতি, সংঘর্ষ আর পুরুস্কার সরূপ
“তোমারা সবাই ধ্বংস হও” এই ফিচলে হাসির আড়ালে হাতে তুলিয়া দিবে অস্কার!
বালুর ট্রাকের আড়ালে ঢাকা পড়িবে এরশাদিয় গনতন্ত্র
সাথে সাথে বালুর বাধের মত ভাঙ্গিয়া পড়িবে জয় বাংলার স্বপন!!!
রাজপথের রঙ্গিন আলপনার রং যোগাইতে রক্তের লালিমা ঢালিব আমরা আপনারা সকলে।

দেশ স্বাধীন হইয়াছে বহু আগে এতকাল পূর্বে যে বিস্মৃত হইয়াছে উহার জৌলুস
হায়নারা বাংলা ছারিয়াছে কিন্তু রন্ধ্রে রন্ধ্রে মিশাইয়া দিয়া গিয়াছে বিধ্বংসী বিষ বাস্প
যে বাষ্প আমাদের নিঃশ্বাসের সাথে সোনার বাংলার এপ্রান্ত থেকে অপ্রান্তে ছড়ায়
লাগামহীন কোন গুজব ঘোড়ার পিঠে জিন বসিয়ে আয়েশ করে জাঁকিয়ে বসে।

“অদ্ভুত উটের পিঠে চলেছে আজ দেশ” বলেই হাপুস করে দীর্ঘশ্বাস ফেলে
ওয়াল ষ্ট্রীট অথবা রয়্যাল কেসিনোতে ডুবে কূটশীলতার আবরনে ঢাকা সুশীল সমাজ।
প্রধান খবরের উৎস মনির কিংবা বিশ্বজিৎ নয় বরং ঐশ্বরিয়ার সন্তান বা ‘ধুম’ এর সিকুয়াল
আমাদের জরুরী খবর কিভাবে মেয়ে পটানো যায়…কিরুপে স্বামীকে বশে রাখবেন ইত্যাদি
আমরা মনে মন কলা খাই আর হঠাৎ ঠাকুর ঘরে কে রে বলে বাতাসকে সুধাই
সত্যিকারের জীবনে মা- বাপের লালু ভুলু না হই কিন্তু জনজীবনে নন্দলাল হয়েই রই…।

আসলে বেঁচে থাকাটাতেই সার্থকতা…
তেলাপোকার মত অস্তিত্বকে টিকিয়ে রাখাই হল সর্ব শ্রেষ্ঠ পাওয়া-
কাপুরুষ অথবা অবলা নারী হয়ে বেঁচে থাকা!!!

“”জীবন পুড়িয়া যায় — আমরাও ঝরে পুড়ে যাই! আকাশে নক্ষত্র হয়ে জ্বলিবার মতো শক্তি — তবু শক্তি চাই।””

৯ thoughts on “আসলে বেঁচে থাকাটাতেই সার্থকতা…

  1. হতাশার চিহ্ন একটু বেশি
    হতাশার চিহ্ন একটু বেশি মাত্রায় লক্ষণীয়। যাই হোক, আপনার লেখার ধরন, শব্দ চয়নের দক্ষতা, বাক্য গঠনে ছন্দের আবির্ভাব , সব মিলিয়ে আপনার লেখার হাত অনেক সুন্দর। শুভেচ্ছা রইল। :ফুল: :ফুল: :ফুল:

    1. চারদিকে এত ধ্বংস দেখে আসলেই
      চারদিকে এত ধ্বংস দেখে আসলেই বড্ড হাপিয়েই উঠেছি!! :ক্লান্তকাছিম: :ক্লান্তকাছিম: :ক্লান্তকাছিম: :ক্লান্তকাছিম:

      আর প্রশংসার জন্য ধন্যবাদ… :ধইন্যাপাতা: :ধইন্যাপাতা: :গোলাপ: :গোলাপ:

  2. হতাশার কাব্যিকরুপ মনে হল…
    হতাশার কাব্যিকরুপ মনে হল… হুদাই ট্যাগ ক্যান?
    আজ যথা তথা প্রথা বিরোধ মানে উত্তরাধুনিকতা নয়, সমসাময়িকতা গ্রাস করছে সকল মানবিক সংঘ তাই বলে এক্সিট রুট আমরা ভাবব না? আদর করে কি সন্ত্রাস-সহিংসতা বন্ধ হয়? কাঁটা দিয়ে কাঁটা তুলতে হয় আপু, একটু ধৈর্য ধরুন।। আশাকরি ভোর আসবেই…

    1. ভোরের প্রত্যাশাতেই আছি,
      ভোরের প্রত্যাশাতেই আছি, ভাইয়া!
      সারা দিনের শেষে এই সংবাদটাই অনেক আশা দিল http://bangla.bdnews24.com/bangladesh/article724938.bdnews

      নতুন দিনের প্রত্যয়ে হোক অবিরাম পথ চলা… জয় বাংলা! :খুশি:

  3. সাথে সাথে বালুর বাধের
    সাথে সাথে বালুর বাধের মত
    ভাঙ্গিয়া পড়িবে জয় বাংলার স্বপন!!!
    রাজপথের রঙ্গিন আলপনার
    রং যোগাইতে রক্তের লালিমা ঢালিব
    আমরা আপনারা সকলে।

    চমৎকার বলেছেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *