প্রজন্ম এই মাসেই কাদেরের ফাসিঁ দেখতে চায়!

মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামীকে রায়/ফাসিঁ কার্যকর করার আগ পর্যন্ত যে সেলে আটকে রাখা হয় তাকে কনডেম সেল বলে। ভি চিহ্ন দেখানো কাদের মোল্লা এখন কনডেম সেলে আছে। যে কোন দিন রায় কার্যকর করা হতে পারে। যেসব ছাগুরা আপিলের চিন্তাভাবনা করতেছে, তাদের জন্য Pial ভাইর বানীঃ


মৃত্যুদন্ডপ্রাপ্ত আসামীকে রায়/ফাসিঁ কার্যকর করার আগ পর্যন্ত যে সেলে আটকে রাখা হয় তাকে কনডেম সেল বলে। ভি চিহ্ন দেখানো কাদের মোল্লা এখন কনডেম সেলে আছে। যে কোন দিন রায় কার্যকর করা হতে পারে। যেসব ছাগুরা আপিলের চিন্তাভাবনা করতেছে, তাদের জন্য Pial ভাইর বানীঃ

”কাদের মোল্লার রায় নিয়া সংবিধান দেখায়া লাভ নাই, সংবিধানেই মানবতাবিরোধী অপরাধে অভিযুক্ত কোনো যুদ্ধাপরাধীর সংবিধানের আওতাধীন কোনো অধিকার প্রয়োগের অধিকার নাই। ট্রাইবুনালের রায় সরকার চাইলে আজ থেকে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে কার্যকর করতে পারে, আবার চাইলে জেল কোডের আওতায় তা করতে পারে। তবে সময়ের দাবি চৌদ্দই ডিসেম্বর, ১৩ ডিসেম্বর গভীর রাত দুইটা থেকে চারটা।”

আইন আইন অনুসারে আপিল বিভাগের চূড়ান্ত রায়ের বিরুদ্ধে পুনর্বিবেচনার (রিভিউ) আবেদন করতে পারবেন না বলেও উল্লেখ করেছেন ভারপ্রাপ্ত অ্যাটর্নি জেনারেল ও আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউশনের সমন্বয়ক এম কে এম কে রহমান।

যদি সত্যিই এ বছরের বুদ্ধিজীবি হত্যা দিবসের প্রথম প্রহরে কাদেরের ফাসিঁ হয়, আমি ওর লাশের উপর দাড়িঁয়ে ভি চিহ্ন দেখিয়ে ফটু তোলার ইচ্ছা রাখি।

কাদের মোল্লাকে নিয়ে লেখা ফেসবুকে আমার প্রথম স্ট্যাটাস, ব্লগার রাজীব হত্যার পরদিন সকালেঃ

৬ thoughts on “প্রজন্ম এই মাসেই কাদেরের ফাসিঁ দেখতে চায়!

  1. এই মাসেই ফাঁসি হোক এটা আমাদের
    এই মাসেই ফাঁসি হোক এটা আমাদের প্রাণের দাবী। কিন্তু আইন কি বলে সেটা কি কেউ জানেন? প্রশাসন কি ইচ্ছে করলেই এই মাসে ফাঁসি কার্যকর করতে পারবে? যদি কোন বাঁধা না থাকে তাহলে এই দাবী আমরা জোরদার করতে পারি।

    1. রাষ্ট্র পক্ষ বলছে রিভিয়র
      রাষ্ট্র পক্ষ বলছে রিভিয়র সুযোগ নাই, রাজ্জাক বলছে সংবিধান অনুযায়ী রিভিয়র সুযোগ আছে।
      আতিক ভাই বুঝতে পারছি না……এই বিষয়টা।

    2. আপনার প্রশ্নের উত্তর এখানে
      আপনার প্রশ্নের উত্তর এখানে পাবেন।

      যতদূর মনে হয়, কোন বাধা নাই। সরকার যে কোন সময়ে রায় কার্যকর করার অধিকার সংরক্ষরন করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *