আরেকবার গর্জে উঠো

এখনি সময়,জ্বলতে হবে আরেকবার।
চল্লিশ বছরের আগুন বুকে নিয়ে
বারবার পুড়ে ছাড়খার হয়েছে যে মায়ের বুক,
পুড়ন্ত বুকের উপড় দিয়ে চলে গেছে জাতীয় পতাকা ঠাঙ্গানো
রাজাকারের গাড়ি,
বাংলামায়ের আর্তনাদে কেঁপে উটেছে বঙ্গোপসাগর বার বার
এখনি সময়,পতাকা কলঙ্কমুক্ত করবার।

আবার উল্লাস হবে,জনতার উল্লাস
একাত্তরের চিৎকারে কাঁপবে দেশ
আমরা অকৃতজ্ঞ নই
এই বাংলার বুকেই হবে রাজাকারের শেষ।

এখনি সময়,জ্বলতে হবে আরেকবার।
চল্লিশ বছরের আগুন বুকে নিয়ে
বারবার পুড়ে ছাড়খার হয়েছে যে মায়ের বুক,
পুড়ন্ত বুকের উপড় দিয়ে চলে গেছে জাতীয় পতাকা ঠাঙ্গানো
রাজাকারের গাড়ি,

এখনি সময়,জ্বলতে হবে আরেকবার।
চল্লিশ বছরের আগুন বুকে নিয়ে
বারবার পুড়ে ছাড়খার হয়েছে যে মায়ের বুক,
পুড়ন্ত বুকের উপড় দিয়ে চলে গেছে জাতীয় পতাকা ঠাঙ্গানো
রাজাকারের গাড়ি,
বাংলামায়ের আর্তনাদে কেঁপে উটেছে বঙ্গোপসাগর বার বার
এখনি সময়,পতাকা কলঙ্কমুক্ত করবার।

আবার উল্লাস হবে,জনতার উল্লাস
একাত্তরের চিৎকারে কাঁপবে দেশ
আমরা অকৃতজ্ঞ নই
এই বাংলার বুকেই হবে রাজাকারের শেষ।

এখনি সময়,জ্বলতে হবে আরেকবার।
চল্লিশ বছরের আগুন বুকে নিয়ে
বারবার পুড়ে ছাড়খার হয়েছে যে মায়ের বুক,
পুড়ন্ত বুকের উপড় দিয়ে চলে গেছে জাতীয় পতাকা ঠাঙ্গানো
রাজাকারের গাড়ি,
বাংলামায়ের আর্তনাদে কেঁপে উটেছে বঙ্গোপসাগর বার বার
এখনি সময়,পতাকা কলঙ্কমুক্ত করবার।

আবার উল্লাস হবে,জনতার উল্লাস
একাত্তরের চিৎকারে কাঁপবে দেশ
আমরা অকৃতজ্ঞ নই
এই বাংলার বুকেই হবে রাজাকারের শেষ।

আমরা ভুলিনি,মার্চ থেকে ডিসেম্বরে দেখা
প্রতি রাতের দুঃস্বপ্ন
ত্রিশ লক্ষ প্রানের আর্তনাদ
মায়ের-বোনের গগনবিদারি ক্রন্দন
আজ তাদের ঋণ শোধ করার দিন।
জাগো হে বীর বাঙালি,জাগো আরেকবার
একাত্তরের পর তের সাল
হোক রাজাকারের শেষবার।

২ thoughts on “আরেকবার গর্জে উঠো

Leave a Reply to ডাঃ আতিক Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *