যাক! অবশেষে ইমরানও ল্যানজা দেখাইলো…

আমি বাজী ধইরা বলতে পারি, ফাসিঁর পর কাদের মোল্লার লাশ নিতে অফার করলে ইমরান খানও রাজী হইতো না। বাংলাদেশের কোন অভ্যন্তরীন বিষয়ে ইমরান এখন পর্যন্ত নাক গলায় নাই, অথচ ৪২ বছর আগের দাসানুদাসের প্রতি আজ তার দরদ উথলে পরতেছে। তা স্বাভাবিক, দাসের প্রতি দরদ থাকতেই পারে। কাদের মোল্লা ৯ মাস আমার গোলামী করলে হয়তো আমিও তার মৃত্যুর পর আহা উহু করে বলতাম – ‘আহারে, অনুগত দাস ছিলো বটে একটা!’ কিন্তু যে কাদের মোল্লার নামও সে কোনদিন শুনে নাই (শোনে নাই কারন কাদের মোল্লার মতো ৭১ এর এইসব বাল ছাল মোছার টাইম পাকিদের কখনই ছিলো না) তার জন্য এখন আহা উহু করার কারন কি? আর এতই যখন দরদ তাইলে কেন সে তাদের দাসানুদাসদের নিয়ে গেলো না নিজের দেশে? কারন হইতেছে সে আম পাকিদের আস্থাভাজন থাকতে চায়।

পাকিস্থানের নেতৃত্বে দুর্নীতি আর আমেরিকার ড্রোনবাজিকে গালাগাল করে সে পাকিদের ভোট পাইছে। এমনকি তার সাথে আফগান তালেবান আর পাকিস্তানী জঙ্গিদের সংশ্লিষ্টতা আছে বলেও প্রমান পাইছে এফবিআই। নিয়মিত মদ্যপান করে যে লোক ইসলাম রক্ষা মেন্ডেট দিয়া ক্ষমতায় যাওয়ার স্বপ্ন দেখতে পারে, তার কাছ থিকা মিথ্যা, ব্যাক্তিত্বহীনতা আর ভন্ডামি ছাড়া আর কি আশা করা যাইতে পারে? দুই বছর আগে সে যখন তেহরিক-ই-ইনসাফ গড়ছিলো, তখনই এই ইমরান অন্য দশটা পাকি থিকা আলাদা হবে এমনটা ভাবার কোন কারন আমি দেখি নাই।

তরুন নেতৃত্ব আগের নেতৃত্বের মতো দুর্নীতিপ্রবণ হবে না এই আশায় পাকি পাবলিক ইমরানকে ভোট দিছে। অথচ মারখোরের দেশ বেকুব পাকিদের এইটা বোঝার ক্ষমতা নাই যে ইমরান তার উত্তরসূরী রাজনীতিবিদদের চাইতেও অনেক বেশী ধান্ধাবাজ আর চালবাজ।

বাংলাদেশ শরিয়া আইন দ্বারা পরিচালিত দেশ হইলে গনহত্যা ও ধর্ষণের দায়ে কাদের মোল্লাকে যেমন গলা পর্যন্ত মাটিতে পুতেঁ পাথর ছুঁড়ে হত্যা করা হতো, তেমনি তাকে সমর্থন করার দায়ে ইমরানেরও প্রাণ নাশের আশংকা থাকতো। ইমরান বাইচাঁ গেছে যে বাংলাদেশ শরিয়া আইন দ্বারা পরিচালিত কোন দেশ না। আর আমরা পাকিদের মতো অভব্যও না। তাই তো পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয় পাকিস্তানি দূতাবাসকে তলব করে ঝাড়ি দিছে শুধু।

আমি ভাগ্যবান যে জীবনে কোনদিন ইমরানের খেলা বা তার পোষ্টারের ভক্ত ছিলাম না। কখনই না।

ইমরানের মতো পাকি মিথ্যুক, ধান্ধাবাজ আর ব্যাক্তিত্বহীন শুয়োরকে বলতেছি, তোমার প্রতি একদলা থুথু। তোমারে ‍লিটারেলি ‍ুদার টাইম বাঙ্গালীদের নাই। তুমি তোমার জায়গায় বইসাই ৭১ এর গোলামদের স্তুতি গাও। শীঘ্রই আরো কয়টা ঝুলবে ইনশাল্লাহ। ওগুলোর জন্যও স্তুতিবাক্য রেডি রাইখো এখন থিকাই।

৬ thoughts on “যাক! অবশেষে ইমরানও ল্যানজা দেখাইলো…

    1. যারা ৪২ বছর পরও বাংলাদেশের
      যারা ৪২ বছর পরও বাংলাদেশের কাছে আনুষ্ঠানিক ভাবে ক্ষমা চায় না, তাদের সাথে কিসের সম্পর্ক।

  1. সহমত।
    ———————–

    সহমত।

    ——————————————————————————————————————————————————————————————————————————————————————————
    যাহার চিন্তা বাক্য ও কর্ম নিজের, সমাজের, দেশের তথা বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষে নিয়োজিত, সেই ইসলাম ধর্মের লোক। তা সে যে সম্প্রদায়েরই হউক না কেন।

    আর-যাহার চিন্তা বাক্য ও কর্ম নিজের, সমাজের, দেশের তথা বিশ্ব অ-শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষে নিয়োজিত, সেই অ-ইসলাম ধর্মের লোক। তা সে যে সম্প্রদায়েরই হউক না কেন। সেরু পাগলার বাণী।।

    সত্য সহায়। গুরুজী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *