কারণ তারা রূপবতী

[ভুমিকাঃ এই কবিতাটা কাদের জন্য? এক কথায় নারী-পুরুষ সবার জন্যই। তবে যারা আমার মতো সমাজের সংজ্ঞায় তথাকথিত ‘রুপবতী’ নন, তাদের জন্য বিশেষভাবে উৎসর্গীকৃত। ]

দিনের সমাপ্তির মতন অপেক্ষারও শেষ আসে,
মনমরা নির্বাক কান্না ঘুরে বেড়ায় কেবল বাতাসে;
বড়ো সহজাত সে কান্নার সুর বোঝে না সবাই,
সে বেদনা জগতের সব সুখী মানুষের চোখ এড়ায়।
নীরবে নিভৃতে কেঁদে চলে সে অব্যক্ত হাহাকার
নিঃশব্দ চিৎকার শুধু ভেসে আসে বাঁধ ভাঙার।

তোমরা দেখো না-
কুরুপা নারীর চোখেও রয় সুগভীর ভালোবাসা।
পোড়াকপালি সে; কেউই বোঝে না তার মনের ভাষা।
সুন্দর? সেতো কেবলই ফর্সা ত্বক!
মনের সৌন্দর্য বলে কিছু নেই এ জগতে,

[ভুমিকাঃ এই কবিতাটা কাদের জন্য? এক কথায় নারী-পুরুষ সবার জন্যই। তবে যারা আমার মতো সমাজের সংজ্ঞায় তথাকথিত ‘রুপবতী’ নন, তাদের জন্য বিশেষভাবে উৎসর্গীকৃত। ]

দিনের সমাপ্তির মতন অপেক্ষারও শেষ আসে,
মনমরা নির্বাক কান্না ঘুরে বেড়ায় কেবল বাতাসে;
বড়ো সহজাত সে কান্নার সুর বোঝে না সবাই,
সে বেদনা জগতের সব সুখী মানুষের চোখ এড়ায়।
নীরবে নিভৃতে কেঁদে চলে সে অব্যক্ত হাহাকার
নিঃশব্দ চিৎকার শুধু ভেসে আসে বাঁধ ভাঙার।

তোমরা দেখো না-
কুরুপা নারীর চোখেও রয় সুগভীর ভালোবাসা।
পোড়াকপালি সে; কেউই বোঝে না তার মনের ভাষা।
সুন্দর? সেতো কেবলই ফর্সা ত্বক!
মনের সৌন্দর্য বলে কিছু নেই এ জগতে,
লোকের মুখের সান্ত্বনা, জানি সবই রূপক।
শ্যামলাকে কেউই চায় না বুকে জড়াতে।

রূপের আগুনে ঝলসানো যায় বোকা পুরুষকে,
জগত ঘোরানো যায় দড়িটি বেঁধে তার নাকে।
মিথ্যে বলুক, হিংসে করুক, করুক নাহয় প্রতারণা-
সবই হেরে যাবে ঐ আগুনরূপের কাছে,
অন্তরের কালিমা তো আর জগত দেখবে না!
সুন্দরীর সে বিষাক্ত হৃদয়ের খবর রাখবে না কেউ,
ঠিক জড়িয়ে পড়বে তার নগ্নরূপের নাগপাশে।

১৭ thoughts on “কারণ তারা রূপবতী

  1. একটা কথা ঠিকই বলেছেন। মানুষ
    একটা কথা ঠিকই বলেছেন। মানুষ প্রথমেই গায়ের রং দেখে কারণ এটা মানুষের প্রকট বৈশিষ্ট্য। কিন্তু শুধু সুন্দরী/সুন্দর হলাম আর বুদ্ধি-বিবেক-ভালো গুণ কিছুই আমার মধ্যে নাই, তাহলে বেশীদিন কেউ আমাকে পছন্দও করবে না, ভালোওবাসবে না।
    সুন্দর হলে মানুষ ঘুরানো যায় বটে কিন্তু সেটার জন্য কেউ তাদের প্রশংসা করে না, নিন্দাই করে।
    রূপ না থাকলেও চলে কিন্তু মানুষকে আকৃষ্ট করার জন্য গুণ জিনিসটা থাকতেই হয়। তাই আপনি “তথাকথিত রূপবতী” কিনা সেটা নিয়ে আর নাই বা ভাবলেন! আমরা যদি এটা নিয়ে দুঃখ করি, সমাজ কীভাবে পরিবর্তিত হবে বলেন? 🙂

        1. হাঁসির কিছু না আমি যাহা সত্য
          হাঁসির কিছু না আমি যাহা সত্য তাহাই বলিলাম কারণ আমি সত্য প্রকাশে আপোষহীন …… স্বাগতম আপনাকে উপদেশ মাথায় রাখবেন …… 😀

    1. ” শুধু সুন্দরী/সুন্দর হলাম আর
      ” শুধু সুন্দরী/সুন্দর হলাম আর বুদ্ধি-বিবেক-ভালো গুণ কিছুই আমার মধ্যে নাই”- এটাই কিন্তু বোঝাতে চেয়েছি আমি। সুন্দরী হওয়াই শেষ কথা নয়, বিবেকটাই আসল কথা। আমি সুন্দর, এর কোনো ক্রেডিট কিন্তু আমার নয়, সৃষ্টিকর্তার। আর এই কবিতার উদ্দেশ্য কিন্তু দুঃখ করা নয় মোটেই, বরং সমাজটাকে একটা খোঁচা দেওয়াই লক্ষ্য। অনেক ধন্যবাদ! 🙂

      _________________________________________________

  2. বিবর্তনের ধারায় নরীকে আকৃষ্ট
    বিবর্তনের ধারায় নরীকে আকৃষ্ট করার মত কঠিন কর্মটা পুরুষকেই করতে হয়েছে। তবে মানব সমাজে কেন জানি রীতিটা ব্যতীক্রম। তবে এখানে যে একই সাথে দুটি ভিন্নধারা চলে এসেছে সেটার একটা বিবর্তনের পথ ধরে আর অন্যটা হল বিবর্তনের উল্টা পথে!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *