কড়া

আমাদের ছিলো না কোন পিছুটান
মন ছিলো চওড়া
না ছিলো রক্ত সম্পর্ক,
না ছিলো মনমালিন্য।

অন্যান্য সম্পূরক সম্পর্কর আবর্তন ও ছিলো ক্ষীণ

সিঁড়ি,গাছ-পালা,বাতাস­-পাখি,লোকারণ্য
সবই আমাদের অনুকূলেই ছিলো,ভালো
অথচ!আমাদের আলোচনায় ছিলো-অন্তিম লিকার



আমাদের ছিলো না কোন পিছুটান
মন ছিলো চওড়া
না ছিলো রক্ত সম্পর্ক,
না ছিলো মনমালিন্য।

অন্যান্য সম্পূরক সম্পর্কর আবর্তন ও ছিলো ক্ষীণ

সিঁড়ি,গাছ-পালা,বাতাস­-পাখি,লোকারণ্য
সবই আমাদের অনুকূলেই ছিলো,ভালো
অথচ!আমাদের আলোচনায় ছিলো-অন্তিম লিকার

সে কোন লোক দেখানো প্রীতি,চলছিলো
সমানুপাতে আলোচনা
ঠিকা সেই সময় তুমি ভুলে বসলে নীতিকথা
সমানুপাতে রাগ-আমার
কে বলেছিলো আমায় বিড়ি খেতে?
সময় ক্ষ্যাপা প্রাচীন ইতর!

বুকের ভেতরে চলছে তখন খরা,
মস্তিষ্ক ছিলো বাস্তবঝড়া,

তাই,কথা গুলো ছিলো কড়া।

৬ thoughts on “কড়া

  1. কবিতাটা বেশ কড়া ছিল…
    কবিতাটা বেশ কড়া ছিল… :মাথানষ্ট: :চিন্তায়আছি:

    আরও চমৎকার লেখার অপেক্ষায় রইলাম… :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :বুখেআয়বাবুল: :ধইন্যাপাতা:

Leave a Reply to রাফিউজ্জামান সিফাত Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *