দুটি চা পেয়ালা – একটি খাট


উৎসর্গ
চিত্রনায়িকা ববিতা

কাঁথাভরে কথা পাঠালাম , জড়িয়ে নিও
নিচু স্বরে হবে একটু আকটু কথা
অংশীদার যেন আর কেউ না হয় ,
খুব খেয়ালে ।

সুতোর ভাঁজে ভাঁজে কথা ছাড়িয়ে দিয়েছি
রাতের পর রাত ফুরোবে
কাঁচা আমে লবণ মাখানো কথা ফুরোবে না ;
সম্মোহনী বিজলি বাতি চোখ মুতবে
সাবধান হুইসেল হুঁশিয়ারী আওয়াজ ছেড়ে হবে ক্লান্ত
টিকটিক ঘড়িটাও বুঝবে , এবার
তার পাগলা ঘোড়ার লাগাম টানা প্রয়োজন ।
তবুও নরম কাঁথার নরম কথা – শেষ হবে না

উপর নীচে , পরতে পরতে কথা আঁকটে আছে
চিকচিকে নক্ষত্রের নীচে শালিক জোড়া – তাদের

উৎসর্গ
চিত্রনায়িকা ববিতা

কাঁথাভরে কথা পাঠালাম , জড়িয়ে নিও
নিচু স্বরে হবে একটু আকটু কথা
অংশীদার যেন আর কেউ না হয় ,
খুব খেয়ালে ।

সুতোর ভাঁজে ভাঁজে কথা ছাড়িয়ে দিয়েছি
রাতের পর রাত ফুরোবে
কাঁচা আমে লবণ মাখানো কথা ফুরোবে না ;
সম্মোহনী বিজলি বাতি চোখ মুতবে
সাবধান হুইসেল হুঁশিয়ারী আওয়াজ ছেড়ে হবে ক্লান্ত
টিকটিক ঘড়িটাও বুঝবে , এবার
তার পাগলা ঘোড়ার লাগাম টানা প্রয়োজন ।
তবুও নরম কাঁথার নরম কথা – শেষ হবে না

উপর নীচে , পরতে পরতে কথা আঁকটে আছে
চিকচিকে নক্ষত্রের নীচে শালিক জোড়া – তাদের

রূপকথার সেই দুই কামরার ঘর –
গুড়ের বোয়ম – হাতল ভাঙ্গা আলমারি –
খয়েরি বালতি – পুরনো স্টেরিও – ২৬০ টাকার উন্ডিন্সচ্রাম
ওয়েলকাম লিখা পাপোষ – জং ধরা গ্রিল – গোছানো ড্রয়িংরুম
এক বক্স রবীন্দ্রনাথ – দুটি চা পেয়ালা – একটি খাট
তিন বছরের রঙ মোছা সিলিং ফ্যান – আসমানি পর্দা
বিস্কুটের পট – কৃষি ব্যাংকের ফলাদি ক্যালেন্ডার
যার সারা শরীর জুড়ে পরিকল্পনার বৃত্ত আঁকা
সব । সব কথা জমা রয়েছে কাঁথায়
শক্ত করে জড়িয়ে নিও পা থেকে মাথা

বিয়ের লাল সুতির শাড়ি দিয়ে বানানো এই কাঁথা
মেয়েভুলানো অচল কথা
তোমার উত্তাপে প্রতিনিয়ত ভাবাবে
অহেতুক বিচ্ছিন্নতার ব্যাকুলতা

আমার জন্য নয় , কথা’র
কথা স্মরণে একটিবার ফিরে এসো

১৮ thoughts on “দুটি চা পেয়ালা – একটি খাট

  1. সম্মোহনী বিজলি বাতি চোখ

    সম্মোহনী বিজলি বাতি চোখ মুতবে

    শেষের শব্দটা বুঝলাম না।
    মন্দ লাগেনি। একটু অন্য স্টাইলের কবিতা।

    1. আতিক ভাই , কবিতা কি আমি নিজে
      আতিক ভাই , কবিতা কি আমি নিজে বুঝি

      কবিতা বয়ে চলে , না নদীর মতো না বাতাসের মতো , আবার দুটাই অথবা একটিও না । নতুন কোন কিছু যার সংজ্ঞা নেই , সংজ্ঞা আছে চেতন নেই

      ধন্যবাদ 🙂

  2. আমার কাছে ভাই অনবদ্য লাগল…
    আমার কাছে ভাই অনবদ্য লাগল… :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :গোলাপ: :গোলাপ: :ফুল: :ফুল: :ফুল:
    ছোট গল্পের সাথে সাথে আপনার কবিতার হাতও
    চমৎকার… কয়েকটা লাইন অন্যরকম সাবলীল সুন্দর…যেমন-

    কাঁথাভরে কথা পাঠালাম , জড়িয়ে নিও
    নিচু স্বরে হবে একটু আকটু কথা
    অংশীদার যেন আর কেউ না হয় ,
    খুব খেয়ালে।

    বিয়ের লাল সুতির শাড়ি দিয়ে বানানো এই কাঁথা
    মেয়েভুলানো অচল কথা
    তোমার উত্তাপে প্রতিনিয়ত ভাবাবে
    অহেতুক বিচ্ছিন্নতার ব্যাকুলতা

    — :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :রকঅন: :রকঅন:

    1. তারিক ভাই , আমি আসলে কবিতা
      তারিক ভাই , আমি আসলে কবিতা জিনিসটা বুঝি না । কোনদিন বুঝতেও চাই নাই । হয়ে যায় । যা হয় তাই দিয়ে দেই
      আপনার মন্তব্য সবসময় আকর্ষণীয় , শরৎ এর ভোরে দেয়াল ঘেঁষা চড়ুই এর মতো – মিষ্টি

      শুভেচ্ছা জানবেন
      🙂

      1. আপনার মন্তব্য সবসময় আকর্ষণীয়

        আপনার মন্তব্য সবসময় আকর্ষণীয় , শরৎ এর ভোরে দেয়াল ঘেঁষা চড়ুই এর মতো –

        মাইরালা… :মাথানষ্ট: :মাথানষ্ট: :মাথানষ্ট: :ভেংচি: :চশমুদ্দিন: :বিষয়ডাকী: :গোলাপ: :বুখেআয়বাবুল: 😀

  3. সুতোর ভাঁজে ভাঁজে কথা ছাড়িয়ে

    সুতোর ভাঁজে ভাঁজে কথা ছাড়িয়ে দিয়েছি
    রাতের পর রাত ফুরোবে
    কাঁচা আমে লবণ মাখানো কথা ফুরোবে না ;
    সম্মোহনী বিজলি বাতি চোখ মুতবে
    সাবধান হুইসেল হুঁশিয়ারী আওয়াজ ছেড়ে হবে ক্লান্ত
    টিকটিক ঘড়িটাও বুঝবে , এবার
    তার পাগলা ঘোড়ার লাগাম টানা প্রয়োজন ।
    তবুও নরম কাঁথার নরম কথা – শেষ হবে না

    প্রথমবার পুরোটা পড়ে বুঝতে পারিনি। :মাথাঠুকি: পুরোপুরি ভিন্নধর্মী একটা লেখা, খুবই চমৎকার লাগলো। :বুখেআয়বাবুল: প্রিয়তে নিলাম এবং গল্পের পাশাপাশি এরকম ভিন্নধর্মী রচনা চালিয়ে যাবার জোর দাবি জানায়ে গেলাম… :ধইন্যাপাতা: :গোলাপ: :থাম্বসআপ: :জলদিকর: :অপেক্ষায়আছি:

  4. বিয়ের লাল সুতির শাড়ি দিয়ে

    বিয়ের লাল সুতির শাড়ি দিয়ে বানানো এই কাঁথা
    মেয়েভুলানো অচল কথা
    তোমার উত্তাপে প্রতিনিয়ত ভাবাবে
    অহেতুক বিচ্ছিন্নতার ব্যাকুলতা

    আমার জন্য নয় , কথা’র
    কথা স্মরণে একটিবার ফিরে এসো

    অসাধারণ। :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :গোলাপ: :গোলাপ: :তালিয়া: :তালিয়া: :তালিয়া:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *