চায়ের কাপে ঝড়………

চায়ের দোকানে রাহাত বসে আছে মুখটা কিছুটা গম্ভীর মনে হচ্ছে যেনো দুনিয়ার দুঃখ রাহাতের ঘারে এসে জমা হয়েছে একটু পর রনি এসে পিছন থেকে রাহাতের পিঠ চাপড়ে কিরে দোস্ত কেমন আছিস ??
রাহাতঃ আছি রে দোস্ত খুব একটা ভাল নেই !! কিছুটা বিমর্ষ হয়ে উত্তর দিলো রাহাত।
রনিঃ কেনো কি হয়েছে তুই তর ডার্লিং এর সাথে ঝগড়া করছস নাকি তর ডার্লিং তোর সাথে ঝগড়া করছে ??
রাহাতঃ আরে না আমার দল বিশ্বকাপে গ্রপ অব ডেথ এ পড়ে গেছে !!
রনিঃ তোর দল কোনটা ??
রাহাতঃ ইংল্যাণ্ড !!

চায়ের দোকানে রাহাত বসে আছে মুখটা কিছুটা গম্ভীর মনে হচ্ছে যেনো দুনিয়ার দুঃখ রাহাতের ঘারে এসে জমা হয়েছে একটু পর রনি এসে পিছন থেকে রাহাতের পিঠ চাপড়ে কিরে দোস্ত কেমন আছিস ??
রাহাতঃ আছি রে দোস্ত খুব একটা ভাল নেই !! কিছুটা বিমর্ষ হয়ে উত্তর দিলো রাহাত।
রনিঃ কেনো কি হয়েছে তুই তর ডার্লিং এর সাথে ঝগড়া করছস নাকি তর ডার্লিং তোর সাথে ঝগড়া করছে ??
রাহাতঃ আরে না আমার দল বিশ্বকাপে গ্রপ অব ডেথ এ পড়ে গেছে !!
রনিঃ তোর দল কোনটা ??
রাহাতঃ ইংল্যাণ্ড !!
রনিঃ ধুর বেটা ইংল্যান্ড একটা দল হল নাকি ওরা তো এমনিতেই প্রথম রাউন্ড থেকে বিদায় নিবে !! আমার দল হল বেটা ব্রাজিল ৫ বার বিশ্বচ্যাম্পিয়ান আমরা !! রনির মুখে গর্বিত হাসি দেখে রাহাতের গা জ্বলে উঠল !!
রাহাতঃ আরে বেটা ফুটবলের জনক হল ইংল্যান্ড আর তোরা ব্রাজিল নিয়ে ফাও পারস !!
রনিঃ সাধে কি আর ফাও পারি মামা ৫ বার বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়ছে কোন দল দেখাতে পারবি ?? বিশ্বের সেরা স্টাইকার কোন দেশে জানস আমার ব্রাজিলে রোনালদো দ্যা বস বুক ফুলিয়ে জবাব দিলো রনি ।।
পাশেই বসা একজন ভদ্রগোছের ব্যাক্তি হটাৎ বলে উঠল ফুটবল মানেই হল আর্জেন্টিনা যে দল যতই খেলুক না কেনো আর্জেন্টিনার ধারে কাছে কেউ যেতে পারবেনা শৈল্পিক ফুটবলের জনক হল আর্জেন্টিনা !! ফুটবল ঈশ্বর আছে আমাদের পাশেই !। ভদ্রলোকের সাথে তাল মিলিয়ে চায়ের দোকানি মামা বলে উঠল হ মামা আপনি একদম ঠিক বলছেন আর্জেন্টিনা ছাড়া অন্যকোন দলের সাপোর্ট কোনদিন করিনাই করবনা !! রনি বিদ্রুপ করে বলে উঠল আর্জেন্টিনা মাতালের দল এবং ঐ দলের সবাই মাতাল সবচেয়ে বড় মাতাল হল চেরাডোনা (ম্যারাডোনা) হাত দিয়া গোল দিয়া নাকি ফুটবল ঈশ্বর অনেকটা রঙ্গ করে বলল রনি ।। পাশে বসা ভদ্রলোক বলে উঠল ব্রাজিলের সাপোর্টার হল সব ভুয়া খেলার “খ” বুঝেনা খালি হাম্বা হাম্বা করে (সাম্বা) সব কটা বলদ !! একটু পর রনির বন্ধু তনয়ের আবির্ভাব এবং সাথে সাথে তনয়কে উদেশ্য করে রাহাতের মন্তব্য আর্জেন্টিনার সবাই চোর হাত দিয়ে গোল করে নিজেকে ঈশ্বর দাবি করে তাইনা তনয় !! তনয় রনীর সাথে সুর মিলিয়ে বলল শুধু চোর না ওরা অনেক দুর্বল তাইতো ওদেরকে নরম দলের সাথে খেলতে দিয়েছে গ্রুপ পর্বে আর আমাদের ব্রাজিল শক্তি পরীক্ষা দিতে জানে তাইতো আমাদের সাথে সব বাঘা বাঘা দলের খেলা তাই আমরা এইবার দেখাবো বাঘের গর্জন কারে কয় !! যে যাই বলুক আমাদের আছে মেসি যার খেলা নিয়ে কারো কিছু বলার নেই সে একাই ১০০ !! এরমধ্য আরো কিছু মানুষের জমায়েত হয়ে গেলো চায়ের দোকানে এবং তাদের মধ্য একজন বলে উঠল জার্মানি হল একমাত্র দল যাদের কাছে আর্জেন্টিনা ব্রাজিল পাত্তাও পায়না মেসি যদি একাই ১০০ হল তাহলে আমাদের বালাক একাই ১০০০ !! উনার পাসে থাকা আর একজন বলে বসল সবচেয়ে ভাল দল স্পেন ওদের খেলার মাঝে কোন খুত নেই সবসময় পরিষ্কার খেলা নিয়ে ওদের আছে সুনাম আর এর মধ্য ওরা প্রমাণ করেছে ওরা কি করতে পারে !! এর মধ্য আর্জেন্টিনা সাপোর্টার ভদ্রলোক বলে উঠলেন যে যায় বলেন না কেনো আর্জেন্টিনা এইবার বিশ্বকাপ নিয়েই ছাড়বে সাথে সাথে উনাকে লক্ষ্য করে রনির মন্তব্য চোররা কোনদিন বিশকাপ নিতে পারবেনা আর আর্জেন্টিনার সব সাপোর্টার চোর !! চায়ের দোকানি বলে উঠল না মামা আপনি এইডা ঠিক বলেন নাই আমরা যদি চোর হয়ে থাকি তাহলে আপনারা ডাকাত !! তনয় অধিক উত্তেজিত হয়ে আমরা ডাকাত হলে আপনারা মাফিয়া পাসে বসা আর্জেন্টিনার সাপোর্ট করা ভদ্রলোক বললেন আমরা যদি মাফিয়া হয় আপনারা জারজ !! রনির এবার মাথা খারাপ হয়ে গেলো লোকটাকে বলল আপনি আমাদের জারজ বলেছেন ইয়া ঠিসুম ………

অতঃপর তার পরের দিনের পেপারের শিরোনাম অমুক চায়ের দোকানে ব্রাজিল এবং আর্জেন্টিনা দুই দলের সাপোর্টারদের মধ্য সংঘর্ষে ৫ জন আহত এবং এদের মধ্য ১ জনের অবস্থা আশংকাজনক উনার নাম রনি এবং জানা গেছে উনি ব্রাজিল দলের সাপোর্টার !!

সকালে অফিসে এসে রফিক সাহেব পেপারে এই শিরোনাম দেখে হেসে উঠে বললেন ব্রাজিলের সাপোর্টারা সারাজীবন আর্জেন্টিনা থেকে এইভাবে মাইর খেয়ে যাবে বলেই অট্টহাসি দিয়ে উঠলেন পাসেই বসা উনার অফিস কলিগ জামাল সাহেব বলে উঠলেন আর্জেন্টিনার সাপোর্টাররা আসলেই চোর তায়তো নিজেদের সাপোর্টারকে ব্রাজিলের সাপোর্টার বানিয়ে চুরির অপবাদ দিচ্ছে এবং অতঃপর আবারো ঝগড়া আবারো অশ্লীলতা আবারো ইয়া ঠিসুম……………

এটা নিছক একটা ঘটনা তবে সামনে ফুটবল বিশ্বকাপ আসছে এবং চায়ের কাপে এর রকম হাজারো ঝড় তোলার সময় আসছে !! রনি, রাহাত, তনয়ের মত হাজারো মানুষ ঝড় তুলতে প্রস্তুত ওদের সাথে আমিও আছি কারণ এই ঝড় যে রাজনৈতিক ঝড় নয় বিশ্বকাপ ঝড় ……………

১৫ thoughts on “চায়ের কাপে ঝড়………

  1. যে যে দেশ ফুটবল বিশ্বকাপে
    যে যে দেশ ফুটবল বিশ্বকাপে অংশগ্রহন করে, এমন অনেক দেশের চেয়ে বেসি আনন্দ-উল্লাস-তর্ক- হয় বাংলাদেশে,
    হয়ে উঠে চায়ের কাপে ঝড়।

    1. একদম ঠিক বলেছেন আপনি আর এই
      একদম ঠিক বলেছেন আপনি আর এই ঝড়ের মাঝে আছে অন্যরকম সুখ আর নিজ দলের জয়ের মাঝে আছে বিজয়ের গর্ব……… ধন্যবাদ :গোলাপ:

      1. সবারই একটি দল সমর্থন থাকে,
        সবারই একটি দল সমর্থন থাকে, কেউ কেউ নিজের দলের উপর বেশি প্রেম দেখিয়ে অন্য জনের সাথে মারামারি পর্যন্ত লেগে যায়…এটাই খারাপ দিক।

  2. বাঙ্গালী সবসময় অপরের বিপদে
    বাঙ্গালী সবসময় অপরের বিপদে চিন্তিত। নিজেরে যে ধীরে ধীরে কোমায় যাচ্ছে সে ব্যাপারে কোন খেয়াল নাই॥

    1. এইটা বাঙ্গালীর দোষ কিন্তু
      এইটা বাঙ্গালীর দোষ কিন্তু একটি কথা মনে রাখতে হবে বাঙ্গালী পারে কোমা থেকে জেগে উঠতে কারণ বাঙ্গালী মিরাকেল জাতি …… 😀

        1. বাঙ্গালী হচ্ছে সংকর জাতি। তাই

          বাঙ্গালী হচ্ছে সংকর জাতি। তাই তাদের দ্বারা যে কোন সময় যে কোন কিছু সম্ভব॥

          সহমত সৈকত ভাই,

  3. স্বপ্ন দেখি আমার সোনার
    স্বপ্ন দেখি আমার সোনার বাংলাদেশও একদিন ফুটবল বিশ্বকাপ খেলবে।
    সেদিন আমরা চায়ের কাপে ঝড় তুলব আমাদের দেশ সেরা বলে…….

    1. যদি বাংলাদেশে বিশ্বকাপ খেলার
      যদি বাংলাদেশে বিশ্বকাপ খেলার ব্যবস্থা করার ক্ষমতা হয়, তখন স্বাগতিক দল হিসেবে খেলতে পারবে, কম সময়ে। এভাবে সরাসরি খেলতে অনেক সময় লেগে যাবে, যা বুঝা যায়।

      1. এই কথাটা ভাল বলেছেন যাত্রী
        এই কথাটা ভাল বলেছেন যাত্রী ভাই কিন্তু কথা হচ্ছে ফুটবল র‍্যাংকিং এ আমাদের স্থান ১৪৮ যেখানে এই মহাযজ্ঞের আয়োজনের জন্য বিশ্বের সবচেয়ে বড় বড় দেশগুলো মরিয়া হয়ে থাকে সেখানে আগামী ১৪৮ বছরে আমাদের পক্ষে বিশ্বকাপ আয়োজন করা সম্ভব হবে কিনা চিন্তার বিষয় কিন্তু আমরা আশাবাদী………

Leave a Reply to রাজু রণরাজ Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *