কিছু ঝগড়া কিংবা কাছে আসা

কোন এক কুয়াসাচ্ছন্ন বিকেলে কারো হাত ধরে হাঁটছি,
সেই হাতের ছোঁয়ায় কিছুক্ষন আগের নষ্ট বিকেল টা কেন জানি অনেক সুন্দর হয়ে উঠেছে,
জানিনা সেই হাত আমার হাতে কতক্ষন থাকবে,
এরপর সময়গুলো কি স্বপ্নিল হবে নাকি আরও কিছু নষ্ট সময় এর সুচনা হবে।

.
.
.
অফিসের কিছু কাজ বাকী ছিল স্ট্যাটাস টা দিয়ে ভাবলাম করে নেওয়া যায় ,



কোন এক কুয়াসাচ্ছন্ন বিকেলে কারো হাত ধরে হাঁটছি,
সেই হাতের ছোঁয়ায় কিছুক্ষন আগের নষ্ট বিকেল টা কেন জানি অনেক সুন্দর হয়ে উঠেছে,
জানিনা সেই হাত আমার হাতে কতক্ষন থাকবে,
এরপর সময়গুলো কি স্বপ্নিল হবে নাকি আরও কিছু নষ্ট সময় এর সুচনা হবে।

.
.
.
.
.
অফিসের কিছু কাজ বাকী ছিল স্ট্যাটাস টা দিয়ে ভাবলাম করে নেওয়া যায় ,

সে – এই যে কথার আব্বু আপনি বিকেলে কার হাত ধরে হেঁটেছেন হ্যা ???

আমি – কই নাতো।

সে – কই নাতো মানে কি ???? অফিসে থাকো না এসব কর হ্যা ??? আমাকে আর ভালো লাগে না ! না ??? যাও না রাতে ওর কাছেই যাও, এখানে আসছো ক্যান ??

আমি – কি বলছ কিছুই বুঝতেছিনা আমি, কি হয়েছে ??

সে – হ্যা এখন তো বুঝবাই না কিছু, ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ার সময় ঠিকই মনে থাকে, তা কই গেছিলা তাকে নিয়ে ?? কই কই ঘুরলা। এই জন্যেই তো আমার ফোন ধর না, ভালো তো খুব ভালো, রাতে আমার রুমের আশেপাশেও আসবানা,

আমি – না বাবু শোন, তুমি বলছিলা না রাগ করেল আমাকে রুমে যেতে দিবে, আমি নিচে থাকবো তুমি উপরে।

সে – ও তাই না ??? তারমানে রাগ করার পড় কি বলবা তাও ঠিক করে রাখছ, যাও না যাও ওই মেয়ের রুমে গিয়ে ঘুমাও, আমার কাছে আসবা না।

আমি – বাবু শোন লক্ষ্মী বউ আমার আমি তো আমাদের সেই আগের কথা লিখছি,
ওই যে বিকেলে যখন তোমার সাথে হাত ধরে হাঁটতাম আর তুমি চলে গেলে আবার মন খারাপ করে রাখতাম সেইটা লিখছি। মনে করে দেখো। ওই জন্যেই দিছি। শোন না বাবু শোন তোমাকে না অন্নেক অন্নেক ভালোবাসি।

সে – হুহ লাগবে না।

আমি – লাগবে তো বাবু, ভালোবাসি ভালোবাসি, ভালোবাসি।

সে – হু , লাভ ইউ বল।

আমি – হুম লাভ ইউ।

সে – হুম ভালোবাসি

আমি – উহু লাভ ইউ।

সে – না ভালোবাসি।

( আসলে অফিসে থাকার সময় কাজের ফাঁকে ওর ফোন টা কয়েকবার ধরি নি, আর সেই কারনে বাসায় আসছি পর্যন্ত সে একবার ও কথা বলে নি, রাগ ভাঙ্গানোর জন্যে স্ট্যাটাস টা দিতেই হল। আমি জানতাম স্ট্যাটাস দেখে ও ঠিক ই আমাকে বকা দেওয়ার জন্যে বলবে। আসলে ঘরের বউ যদি কথা না বলে কেমনে ভালো লাগে। )

৪ thoughts on “কিছু ঝগড়া কিংবা কাছে আসা

  1. আপনাদের মত বিবাহিত পুরুষরা না
    😀 আপনাদের মত বিবাহিত পুরুষরা না থাকলে আমরা ব্যাচেলরদের অবস্থার করুণ পরিণতি অবধারিত ছিলো ।। ধন্যবাদ আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করার জন্য …… :ভেংচি:

Leave a Reply to অন্ধকারের যাত্রী Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *